ঈদে আসছে সালাহউদ্দীন জাকীর ‘অপরাজেয় একা’

ঈদের সপ্তম দিন সকাল সোয়া দশটায় চ্যানেল আইয়ে ‘অপরাজেয় একা’ সিনেমাটির ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হবে।

গ্লিটজ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 April 2024, 02:57 AM
Updated : 2 April 2024, 02:57 AM

তখন তিনি চাইলেও ইচ্ছেমত ছুটোছুটি করতে পারতেন না, চলাফেরা ছিল হুইল চেয়ারে, তবুও দমে যাননি। নানা শারীরিক সীমাবদ্ধতার মধ্যেই কয়েক বছর আগে সৈয়দ সালাহউদ্দীন জাকী বানালেন ‘অপরাজেয় একা’। নির্মাতার মৃত্যুর দুমাস পর সিনেমাটির প্রিমিয়ার হবে এবারের রোজার ঈদে, চ্যানেল আইয়ের পর্দায়।

এক বিজ্ঞপ্তিতে চ্যানেল আই জানিযেছে, ঈদের সপ্তম দিন সকাল সোয়া ১০টায় সিনেমাটি দেখানো হবে।

ফরিদুর রেজা সাগরের ‘একা’ গল্প অবলম্বনে এ সিনেমায় সালাউদ্দিন জাকী মূল চরিত্রটি দেন আফজাল হোসেনকে। যার সঙ্গে নির্মাতার ছিল পাঁচ দশকের সখ্য।

অবশ্য এ চরিত্রের জন্য প্রথমে তিনি তার ‘ঘুড্ডি’র নায়ক রাইসুল ইসলাম আসাদকে ভেবেছিলেন। কিন্তু আসাদ সে সময় অসুস্থ থাকায় চরিত্রটি করেন আফজাল।

তার সঙ্গে আরও অভিনয় করেছেন দীপা খন্দকার, তাহমিনা অথৈ, ঝিলিক জান্নাত, হাসনাত রিপনসহ কয়েকজন।

সিনেমার সংগীত পরিচালনা করেছেন ফোয়াদ নাসের বাবু। গানে কণ্ঠ দিয়েছেন রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, লীনু বিল্লাহ, কনা, কোনাল, শাহীন খান।

১৯৮০ সালে মুক্তি পায় জাকীর প্রথম চলচ্চিত্র ‘ঘুড্ডি, সেই সিনেমার জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ সংলাপ রচয়িতার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। রাইসুল ইসলাম আসাদ ও সুবর্ণা মুস্তাফা অভিনীত ‘ঘুড্ডি’সিনেমায় হ্যাপি আখান্দের গাওয়া ‘আবার এল যে সন্ধ্যা’ গানটি তুমুল জনপ্রিয়তা পায়।

জাকীর প্রযোজনায় ১৯৯০ সালে মুক্তি পায় সিনেমা ‘লাল বেনারসি’ এবং ‘আয়না বিবির পালা’।

‘ঘুড্ডি’ ছাড়াও ‘আগামী’ (১৯৮৪), ‘উত্থানপতন’ (১৯৯২), ‘সে’ (১৯৯৩), ‘নদীর নাম মধুমতি’ (১৯৯৩) এবং ‘মেঘলা আকাশ’ (১৯৯৬) সিনেমার কাহিনীকার তিনি।

চলচ্চিত্রে অবদানের জন্য  সালাউদ্দীন জাকীকে একুশে পদক পান ২০২১ সালে।

সালাউদ্দিন জাকী মারা যান চলতি বছরের ২৪ জানুয়ারি।