মুস্তাফিজ না খেললে চেন্নাইয়ের একাদশে কে

স্পিনার বেছে নিলে সুযোগ মিলতে পারে শ্রীলঙ্কান মাহিশ থিকশানা কিংবা ইংল্যান্ডের মইন আলির।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 April 2024, 11:04 AM
Updated : 3 April 2024, 11:04 AM

আইপিএলের চলতি আসরে এখন পর্যন্ত চেন্নাই সুপার কিংসের খেলা তিনটি ম্যাচেই একাদশে ছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। সেই ধারাবাহিকতায় এবার পড়তে পারে ছেদ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভিসা প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে দেশে ফেরা বাঁহাতি এই পেসারের পরের ম্যাচ খেলা নিয়ে জেগেছে শঙ্কা। 

আগামী জুনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও যুক্তরাষ্ট্রে শুরু হবে টি-টোয়েন্টির বৈশ্বিক আসর। ওই টুর্নামেন্টে অংশ নিতে ভিসা প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে গতরাতেই দেশে ফিরেছেন মুস্তাফিজ। 

চেন্নাইয়ের পরের ম্যাচ আগামী শুক্রবার দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে হায়দরাবাদে। এর আগেই দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে অভিজ্ঞ এই পেসারের। তারপরও তার খেলা নিয়ে কিছুটা সংশয় থাকায় একাদশে কে সুযোগ পাবেন, আলোচনা চলছে সেটা নিয়ে। 

সুযোগ পাওয়ার দৌড়ে আছেন মাহিশ থিকশানা। আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে খেলেন তিনি। ওই ম্যাচে ৩৬ রান দিয়ে কোনো উইকেট না পাওয়া শ্রীলঙ্কার রহস্য স্পিনারকে ফেরাতে পারে চেন্নাই। 

আসরে প্রথমবারের মতো খেলার সুযোগ মিলতে পারে মইন আলিরও। ইংলিশ এই অভিজ্ঞ স্পিনিং অলরাউন্ডার গত আসরে চেন্নাইয়ের জার্সিতে খেলেন ১৫ ম্যাচ খেলেন। ১২৪ রান করার পাশাপাশি বল হাতে নেন ৯ উইকেট। 

মুস্তাফিজের বদলে আরেকজন পেসার খেলাতে চাইলে চেন্নাইকে যেতে হবে স্থানীয় ক্রিকেটারদের দিকে। কারণ তাদের দলে বিদেশি বিশেষজ্ঞ পেসারই কেবল দুইজন, মুস্তাফিজ ও মাথিশা পাথিরানা। ‘বেবি মালিঙ্গা’ নামেও পরিচিত পাথিরানা একাদশে নিয়মিতদের একজন। 

এক্ষেত্রে একাদশে সুযোগ পেতে পারেন মুকেশ চৌধুরি। ২০২২ সালের ডিসেম্বরের পর কয়েকটি চোটের কারণে এখনও কোনো প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ খেলতে পারেননি বাঁহাতি এই পেসার। ওই বছরই প্রথমবার আইপিএলে সুযোগ পেয়ে আলো ছড়ান মুকেশ। ১৩ ম্যাচ খেলে নেন ১৬ উইকেট। এখন পর্যন্ত ২৭টি স্বীকৃত টি-টোয়েন্টি খেলা মুকেশের উইকেট ৩২টি। 

এছাড়া চেন্নাইয়ের স্কোয়াডে আছেন শার্দুল ঠাকুরও। ভারতীয় অভিজ্ঞ এই পেসার ১৫০ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নিয়েছেন ১৬৯ উইকেট, যেখানে আইপিএলে তার শিকার ৮৬ ম্যাচে ৮৯টি। 

তবে মুস্তাফিজকেই একাদশে পেতে চাওয়ার কথা চেন্নাইয়ের। কারণ, বল হাতে সময়টা ভালোই কাটছে তার। আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে ২৯ রানে ৪ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরাও হয়েছেন তিনি। এখন পর্যন্ত ৩ ম্যাচে ওভারপ্রতি নয়ের কাছাকাছি রান দিয়ে নিয়েছেন ৭ উইকেট; আসরে এখন পর্যন্ত যা সর্বোচ্চ। 

এছাড়া ডেথ বোলিংয়ে পাথিরানার সঙ্গে মুস্তাফিজের জুটি বেশ জমে উঠেছে। সেটা মাথার রেখেও এই পেসারকে দলে দ্রুতই চাইবে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা।