আইরিশদের ফের হারিয়ে সিরিজ ভারতের

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ৩৩ রানের জয়ে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই সিরিজ জিতে নিল জাসপ্রিত বুমরাহর দল।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 August 2023, 06:24 PM
Updated : 20 August 2023, 06:24 PM

শুরুতে কিছুটা চাপে পড়া দলকে পথে রাখলেন রুতুরাজ গায়কোয়াড় ও সাঞ্জু স্যামসন। শক্ত ভিতে দাঁড়িয়ে শেষ দিকে ঝড় তুললেন রিঙ্কু সিং। বড় সংগ্রহ পেল ভারত। রান তাড়ায় অ্যান্ড্রু বালবার্নি চেষ্টা করলেন বটে, কিন্তু অন্যদের ব্যর্থতায় চ্যালেঞ্জও জানাতে পারল না আয়ারল্যান্ড। দারুণ জয়ে সিরিজ জিতে নিল সফরকারীরা।

ডাবলিনে রোববার দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ভারতের জয় ৩৩ রানে। ১৮৫ রানের পুঁজি নিয়ে আয়ারল্যান্ডকে তারা থামিয়ে দেয় ১৫২ রানে। তিন ম্যাচের সিরিজে প্রথম দুটিই জিতল জাসপ্রিত বুমরাহর দল।

১ ছক্কা ও ৬ চারে ৪৩ বলে ৫৮ রান করেন রুতুরাজ। স্যামসনের ২৬ বলে ৪০ রানের ইনিংসে ১ ছক্কার সঙ্গে ৫টি চার। ৩ ছক্কা ও ২ চারে ২১ বলে ৩৮ রান করে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতে নেন রিঙ্কু।

আয়ারল্যান্ডের ওপেনার বালবার্নি ৪ ছক্কা ও ৫ চারে ৫১ বলে ৭২ রান করেন। তিনি ছাড়া দলটির আর কেউ ৩০ স্পর্শ করতে পারেননি।

ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের শুরুটা অবশ্য ভালোই ছিল। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা ভারতের ইনিংসে পরপর দুই ওভারে আঘাত হানে তারা। ভালো কিছুর আভাস দেওয়া ইয়াশাসবি জয়সওয়ালের পর দ্রুত বিদায় নেন তিলাক ভার্মাও। দুই ব্যাটসম্যানই ছক্কার চেষ্টায় বাউন্ডারিতে ক্যাচ দেন।

৩৪ রানে ২ উইকেট হারানো দলকে এরপর টানেন রুতুরাজ ও স্যামসন। শুরুতে দেখেশুনে খেলতে থাকা দুই ব্যাটসম্যানই পরে দম দেন রানের চাকায়।

অষ্টম ওভারে ক্রেইগ ইয়াংকে টানা দুই চার মারেন রুতুরাজ। একাদশ ওভারে জশ লিটলের ওপর ঝড় বইয়ে দেন স্যামসন; তিন চারের সঙ্গে মারেন এক ছক্কা।

দুইজনের ৪৯ বলে ৭১ রানের জুটি ভাঙে স্যামসনের বিদায়ে। লেগ স্পিনার বেন হোয়াইটের অফ স্টাম্পের অনেক বাইরের বল স্টাম্পে টেনে আনেন মিডল অর্ডার এই ব্যাটসম্যান।

হোয়াইটের পরের ওভারে চার মেরে ৩৯ বলে ফিফটি স্পর্শ করেন রুতুরাজ। এক বল পর মারেন ছক্কা। ম্যাককার্থির স্লোয়ারে ক্যাচ দিয়ে থামেন তিনি।

শেষ দিকে দ্রুত রান তোলার কাজ দারুণভাবে করেন রিংকু ও শিভাম দুবে। তাদের জুটিতে ৫৫ রান আসে স্রেফ ২৮ বলে।

১৯তম ওভারে ম্যাককার্থিকে ১ চার ও ২ ছক্কায় ওড়ান রিংকু। শেষ ওভারে মার্ক অ্যাডায়ারকে দুই ছক্কায় ওড়ান দুবে, রিংকুও মারেন একটি। আরেকটি ছক্কার চেষ্টায় ফাইন লেগে ধরা পড়েন রিংকু। ২ ছক্কায় ২২ রানে অপরাজিত থাকেন দুবে।

লক্ষ্য তাড়ায় আইরিশদের শুরুটা হয় ভীষণ বাজে। প্রাসিধ কৃষ্ণার করা তৃতীয় ওভারে পল স্টার্লিং ও লর্কান টাকারকে হারায় তারা। দুইজনের কেউই খুলতে পারেননি রানের খাতা। লেগ স্পিনার রাভি বিষ্ণইয়ের গুগলিতে বোল্ড হন হ্যারি টেক্টর।

২৮ রানে ৩ উইকেট হারানো দলকে কক্ষপথে ফেরানোর চেষ্টা করেন বালবার্নি ও কার্টিস ক্যাম্পার। তাদের ৩৫ রানের জুটি ভাঙেন বিষ্ণই। তাকে রিভার্স খেলে দুবের হাতে সহজ ক্যাচ দেন ক্যাম্পার।

সতীর্থদের আসা যাওয়ার মাঝে এক প্রান্ত আগলে রেখে রানের চাকা সচল রাখেন বালবার্নি। আর্শদিপ সিং, ওয়াশিংটন সুন্দারকে ওভারে দুটি করে চার মারা এই ওপেনার দুবেকে তিন বলের মধ্যে ওড়ান ২ ছক্কায়।

৩৯ বলে পঞ্চাশে পা রাখেন বালবার্নি। একটু পর জীবন পান তিনি। ৫৩ রানে ডিপ মিডউইকেটে তার সহজ ক্যাচ ছাড়েন রুতুরাজ।

জর্জ ডকরেলকে নিয়ে ৩০ বল স্থায়ী ৫২ রানের জুটি গড়েন বালবার্নি। যেখানে ডকরেলের অবদান স্রেফ ১৩।

এই দুইজন ক্রিজে যতক্ষণ ছিলেন, আয়ারল্যান্ডের সম্ভাবনা অল্প হলেও টিকে ছিল। কিন্তু ডকরেল ফেরার পরের ওভারে বিদায় নেন বালবার্নিও। আর্শদিপকে ছক্কা মারার পরের বলেই কিপারের গ্লাভসে ধরা পড়েন তিনি। সেই সঙ্গে বলা যায় শেষ হয়ে যায় আইরিশদের আশা।

এরপর মার্ক অ্যাডায়ারের ৩ ছক্কায় ১৫ বলে ২৩ রানের ইনিংসে কেবল হারের ব্যবধানই কমায়।

আগামী বুধবার সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি হবে দুই দল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত: ২০ ওভারে ১৮৫/৫ (জয়সওয়াল ১৮, রুতুরাজ ৫৮, তিলাক ১, স্যামসন ৪০, রিংকু ৩৮, দুবে ২২*, ওয়াশিংটন ০*; অ্যাডায়ার ৪-০-৩৬-১, লিটল ৪-০-৪৮-০, ম্যাককার্থি ৪-০-৩৬-২, ইয়াং ৪-০-২৯-১, হোয়াইট ৪-০-৩৩-১)

আয়ারল্যান্ড: ২০ ওভারে ১৫২/৮ (বালবার্নি ৭২, স্টার্লিং ০, টাকার ০, টেকট্র ৭, ক্যাম্পার ১৮, ডকরেল ১৩, অ্যাডায়ার ২৩, ম্যাককার্থি ২, ইয়াং ১*, লিটল ০*; বুমরাহ ৪-১-১৫-২, আর্শদিপ ৪-০-২৯-১, কৃষ্ণা ৪-০-২৯-২, বিষ্ণই ৪-০-৩৭-২, ওয়াশিংটন ২-০-১৯-০, দুবে ২-০-১৮-০)

ফল: ভারত ৩৩ রানে জয়ী

ম্যান অব ম্যাচ: রিঙ্কু সিং

সিরিজ: ৩ ম্যাচের সিরিজে ভারত ২-০ তে এগিয়ে