রাতে দলে যোগ দিয়ে দুপুরে মইনের বাজিমাত

ব্যাটিংয়ে ঝড়ো ফিফটির পর বল হাতে হ্যাটট্রিক করে বিপিএলে প্রথম ম্যাচ রাঙালেন ইংলিশ অলরাউন্ডার।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 Feb 2024, 12:34 PM
Updated : 13 Feb 2024, 12:34 PM

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের জয় তখন দূরের বাতিঘর। মইন আলির হ্যাটট্রিক বলের সামনে বিলাল খান। ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে মারতে গেলেন ব্যাটসম্যান। বল তার প্যাড ছুঁয়ে আঘাত করল স্টাম্পে। ম্যাচ জিতল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স আর আসরে প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমে মইনের হাতে ধরা দিল দারুণ এক অর্জন। 

বোলিংয়ে হ্যাটট্রিকের আগে মইন খেলেন ৫৩ রানের ঝড়ো ইনিংস। অলরাউন্ড নৈপুণ্যে বিপিএলের চলতি আসরে নিজের প্রথম ম্যাচ রাঙালেন ইংলিশ তারকা। উইল জ্যাকসের সেঞ্চুরি ও রেকর্ড পাঁচ ক্যাচের দিনে কুমিল্লার জয়ের বড় কারিগর মইনও। 

দক্ষিণ আফ্রিকার এসএ টি-টোয়েন্টি শেষ করে সোমবার রাতেই কেবল চট্টগ্রামে দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন মইন। পরদিন দুপুরে মাঠে নেমে আরও একবার ব্যাটিং-বোলিংয়ে নিজের সামর্থ্যের প্রদর্শনী মেলে ধরেন অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার। 

লিটন দাসের ঝড় ও জ্যাকসের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে মইনের জন্য মঞ্চ সাজানো ছিল ঝড়ো ফিনিশিংয়ের। দ্বাদশ ওভারে ক্রিজে গিয়ে তা দারুণভাবেই করেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। তৃতীয় বলে সৈকত আলিকে চার মেরে রানের খাতা খোলেন তিনি। 

আল আমিনের বলে মারেন প্রথম ছক্কা। পরে বিলালের বলে মারেন আরও তিন ছক্কা। দুই বোলারের ওভারেই অবশ্য একবার করে জীবন পান মইন। ২৯ ও ৩৮ রানে বেঁচে যাওয়ার পর অপরাজিত ইনিংসেই মাঠ ছাড়েন তিনি।

শেষ ওভারে শহিদুল ইসলামের বলে ছক্কা মেরে স্রেফ ২৩ বলে তিনি পূর্ণ করেন পঞ্চাশ। ২৪ বলের ইনিংসে ২ চারের সঙ্গে তার ব্যাট থেকে আসে ৫টি ছক্কা। জ্যাকসের সঙ্গে চতুর্থ উইকেটে অবিচ্ছিন্ন জুটিতে যোগ করেন ৫৩ বলে ১২৮ রান।

২৩৯ রানের পুঁজি নিয়ে মইনের হাতেই প্রথম ওভার তুলে দেন লিটন। পাওয়ার প্লেতে করা দুই ওভারে মইন দেন স্রেফ ১৩ রান। পঞ্চদশ ওভারে ফের আক্রমণে এসে ঝড় তোলা সৈকত আলিকে ফেরান তিনি। 

পরে সপ্তদশ ওভারে তিনি করেন প্রায় দেড় যুগের টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের প্রথম হ্যাটট্রিক। প্রথম বলে ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে মারতে গিয়ে স্টাম্পড হন শহিদুল। ছক্কা মারার চেষ্টায় লং অনে ক্যাচ দেন আল আমিন। আর হ্যাটট্রিক বলে বোল্ড বিলাল।