একসঙ্গে শুটিং সেটে ১৮ বছর পর

“আমার চরিত্রটা দাপুটে টাইপ নারী। মেয়েকে নিয়ে ওদের বাড়িতে এসেছি। এসে কিছু ঝামেলা তৈরির চেষ্টা করছি,” বললেন নাজনীন চুমকি।

গ্লিটজ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 August 2022, 12:54 PM
Updated : 13 August 2022, 12:54 PM

“একই সিরিয়াল, একই সেট, একসাথে দুই দোস্ত। নিমা রহমান নির্দেশিত ‘গুলশান এভিনিউ সিজন-২’। বহু বহুদিন আগে আমরা দুজন গাজী রাকায়েত নির্দেশিত ‘পরিবার ও একটি কোম্পানি’ নাটকে অভিনয় করেছিলাম।”

শনিবার সকালে ফেইসবুকে লিখেছেন অভিনেত্রী নাজনীন হাসান চুমকি। এর সূত্র ধরে অভিনেত্রী নাজনীন হাসান চুমকি ও ফারজানা চুমকির সঙ্গে কথা বলে জানা গেল, গুলশানে একই শুটিং সেটে অভিনয় করছেন তারা।

কত বছর পর একসঙ্গে অভিনয় করছেন?- জানতে চাইলে নাজনীন চুমকি প্রশ্ন ছুড়ে দেন ফারজানা চুমকির দিকে। ফারজানা চুমকি জানান, ২০০৪ সালে সবশেষ একসঙ্গে অভিনয় করেছিলেন তারা। সেই হিসাব ধরলে প্রায় ১৮ বছর পর।

এই দুই অভিনেত্রী মঞ্চে অভিনয়ের সঙ্গে যুক্ত। দেশ নাটক এর সঙ্গে কাজ করছেন নাজনীন হাসান চুমকি। অন্যদিকে ফারজানা চুমকি কাজ করছেন ঢাকা থিয়েটারে। তবে তাদের বন্ধুত্ব তৈরি হয় টেলিভিশন নাটকে অভিনয় করার সময়।

নাজনীন চুমকি বলেন, “ফারজানা চুমকির স্বামী অভিনেতা মীর সাব্বিরের মাধ্যমে ১৯৯৯ সালে পরিচয় হয়েছিল তার সঙ্গে। পরে আমরা একসঙ্গে কিছু কাজও করেছি। অনেক বছর একসঙ্গে অভিনয় না করলেও নিয়মিত দেখা হওয়া, পারিবারিক আয়োজনে উপস্থিত হওয়ার মধ্য দিয়ে আমরা একে অপরের পাশে আছি। আমাদের এই বন্ধুত্বের কথা মিডিয়া পাড়ার সবাই জানে।”

বাস্তবে বন্ধু হলেও ‘গুলশান এভিনিউ সিজন-২’ নাটকে দুজনকে দেখা যাবে বিপরীত চরিত্রে। এ সপ্তাহ থেকেই নাজনীন চুমকি সিরিয়ালটিতে অভিনয়ে যুক্ত হয়েছেন। জিনাত হোসাইন নামের একটি চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি।

নাজনীন চুমকি বলেন, “আমার চরিত্রটা দাপুটে টাইপ নারী। আমার একটি মেয়ে আছে। মেয়েকে নিয়ে ওদের বাড়িতে এসেছি। এখানে কিছু ঝামেলা তৈরির চেষ্টা করছি। বলা যায় ভিলেন টাইপ চরিত্র।” তারিক আনাম খানের নির্বাহী প্রযোজনা ও নিমা রহমানের রচনা ও পরিচালনায় ‘গুলশান এভিনিউ সিজন-২’বাংলাভিশনে প্রচারিত হচ্ছে প্রতি সপ্তাহে বুধ থেকে রোববার রাত ৮টা ২০ মিনিটে। এতে আরও অভিনয় করছেন তারিক আনাম খান, তানভীন সুইটি, দীপা খন্দকার, মিম চৌধুরী, শতাব্দী ওয়াদুদ, শেলী আহসান, সিরাজুল ইসলাম, রিয়াদ রায়হান, তৃষ্ণা হাওলাদার, আফরোজা আক্তার।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক