যে সব সিনেমা বিনা পারিশ্রমিকেই করেছিলেন তারা

এখন আলোচনায় রণবীর কাপুর; তবে এই তালিকায় আছেন অমিতাভ বচ্চন, শাহিদ কাপুর, দীপিকা পাড়ুকোনও।

গ্লিটজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Sept 2022, 10:33 AM
Updated : 24 Sept 2022, 10:33 AM

একটি সিনেমায় ১০০ কোটি রুপিও নেন তারা, অথচ সিনেমা করেছেন কিন্তু কোনো অর্থ নেননি এমন ঘটনাও আছে বলিউডে।

ব্রহ্মাস্ত্রে রণবীর কাপুরের বিনা পারিশ্রমিকে কাজ করার খবর চাউর হলে অতীতের এমন সব ঘটনা তুলে এনেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

বিশ্বের বড় চলচ্চিত্র বাজার বলিউডে সিনেমার ভাবনা থেকে শুরু করে মুক্তি দেওয়া পর্যন্ত প্রতি ধাপে অভিনয়শিল্পী থেকে শুরু করে যারা যুক্ত আছেন, তাদের পেছনে ব্যয় হয় বিপুল অর্থ। ফলে ভালো কিছু নির্মাণে বিশাল বাজেট ছাড়া গতি নেই প্রযোজক-নির্মাতাদের। আর বলিউড তারকারা একটি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হন সিনেমার বাজেটের উপর নির্ভর করে।

তবে ৪১০ কোটি রুপি বাজেটের বলিউডের সবচেয়ে ব্যয়বহুল সিনেমা ব্রহ্মাস্ত্রে বিনা পারিশ্রমিকে রণবীর কাপুরের বিনা অর্থে কাজ করার খবরে অনেকে অবাক হলেও তিনি এই সিনেমা প্রযোজক হিসেবেও রয়েছেন। ফলে ব্যবসার লাভ তার ঘরেও উঠছে।

রণবীরের মতো বিনা পারিশ্রমিকে কাজ করা তারকাদের মধ্যে বলিউড শাহেনশা অমিতাভ বচ্চনও রয়েছেন। শহিদ কাপুর, দীপিকা পাড়ুকোন ও ফারহান আক্তারও এমন কিছু সিনেমায় কাজ করেছেন, যেগুলো ব্যবসাসফল হলেও তারা কোনো অর্থ নেননি।

হায়দারে শাহিদ কাপুর

শাহিদ কাপুর তার ক্যারিয়ারের সেরা অভিনয় করেছেন ‘হায়দার’ এ। শেকসপিয়ারের হ্যামলেটে গল্পকে উপজীব্য করে ২০১৫ সালে নির্মিত সিনেমাটি ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও জিতেছিল।

নির্মাতা বিশাল ভরদ্বাজ নিজেই জানান, শুধু শাহিদ নন, তিনি নিজেও এই সিনেমার জন্য কোনো পারিশ্রমিক নেননি।

তার ভাষ্যে, “সিনেমাটির পরিকল্পনার সময় শাহিদ এবং আমি দুজনেই ঠিক করেছিলাম, আমরা এমন কাজ করব, যাতে মুক্তির প্রথম দিন থেকেই সেটি আয়ের মুখ দেখে। কাশ্মিরে হায়দারের জন্য কিছু চিত্র ধারণের কাজ করতে গিয়ে খরচ বেড়ে যায়। তাই একসময় আমরা সিদ্ধান্ত নিই, আমরা দুজন সিনেমাটি থেকে কোন টাকা নেব না।”

ব্ল্যাকে অমিতাভ বচ্চন

২০০৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সঞ্জয় লীলা বনসালির ‘ব্ল্যাক’ সিনেমার মাধ্যমে অন্য এক অমিতাভ বচ্চনকে পেয়েছিল বলিউড। নায়ক হিসেব বাজার পড়ে যাওয়ায় কিছুদিন বিরতি দিয়েছিলেন বলিউড শাহেনশা। এরপর ফেরেন ব্ল্যাক দিয়ে, আর তাতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও জিতে নেন বিগ বি।

সিনেমাটি মুক্তির কয়েক বছর পর অমিতাভ লিখেছিলেন, “সঞ্জয়ের অন্য সব কাজ দেখার পর আমি ভীষণভাবে তার সাথে কাজ করতে চেয়েছিলাম। সুযোগটি যখন আসল তখন সেটি আর ফেলে রাখা যায়নি। সিনেমায় কাজের জন্য পারিশ্রমিকও নিইনি।”

অমিতাভ মনে করেছিলেন, এই ধরনের একটি উদ্যোগের অংশ হওয়াই যথেষ্ট পারিশ্রমিক ছিল।

ওম শান্তি ওমে দীপিকা পাড়ুকোন

২০০৭ সালে ‘ওম শান্তি ওম’ সিনেমায় শাহরুখ খানের বিপরীতে দেখা যায় আনকোরা দীপিকা পাড়ুকোনকে। তিনি স্পষ্টতই বুঝেছিলেন, কিং খানের হাত ধরে বলিউড যাত্রা শুরু করাটা অনেকটা মেঘ না চাইতেই বৃষ্টির মতো। তাই সিনেমার জন্য তিনি কোনো পারিশ্রমিক দাবি করেননি। ‘ওম শান্তি ওম’ সিনেমায় ‘শান্তি প্রিয়া’ চরিত্র করে ব্যাপক প্রশংসিত হন দীপিকা, আর তার ফল তো এখন দেখাই যাচ্ছে। এই সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় তারকার একজন তিনি।

ভাগ মিলখা ভাগে ফারহান আখতার

জাভেদ আখতারের ছেলে ফারহান আখতার সিনেমা পরিচালনা দিয়ে যাত্রা শুরু করলেও ‘ভাগ মিলখা ভাগ’ এ এসে হয়ে যান নায়ক।

ভারতের তারকা দৌড়বিদ মিলখা সিংয়ের জীবনীভিত্তিক এই সিনেমায় মাত্র ১১ রুপি পারিশ্রমিকে অভিনয় করেছিলেন তিনি।  

ব্রহ্মাস্ত্রে রণবীর কাপুর

ভারতে ব্যয়বহুল এবং সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে শুটিং চলা সিনেমাগুলোর একটি ‘ব্রহ্মাস্ত্র পার্ট ওয়ান : শিবা’। অয়ন মুখার্জির সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছে গত ৯ সেপ্টেম্বর। মুক্তির দ্বিতীয় সপ্তাহে প্রায় ২০০ কোটি রুটি আয় করে তাক লাগিয়ে দিয়েছে এই সিনেমা।

ব্রহ্মাস্ত্রের সফলতা নিয়ে যখন সবাই মাতামাতি করছে সে সময় নির্মাতা অয়ন মুখার্জি জানালেন, প্রধান অভিনেতা রণবীর কাপুরকে অভিনয়ের জন্য কোনো অর্থ দেননি তিনি। এজন্য ঋষিপুত্র রণবীরের কাছে কৃতজ্ঞতাও জানান তিনি।

সিনেমাটির অন্যতম প্রযোজক রণবীর বলছেন, ব্রহ্মাস্ত্রে কাজ করে তিনি যা পেয়েছেন তা টাকার হিসেবে মূল্যায়ন করা যাবে না।

এই সিনেমা দিয়েই আলিয়া ভাটের সঙ্গে প্রেম জমে ওঠে রণবীরের; আর পর্দা সঙ্গী আলিয়া এখন তার জীবনসঙ্গীও। দুজনে অচিরেই বাবা-মা হতে যাচ্ছেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক