‘বিশ্বকাপে প্রথম রাউন্ডেই বাদ পড়তে পারে পাকিস্তান’

বিশ্বকাপের জন্য পাকিস্তানের দল সাজানো পছন্দ হয়নি সাবেক ফাস্ট বোলার শোয়েব আখতারের।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 17 Sept 2022, 10:33 AM
Updated : 17 Sept 2022, 10:33 AM

সাম্প্রতিক সময়ে পাকিস্তান দলের পারফরম্যান্স খারাপ নয়। কদিন আগে হয়ে যাওয়া এশিয়া কাপের ফাইনাল খেলেছে তারা। তারপরও আসছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে উত্তরসূরিদের তেমন সম্ভাবনা দেখছেন না দেশটির সাবেক তারকা পেসার শোয়েব আখতার। আশঙ্কা করছেন, সুপার টুয়েলভ রাউন্ড থেকেই বাদ পড়ে যেতে পারে বাবর আজমের দল।

কারণটা পরিষ্কার। অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় বৈশ্বিক আসরের জন্য ঘোষিত পাকিস্তান দলের ওপর আস্থা রাখতে পারছেন না শোয়েব। মিডল অর্ডারে পরিবর্তন না আনায় সমালোচনা করেছেন তিনি প্রধান নির্বাচক মোহাম্মদ ওয়াসিম ও প্রধান কোচ সাকলাইন মুশতাকের।

পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইন আপের দুর্বল মিডল অর্ডার নিয়ে আলোচনা দেশটির ক্রিকেটে অনেক দিনের। এশিয়া কাপের ফাইনালে ওঠার পথে এবং শিরোপা লড়াইয়ে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হেরে যাওয়া ম্যাচেও দলটির মাঝের ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার দৃশ্য বারবার ফুটে উঠেছে।

বিশ্বকাপের দল গড়ার সময়ও সেসব জায়গা অপরিবর্তিত রেখেছেন দলটির নির্বাচকরা। এজন্য নিজের ইউটিউব চ্যানেলে শুক্রবার ক্ষোভ উগড়ে দেন শোয়েব।

“এটা কেমন দল নির্বাচন? তারা বলেছিল, আমরা এমন একটি সিদ্ধান্ত নেব যা সবার পছন্দ হবে। কিন্তু তারা মিডল অর্ডারে পরিবর্তন না করার মতো ভয়ঙ্কর একটি সিদ্ধান্ত নিল। সমস্যাটা ছিল মিডল অর্ডারে, কিন্তু নির্বাচকরা তা উপেক্ষা করল এবং সেখানে কোনো পরিবর্তনই আনল না।”

এক সময়ের সতীর্থ ও পাকিস্তানের স্পিন গ্রেট সাকলাইনকেও ছেড়ে কথা বলেননি শোয়েব। তার মতে, টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট সম্পর্কে তেমন কোনো ধারণাই নেই দলটির প্রধান কোচের।

“প্রধান নির্বাচক যখন সাধারণ মানের, সিদ্ধান্তও তো নেওয়া হবে সেরকমই। সাকলাইন (মুশতাক) ২০০২ সালে সবশেষ ক্রিকেট খেলেছে। সে আমার বন্ধু, তাই তাকে এটা বলতে চাই না, তবে আমার মনে হয় না টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট সম্পর্কে তার কোনো ধারণা আছে। আমি মনে করি না, এটা তোমার শক্তির জায়গা।”

“মোহাম্মদ ইউসুফ আছে দলের সঙ্গে। সে থাকা সত্ত্বেও আমাদের ব্যাটিং কীভাবে পারফর্ম করে না? ড্রেসিং রুমে ইউসুফ একটা সম্পদ, তবে এই দলে তার কর্তৃত্ব কতটা আমি জানি না।”

টি-টোয়েন্টিতে মোহাম্মদ রিজওয়ান ও বাবর আজমের উদ্বোধনী জুটি সফল হলেও তাদের রান তোলার গতি নিয়ে আছে আলোচনা-সমালোচনা। এই জায়গায় পরিবর্তন এনে ফখর জামানকে ওপেনিংয়ে খেলানোর কথা আবারও বললেন শোয়েব।

সাম্প্রতিক ফর্ম খারাপ হলেও অস্ট্রেলিয়ার কন্ডিশনে দলকে ভালো শুরু এনে দিতে পারবেন ফখর, বিশ্বাস শোয়েবের। কিন্তু বিশ্বকাপ দলেই তো নেই বাঁহাতি এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। দল ঘোষণার সময় জানানো হয়, চোটের কারণে বিবেচনায় রাখা হয়নি তাকে। রিজার্ভ হিসেবে অবশ্য আছেন তিনি।

সব কিছু মিলিয়ে, এই দল নিয়ে আশার ছবি আঁকতে পারছেন না শোয়েব। বললেন, প্রথম ধাপেই শেষ হয়ে যেতে পারে পাকিস্তানের বিশ্বকাপ অভিযান। 

“আমি অনেকবার বলেছি, ফখর জামানকে (প্রথম) ৬ ওভার খেলতে দিন, যেহেতু অস্ট্রেলিয়ান কন্ডিশন তার জন্য উপযুক্ত হবে। বাবরকে ওপেনিংয়েই রাখুন। ইফতিখার আহমেদ দ্বিতীয় মিসবাহ। আমাদের রিজওয়ান আছে এবং তাকে সঙ্গ দেওয়ার জন্য এখন আছে ইফতিখার।”

“এই দল নিয়ে, প্রথম রাউন্ডেই আমরা বাদ পড়তে পারি। আমাদের ব্যাটিং বিভাগের গভীরতা নিয়ে আমি শঙ্কিত। আমাদের অধিনায়কও এই সংস্করণের জন্য উপযুক্ত নয়, কারণ সে সবসময়ই ক্ল্যাসিক কাভার ড্রাইভ খেলতে মুখিয়ে থাকে। সে নিজেকে ক্ল্যাসিক দেখাতে চায়।”

সরাসরি সুপার টুয়েলভে জায়গা করে নেওয়া পাকিস্তান আছে গ্রুপ-২ এ। সেখানে তাদের সঙ্গী বাংলাদেশ, ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং প্রাথমিক পর্ব পেরিয়ে আসা দুই দল।

আগামী ২৩ অক্টোবর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে পাকিস্তানের বিশ্বকাপ অভিযান।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক