ছিটকে গেলেন আলিস, ডাক পেলেন জাকের

প্রায় এক বছর পর আবার জাতীয় দলে সুযোগ পেলেন বিপিএলে পাওয়ার হিটিংয়ের সামর্থ্য দেখানো জাকের আলি।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 March 2024, 12:26 PM
Updated : 2 March 2024, 12:26 PM

শুরুর আগেই ধাক্কা লাগল আলিস আল ইসলামের জাতীয় দলের অধ্যায়ে। আঙুলের চোটে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ শুরুর আগেই ছিটকে গেলেন রহস্য স্পিনার। তার চোটে কপাল খুলল জাকের আলির। আরও একবার দলে ডাক পেলেন কিপার-ব্যাটসম্যান।

বিসিবি শনিবার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে এই পরিবর্তনের খবর জানিয়েছে। ছিটকে যাওয়া ও সুযোগ পাওয়া, দুজনই সদ্য সমাপ্ত বিপিএলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের জার্সিতে ভালো করেছেন।

গত বছর আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে প্রথম জাতীয় দলে ডাক পান জাকের। কোনো ম্যাচ না খেলেই সেবার বাদ পড়েন তিনি। পরে অক্টোবরে এশিয়ান গেমস ক্রিকেটে আন্তর্জাতিক অভিষেক হয় জাকেরের। তবে ওয়ানডে বিশ্বকাপ চলায় ওই টুর্নামেন্টে কোনো দেশই তাদের মূল দল খেলায়নি।

এবার বিপিএলে পাওয়ার হিটিংয়ের সামর্থ্য দেখিয়ে ফের দলে এলেন ২৬ বছর বয়সী কিপার-ব্যাটসম্যান। 

বিপিএলে আলো ছড়িয়েছেন জাকেরের সতীর্থ আলিসও। প্রায় ৪ বছর পর ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে ফিরে বৈচিত্রের পসরা সাজিয়ে বেশ কিছু ম্যাচে প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানদের কঠিন পরীক্ষা নিয়েছেন ২৭ বছর বয়সী স্পিনার। 

ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে তেমন কিছু করতে পারেননি আলিস। তবে সিলেট স্ট্রাইকার্সের সঙ্গে ফের সুযোগ পেয়ে স্রেফ ১৭ রানে নেন ৪ উইকেট। সেদিন নাজমুল হোসেন শান্ত, ইয়াসির আলিদের সামনে নিজের বৈচিত্রের ঝুলি খুলে দেন আলিস।

পরে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে ৪ ওভারে এক মেডেনসহ স্রেফ ১৪ রানে ২ উইকেট নেন আলিস। সব মিলিয়ে সুযোগ পাওয়া ৮ ম্যাচে ৯ উইকেট নেন কুমিল্লার রহস্য স্পিনার। ওভারপ্রতি খরচ করেন সাতের একটু বেশি রান।

টি-টোয়েন্টিতে বৈচিত্র ও রহস্যময় বোলিংয়ের কারণেই শ্রীলঙ্কা সিরিজের দলে সুযোগ পান আলিস। কিন্তু বিপিএলের মাঝে কুমিল্লার হয়ে অনুশীলনের সময় আঙুলের চোটে ধাক্কা লাগল তার আন্তর্জাতিক অভিষেকের স্বপ্নে।

বিসিবির বিবৃতিতে জাতীয় দলের ফিজিও বায়েজিদুল ইসলাম জানিয়েছেন, ফিরতে বেশ কিছু দিন সময় লেগে যাবে আলিসের।

“আলিসের এমআরআই করা হয়েছিল। ডান হাতের মাঝের আঙুলের জয়েন্ট লিগামেন্ট মোচকানো ও ফোলা দেখা গেছে। তার সুস্থ হতে ২ থেকে ৩ সপ্তাহ সময় লেগে যাবে। যা তাকে সিরিজ থেকে ছিটকে দিয়েছে।”

একই বিবৃতিতে বোলারের বদলি হিসেবে অন্য কোনো বোলার না নিয়ে কিপার-ব্যাটসম্যান নেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করেন জাতীয় দলের নতুন প্রধান নির্বাচক গাজী আশরাফ হোসেন। 

“আলিস ছাড়াও স্কোয়াডে রিশাদ হোসেন, তাইজুল ইসলাম ও শেখ মেহেদি হাসানের মতো তিন জন স্বীকৃত স্পিনার আছে। তাই আলিসের বদলে আরেকজন স্পিনার না নিয়ে আমাদের মনে হয়েছে জাকের আলিকে নিলে দলের ভারসাম্য আরও ভালো হবে। যে কিনা মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান কিংবা ফিনিশার হিসেবে খেলতে পারে।”

এবারের বিপিএলে কুমিল্লার হয়ে ফিনিশার হয়েই বেশিরভাগ ম্যাচ খেলেছেন জাকের। রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে হেরে যাওয়া ম্যাচে স্রেফ ৪ বলে ১৮ রান করে হিটিংয়ের সামর্থ্য দেখান তিনি। 

পরের ম্যাচে খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে জাকের ৮ বলে করেন ১৮ রান। একই দলের বিপক্ষে ফিরতি ম্যাচে পাঁচ নম্বরে সুযোগ পান তিনি। তাওহিদ হৃদয়ের সঙ্গে ৮৪ রানের দারুণ জুটিতে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন জাকের। সেদিন ৩১ বলে ৪০ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি।

ততদিনে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের দল ঘোষণা করে ফেলে বিসিবি। যেখানে ছিলেন না জাকের। তাই খুলনার বিপক্ষে ম্যাচের পর সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচকদের বিবেচনাবোধ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের প্রধান কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন। গায়ের রঙ কালো বলে জাকেরকে বিবেচনা করা হয় না বলেও শ্লেষ ফুটে ওঠে তার কণ্ঠে। 

এর এক ম্যাচ পর যেন নিজের সেরাটা খেলেন জাকের। ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে প্রথম পর্বের শেষ ম্যাচে বাকিদের ব্যর্থতার ভিড়ে ঝড় তোলেন তিনি। ২ চার ও ৪ ছক্কায় স্রেফ ১৬ বলে সেদিন ৩৮ রান করেন ২৬ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান। 

বরিশালের বিপক্ষে ফাইনালে অবশ্য ঝড় তুলতে পারেননি তিনি। সাত নম্বরে নেমে ২০ রান করতে তিনি খেলেন ২৩ বল। তবে সব মিলিয়ে ১৪১.১৩ স্ট্রাইক রেটে ১৯৯ রান করে আরও একবার জাতীয় দলের জার্সি গায়ে জড়ানোর সুযোগ পেয়ে গেলেন জাকের। 

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আগামী সোমবার শুরু হবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। 

বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দল: নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), লিটন কুমার দাস, এনামুল হক, মোহাম্মদ নাঈম শেখ, তাওহিদ হৃদয়, সৌম্য সরকার, শেখ মেহেদি হাসান, মাহমুদউল্লাহ, জাকের আলি, তাইজুল ইসলাম, রিশাদ হোসেন, তাসকিন আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলাম ও তানজিম হাসান।