আশা দেখাচ্ছে রেমিটেন্স, ২১ দিনে এল ১.৬৪ বিলিয়ন ডলার

চলতি জুলাইয়ের ২১ দিনেই আগের বছরের পুরো মাসের আয় ছাড়িয়ে গেছে।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 July 2022, 07:11 PM
Updated : 25 July 2022, 07:11 PM

অর্থবছরের প্রথম মাস শেষ হতে আরও কয়েকদিন হাতে থাকতেই প্রবাসী আয়ে সুখবর দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

চলতি জুলাইয়ের ২১ তারিখ পর্যন্ত দৈনিক গড়ে ৭ কোটি ৮৩ লাখ ডলার রেমিটেন্স এসেছে। এসময়ে দেশে ব্যাংকিং চ্যানেলে মোট ১.৬৪ বিলিয়ন ডলার পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা।

আগের মাস জুনে দৈনিক গড়ে ৬ কোটি ১২ লাখ ডলার এসেছিল। সে হিসাবে জুলাইতে দৈনিক প্রায় ১ কোটি ৭০ লাখ ডলার বেশি এসেছে।

নেতিবাচক প্রবৃদ্ধিতে আগের অর্থবছর শেষ করা রেমিটেন্সে যা আশা দেখাচ্ছে বলে মনে করছেন ব্যাংকাররা।

সোমবার কেন্দ্রীয় ব্যাংক রেমিটেন্সের হালনাগাদ প্রতিবেদন প্রকাশ করে। তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, চলতি জুলাইয়ের ২১ দিনেই আগের বছরের পুরো মাসের আয় ছাড়িয়ে গেছে। ২০২১ সালের জুলাইয়ে পুরো মাসজুড়ে রেমিটেন্স এসেছিল ১ দশমিক ৮৭ বিলিয়ন ডলার। সেসময় দৈনিক রেমিটেন্স এসেছিল ৬ কোটি ডলার।

গত ২০২১-২২ অর্থবছরে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্স আগের বছরের চেয়ে ৩ দশমিক ৭৫ বিলিয়ন ডলার কমে দাঁড়ায় ২ হাজার ১০৩ কোটি ডলার; প্রবৃদ্ধি হয় ঋণাত্বক ১৫.১২ শতাংশ। এর আগের ২০২০-২১ অর্থবছরে রেমিটেন্স এসেছিল ২ হাজার ৪৭৮ কোটি ডলার; প্রবৃদিধ ছিল ৩৬.১ শতাংশ।

রেমিটেন্স কমায় আমদানির বাড়তি মূল্য পরিশোধের চাপে দেশে ডলারের সরবরাহ সংকট দেখা দিয়েছে। দেশের বৈদেশিক বাণিজ্যে ব্যবহৃত প্রধান এ মুদ্রার দাম এ কারণে প্রতিনিয়ত বাড়ছে।

এমন প্রেক্ষাপটে রেমিটেন্স বাড়াতে নগদ প্রণোদনার হার ২ থেকে বাড়িয়ে আড়াই শতাংশ করাসহ একাধিক সুবিধার কথা ঘোষণা করে সরকার।

রেমিটেন্স পাঠাতে কাগজপত্রের বাধ্যবাধকতা তুলে দেওয়ার পাশাপাশি গত ২ জুলাই এক দিনে যেকোনো অঙ্কের অর্থ পাঠানোর সুযোগ দেওয়া হয়।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তারা আশা করেছিলেন কোরবানি ঈদের আগে প্রবাসীরা বেশি রেমিটেন্স পাঠাবেন। তবে ঈদের আগে তা না হলেও ঈদের পরের দিনগুলোতে প্রবাসীদের অর্থ পাঠানো বেড়েছে।

প্রবাসীদের কাছ থেকে ব্যাংকিং চ্যানেলে ৯৯ থেকে ১০০ টাকায় ডলার কিনছে ব্যাংকগুলো। আগের চেয়ে বেশি দর পাওয়া ও সুবিধা বাড়ানোতে ব্যাংকিং চ্যানেলে প্রবাসীরা রেমিটেন্স পাঠাতে আগ্রহী হচ্ছেন বলে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম।

গত ৩০ জুন মুদ্রানীতি ঘোষণার সময় কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানিয়েছিল, জনশক্তি রপ্তানি বাড়ায় ২০২২-২৩ অর্থবছরে রেমিটেন্সের আন্তঃপ্রবাহ ‘তাৎপর্যপূর্ণভাবে’ বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এবার রেমিটেন্সে ১৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ধরা হয়েছে ‍মুদ্রানীতিতে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক