হঠাৎ বিরতি ঘোষণা আমির খানের, কেন?

দেড় বছর কোনো সিনেমা করবেন না এই বলিউড তারকা।

গ্লিটজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Nov 2022, 03:31 PM
Updated : 15 Nov 2022, 03:31 PM

‘কেয়ামত সে কেয়ামত’ দিয়ে শুরু ১৯৮৮ সালে; তখন ‘চকলেট হিরো’ তকমা্ সঙ্গী হয়েছিল নামের সঙ্গে। তারপর নিজেকে ভেঙেছেন-গড়েছেন; বলিউডে বহুমাত্রিক এক অভিনেতা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন; তিন দশক পর সেই আমির খান সিদ্ধান্ত নিলেন অভিনয়ের বিরতি দেওয়ার।

সোমবার দিল্লিতে একটি অনুষ্ঠানে নিজের বিরতি নেওয়ার বিষয়টি আমির প্রকাশ্যে আনেন বলে জানিয়েছে ভারতের সংবাদ মাধ্যম। এই তারকা অভিনেতা জানালেন, দেড় বছর তাকে কোনো সিনেমায় দেখা যাবে না।

এমন এক সময়ে তিনি এই ঘোষণা দিলেন, যখন তার সদ্য মুক্তি পাওয়া সিনেমা ‘লাল সিং চাড্ডা’ বক্স অফিসে ব্যর্থ হয়েছে।

খুঁতখুঁতে হিসেবে পরিচিত আমির খান সিনেমা কম করেন, কিন্তু যেটি করেন, সেটিই হিট, এমনটাই হয়ে আসছিল। হলিউডের ‘ফরেস্ট গাম্প’র রিমেক লাল সিং চাড্ডা নিয়ে বেশ আশাবাদী ছিলেন আমির।

তাহলে কি সিনেমার ব্যর্থতায় হতাশ হয়ে তার এই সিদ্ধান্ত?

সোমবারের অনুষ্ঠানে ধূসর চুল ও দাড়িতে আমিরের উপস্থিতি তেমনটাই ইঙ্গিত করে। লাল সিং চাড্ডা ঘিরে ট্রল আর সমালোচনায় বিধ্বস্তও মনে হচ্ছিল ৫৭ বছর বয়সী এই অভিনেতাকে।

অবশ্য আমির বললেন ভিন্ন কথা। তার ভাষ্য, এখন পরিবারকে সময় দিতে চান তিনি।

এই অভিনেতা বলেন, জীবনের যে পর্যায়কে অতিক্রম করছেন, এখন তাতে তার সম্পর্কের প্রতি আরও যত্নশীল হওয়ার কথা মনে হয়েছে।

“ক্যারিয়ারের পুরোটা সময় কাজে খুব ডুবে ছিলাম আমি। এখন মনে হচ্ছে, পরিবারের সাথে ঠিক কাজটি করিনি। আগামী দেড় বছর পরিবারকে একটু সময় দিতে চাই। জীবনকে নানাভাবে উপভোগ করতে চাই।”

সিনেমায় আসার দুই বছর আগেই বাল্য প্রেমিকা রীনা রায়কে বিয়ে করেছিলেন আমির; তাদের সেই সংসার ভেঙে যায় ২০০২ সালে। দুই সন্তান জুনাইদ ও ইরা তাদের মায়ের কাছেই বড় হন।

পরে আমির বিয়ে করেন কিরণ রাওকে, ২০০৫ সালে। গত বছরই তাদের দাম্পত্য বিচ্ছেদে গড়ায়। তবে একমাত্র সন্তান আজাদকে দুজন একসাথে বড় করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

আমির বলেন, আজকাল তার মনে হচ্ছে পরিবার, মা ও বাচ্চাদের সঙ্গে সময় কাটানো প্রয়োজন।

আমির খানের বাবা প্রয়াত তাহির হুসেন ছিলেন একজন চলচ্চিত্র প্রযোজক, পরিচালক, চিত্রনাট্যকার। ভারতের কংগ্রেস নেতা মৌলানা আবুল কালাম আজাদ সম্পর্কে আমিরের দাদা হন। ভারতের রাজনীতিক নাজমা হেফতুল্লাহ চাচাত বোন হন আমিরের।

লাল সিং চাড্ডার পরে ‘চ্যাম্পিয়নস’ সিনেমা নিয়ে কাজ শুরু করার কথা ছিল আমিরের। এখন পরিকল্পনাটি বদলে যাচ্ছে।

“যখন সিনেমা বানাই তখন এতটাই হারিয়ে যাই যে জীবনে নতুন কিছুই আর ঘটে না। লাল সিং চাড্ডার মুক্তির পর চ্যাম্পিয়নস নিয়ে কাজ করার ইচ্ছা ছিল। সিনেমার স্ক্রিপ্টটা দুর্দান্ত। গল্পটা সুন্দর এবং বেশ হৃদয়গ্রাহী; মনোরম।”

আমিরকে কাজলের আসন্ন সিনেমা ‘সালাম ভেঙ্কি’তে একটি ছোট চরিত্রে দেখা যাবে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক