সোনার চর: এবারের ঈদের ‘একমাত্র রাজনৈতিক সিনেমা’

“পঁচাত্তর পরবর্তী সময়ে রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে তৈরি হয়েছে গল্প।”

গ্লিটজ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 April 2024, 05:02 AM
Updated : 1 April 2024, 05:02 AM

অভিনয় কমিয়ে দেওয়া ঢাকাই সিনেমার নায়িকা মৌসুমী দুই বছর পর আসছেন রোজার ঈদের সিনেমায়।

পঁচাত্তর পরবর্তী সময়ের প্রেক্ষাপটে নির্মিত ‘সোনার চর’ সিনেমায় মৌসুমীর সঙ্গে অভিনয় করেছেন তার স্বামী অভিনেতা ওমর সানি এবং ‘ভাইরাল ম্যান’ জায়েদ খান।

সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন পরিচালক জাহিদ হাসান। মুক্তির সব প্রস্তুতি শেষ করে এখন চলছে প্রচার কাজ। নির্মাতার ভাষায়, এবারের ঈদের ‘একমাত্র রাজনৈতিক সিনেমা’ সোনার চর।

নির্মাতা জাহিদ গ্লিটজকে বলেন, “এবারের ঈদে যেহেতু অন্য বছরের তুলনায় বেশি সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে, তাই সিনেমা মুক্তি প্রক্রিয়া একটু ম্যানেজমেন্টের মধ্যে থাকবে। সিনেমাগুলো কোনটি কতটা হল পাচ্ছে এগুলো নিয়মের মধ্যে থাকবে। যেহেতু আমাদের দেশে হলের সংখ্যা কম।”

‘সোনার চর’ এর গল্প প্রসঙ্গে নির্মাতা বলেন, “পঁচাত্তর পরবর্তী সময়ে রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে তৈরি হয়েছে গল্প। আমাদের সমাজে অপসংস্কৃতি, গ্রাম বাংলার মানুষের জীবনযাত্রা উঠে আসবে সিনেমাটিতে। ৭৫ এর পরে রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট অনেকেই জানে না। সেগুলো তুলে ধরা হয়েছে।”

ঈদে যেহেতু প্রচুর সিনেমা মুক্তি পায়, সেক্ষেত্রে ‘সোনার চর’ মুক্তির জন্য এই সময় কেন বেছে নেওয়া হল প্রশ্ন করলে জাহিদ বলেন, “সিনেমার কাজ শেষ হওয়ার পর প্রযোজক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সিনেমা ঈদে মুক্তি দেবেন। ঈদের আসন্ন সিনেমার তালিকায় প্রথম সিনেমা সোনার চর। প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতি থেকে মুক্তির যে অনুমতি নিতে হয়, সেখানে সোনার চর সবার আগে মুক্তির অনুমতি নিয়েছে।“

ঈদে সিনেমা মুক্তির চল নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে নির্মাতা বলেন, “মাত্র একদিন আগে সেন্সর বোর্ড থেকে মুক্তি পেয়েছে, এমন সিনেমাও কিন্তু ঈদে মুক্তি পায়। আমাদের প্রযোজক যারা সিনেমায় লগ্নি করে, তারা শুধু বোঝেন ঈদে সিনেমা মুক্তি দিলে তাদের সিনেমা আলোচনায় থাকবে এবং ভালো হল পাবে। কিন্তু যখন দেখা যায়, কোনো বড় তারকার সিনেমা যেটা একশর উপরে হল পেয়ে ফেলবে, তার সিনেমা তেমন হল পাবে না তারপরও সিনেমা মুক্তি দেবে।

“এই যে ঈদে ১৩ থেকে ১৪টা সিনেমা মুক্তির কথা শোনা যায়, এসব সিনেমার মধ্যে অনেক সিনেমা আছে যেগুলো ঈদ ছাড়া এলেও ভালো ব্যবসা করতে পারবে। তবুও ঈদে সিনেমা নিয়ে আসার পরিকল্পনা সবাই করে, যতক্ষণ প্রযোজক সমিতির মাধ্যমে এগুলো নিয়ন্ত্রণ করা না হবে, এমনভাবেই চলবে।”

‘সোনার চর’ নিয়ে প্রত্যাশা কেমন?  পরিচালক জাহিদের উত্তর, “ঈদে যতগুলো সিনেমা আছে তার মধ্যে সোনার চর একমাত্র রাজনৈতিক সিনেমা। আগের গ্রাম বাংলার জনপ্রিয় সিনেমা ‘গোলাপি এখন ট্রেনে’, ‘সুন্দরী’, ‘নয়নমণি’, ‘লাঠিয়াল’ এসব সিনেমায় যেমন গ্রামের গল্প, প্রাণের গল্প উঠে এসেছে এই সিনেমায়ও গ্রামীণ মানুষের জীবনের গল্প, চর দখল, লাঠিয়াল দৃশ্য, একটা মেয়েকে নিয়ে সামাজিক অপচেষ্টা চালানো, জোর করে বিয়ে করার যে ঘটনা সেগুলো উঠে এসেছে। সিনেমায় রাজনৈতিক বার্তা আছে। এই সিনেমাটি দেখলে আগের দিনের সিনেমার কথা মনে পড়বে দর্শকের। সিনেমা চলা না চলা দর্শকের উপর নির্ভর করে। তবে এটি মৌলিক গল্পের সুন্দর একটি সিনেমা।”  

শোনা যাচ্ছে জায়েদ খান ছাড়া অন্য শিল্পীরা সিনেমার প্রচার চালাচ্ছেন না। এ বিষয়ে প্রশ্ন করলে নির্মাতা বলেন, “আগে এ ধরনের প্রথা চালু ছিল না। শিল্পীরা হলে হলে ঘুরবে, প্রচারে নামবে– এমন আগের দিনের শিল্পীদের দেখা যেত না। এটা নতুন চালু হয়েছে।

“সিনেমা চলবে সিনেমার গুণে, গল্পের গুণে। যারা মনে করে সিনেমা হলে শিল্পীদের নিয়ে গিয়ে আলোড়ন তুলতে হবে তারা করে। আমার সিনেমার নায়িকা মৌসুমী এখন দেশের বাইরে। এখন তারা নাই, তাই বলে কি আমার সিনেমা কোনো দিন মুক্তি পাবে না? এভাবেই চালাতে হবে।”

‘সোনার চর’ নিয়ে গ্লিটজ কথা বলেছে এই সিনেমায় মুক্তিযোদ্ধার ভূমিকায় অভিনয় করা জায়েদ খানের সঙ্গেও।

তিনি বলেন, “বঙ্গবন্ধু হত্যার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বাংলাদেশে ফিরে আসার সময়ের গল্প নিয়ে সাজানো হয়েছে ছবিটি। এতে আমি একজন মুক্তিযোদ্ধার চরিত্রে অভিনয় করছি। ক্যারিয়ারে অনেক ধরনের চরিত্রে অভিনয় করা হলেও মুক্তিযোদ্ধা চরিত্রে প্রথম অভিনয় করছি। আমার ক্যারিয়ারে সবচেয়ে শ্রম দেওয়া সিনেমা। আমার বিশ্বাস, ভিন্ন এক জায়েদ খানকে দেখতে পাবেন দর্শক।”

এর মধ্যে মুক্তি পেয়েছে সিনেমার প্রথম গান ‘আসমানে ঘর বাইনছে তারা’। শাহাবুদ্দিন মজুমদারের কথায় আবিদ রনির সুরে গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন বেলাল খান ও দিলশাদ নাহার কণা।

‘সোনার চর’র শুটিং শুরু হয়েছিল ২০২১ সালে, যা শেষ হয় গত বছর। সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র মেলে চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে। 

এই সিনেমার অন্যান্য চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন শহীদুজ্জামান সেলিম, স্নিগ্ধা, শবনম পারভীনসহ অনেকে।