কিষানকে নিয়ে ধোঁয়াশা, দ্রাবিড় বললেন ‘সিদ্ধান্ত তারই’

মাঠের বাইরে থাকা প্রতিভাবান এই ক্রিকেটারকে নিয়ে নানারকম গুঞ্জন ছড়ালেও তার ফেরার পথ দেখালেন ভারতের কোচ।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 Feb 2024, 04:46 AM
Updated : 6 Feb 2024, 04:46 AM

উইকেটের পেছনে মোটামুটি ভালো করলেও শ্রিকার ভারত ধুঁকছেন উইকেটের সামনে। ব্যাট হাতে একদমই ভালো করতে পারছেন না ভারতের কিপার-ব্যাটসম্যান। ইশান কিষানের বাইরে থাকা নিয়ে প্রশ্নগুলিও তাই উচ্চকিত হচ্ছে। তাকে নিয়ে নানারকম গুঞ্জনও ছড়াচ্ছে। তবে আরও একবার প্রতিভাবান এই কিপার-ব্যাটসম্যানের দলে ফেরার পথ দেখালেন ভারতের কোচ রাহুল দ্রাবিড়।

গত নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দেশের মাঠে টি-টোয়েন্টি সিরিজের পর কোনো ধরনের ক্রিকেটে আর দেখা যায়নি কিষানকে। ডিসেম্বরে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে তিনি ছিলেন। কিন্তু মাঠে নামার সুযোগ পাননি সীমিত ওভারের সিরিজে। টেস্ট স্কোয়াডেও তিনি ছিলেন। কিন্তু ব্যক্তিগত কারণে বিরতি নিয়ে তিনি দেশে ফিরে যান।

তখন ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছিল, মানসিক অবসাদের কারণে বিরতি নিয়েছেন কিষান। কিন্তু এরপর এই ধরনের খবরই বের হয় কিছু সংবাদমাধ্যমে যে, দুবাইয়ে পার্টি করে বেড়াচ্ছেন তিনি, নানা অনুষ্ঠানে যোগ দিচ্ছেন। সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক মাহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গেও একটি অনুষ্ঠানে তাকে দেখা যায়।

এরপর নানারকম গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে যে, তার ওপর চটেছে ভারতীয় বোর্ড ও ম্যানেজমেন্ট। তাকে আপাতত দলে বিবেচন করা হবে না, অন্তত এক বছর বিবেচনা করা হবে না, এরকম খবরও হয়েছে কিছু সংবাদমাধ্যমে। সব মিলিয়ে দারুণ প্রতিভাবান এই কিপার-ব্যাটসম্যানকে নিয়ে ধোঁয়াশা চলছেই।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চলতি সিরিজে শ্রিকার ভারত ব্যাট হাতে ভালো করতে না পারায় কিষানকে নিয়ে কৌতূহলও বাড়ছে। বিকল্প কিপার-ব্যাটসম্যান হিসেবে এই সিরিজে স্কোয়াডে আছেন ধ্রুব জুরেল। অথচ গত বছর শ্রিকার ভারতের বদলেই ওয়েস্ট ইন্ডিজে টেস্ট সিরিজে সুযোগ পেয়ে দুটি টেস্ট খেলেছিলেন কিষান।

দ্রাবিড় কিছুদিন আগে বলেছিলেন, কিষানকে দলে ফিরতে হলে ক্রিকেট খেলেই ফিরতে হবে। তার সেই মন্তব্য নিয়েও বিভ্রান্তি ছড়ায়। বিসাখাপাত্নাম টেস্ট শেষে সেটি আবার পরিষ্কার করে বললেন ভারতের কোচ।

“যে কারও জন্য এবং সবার জন্যই ফেরার উপায় আছে। কাউকেই আমরা কোনো কিছু থেকে একেবারে বাইরে রাখি না। ইশান কিষানের ব্যাপারটি নিয়ে বেশি ঘাটাঘাটি করতে চাই না। যতটা সম্ভব ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করেছি আগেও। সে নিজে থেকে বিরতি চেয়ে, আমরা দিয়েছি তা।”

“যখনই সে নিজেকে প্রস্তুত মনে করে (সেটা জানাতে পারে)… আমি বলিনি যে তাকে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলে ফিরতে হবে। আমি বলেছিলাম যে, সে যখনই প্রস্তুত, তখন তাকে কিছু একটা খেলে, কোথাও না কোথাও ক্রিকেট খেলে ফিরতে হবে। সিদ্ধান্ত তারই।”

দ্রাবিড় স্পষ্টই বলে দিলেন, মাঠে ফিরতে তারা কিষানকে কোনোরকম জোর করবেন না।

“আমরা তাকে কোনো কিছু করতেই বাধ্য করছি না। তার সঙ্গে যোগাযোগও আছে আমাদের। এমন নয় যে যোগাযোগ নেই। আমরা জানি বাস্তবতা। তবে সে তো এখনও খেলা শুরু করেনি, তাই না? কাজেই এই মুহূর্তে, তাকে আমরা বিবেচনা করতে পারি না। কারণ, আমরা তো জানি না… হতে পারে, সে এখনও প্রস্তুত নয়।”

“তাকেই ঠিক করতে হবে, কখন সে প্রস্তুত এবং সে যদি মাঠে ফেরে, আমাদের জন্যই বিকল্প বাড়বে। কারণ রিশাভ চোটে পড়েছে এবং সবকিছু মিলিয়ে, নির্বাচকরা তো সব বিকল্পই বাজিয়ে দেখবেন।”