টেইলরের শতকে পাকিস্তানের সামনে কঠিন লক্ষ্য

রস টেইলরের অপরাজিত শতকে হ্যামিল্টন টেস্টে পাকিস্তানকে বড় লক্ষ্য দিয়েছে নিউ জিল্যান্ড। সমতায় সিরিজ শেষ করতে দ্বিতীয় টেস্টের পঞ্চম ও শেষ দিন আরও ৩৬৮ রান চাই অতিথিদের।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 Nov 2016, 06:35 AM
Updated : 28 Nov 2016, 08:45 AM

বাঁ চোখের সমস্যার জন্য এই টেস্টে খেলারই কথা ছিল না টেইলরের। রানের জন্যওসংগ্রাম করতে হচ্ছিল এই মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যানকে। ভারত সফরে ১৪.৮৩ গড়ে রান করেনতিনি। দক্ষিণ আফ্রিকায় আগের সিরিজ কেটেছে আরও বাজে। তিন ইনিংসে করেছেন মোটে ৩ রান।

পাকিস্তানের বিপক্ষে আগের দুই ইনিংসেও খুব একটা ভালো করেননি। প্রথম টেস্টে১১ রান করার পর হ্যামিল্টনে প্রথম ইনিংসে ৩৭। এবার ১৩৪ বলে ১৬ চারে অপরাজিত ১০২রানের দারুণ ইনিংসে সব চাপ পেছনে ফেলেছেন টেইলর। নিউ জিল্যান্ডের হয়ে মার্টিনক্রোর সর্বোচ্চ ১৭ শতকের রেকর্ড স্পর্শ করতে আর একটি তিন অঙ্কের স্কোর চাইতার। 

সেডন পার্কে চতুর্থ দিনের খেলা শেষে পাকিস্তানের সংগ্রহ কোনো উইকেট নাহারিয়ে ১ রান। ৩ ওভার বল করে আজহার আলি ও সামি আসলামকে বিচ্ছিন্ন করতে পারেননি অতিথিরা।

এর আগে সোমবার বিনা উইকেটে শূন্য রান নিয়ে দিনের খেলা শুরু করে নিউজিল্যান্ড। সকালেই জিত রাভালকে হারায় স্বাগতিকরা। অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের সঙ্গেটম ল্যাথামের ৯৬ রানের জুটিতে ধাক্কা সামাল দেয় নিউ জিল্যান্ড।

ইমরান খানের বলে সরফরাজ আহমেদকে ক্যাচ দিয়ে শেষ হয় উইলিয়ামসন ৪২ রানেরইনিংস। শতকের পথে এগিয়ে যাওয়া ল্যাথামকে থামান ওয়াহাব রিয়াজ। ১৫০ বলে ১২ চারে ৮০রান আসে ল্যাথামের ব্যাট থেকে।

১১ ইনিংস ধরে অর্ধশতক না পাওয়া টেইলর এদিন খেলেছেন দারুণ এক ইনিংস।ল্যাথামের সঙ্গে ৫২ রানের জুটির পর ম্যাট নিকোলসের সঙ্গে ৬০ রানের আরেকটি ভালোজুটি গড়েন তিনি। টি-টোয়েন্টি মেজাজে ব্যাট করা কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ২১ বলে ৬ চারেফিরেন ৩২ রান করে।

উইকেটরক্ষক বিজে ওয়াটলিংয়ের সঙ্গে অবিচ্ছিন্ন ষষ্ঠ উইকেটে ৫৯ রানের জুটিতেদলের সংগ্রহ তিনশ’ ছাড়ান টেইলর। তিনি ষোড়শ শতক স্পর্শকরার পরপরই ৫ উইকেটে ৩১৩ রানে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করেন অধিনায়ক উইলিয়ামসন।

প্রথম ইনিংসে ৫৫ রানে পিছিয়ে থাকায় পাকিস্তানের লক্ষ্য দাঁড়ায় ৩৬৯ রান।

চতুর্থ দিন শেষ বেলায় দুয়েকটি উইকেট চেয়েছিলেন অধিনায়ক। কিন্তু আজহার-সামিনিরাপদেই সময়টুকু কাটিয়ে দেন। তবে পেস সহায়ক উইকেটে পঞ্চম দিন কঠিন পরীক্ষা দিতেহবে অতিথি ব্যাটসম্যানদের।

জিততে রেকর্ড গড়তে হবে পাকিস্তানকে। নিউ জিল্যান্ডের মাটিতে সর্বোচ্চলক্ষ্য তাড়ার রেকর্ড ৩৪৫ রানের। ১৯৬৮-৬৯ সালে। অকল্যান্ডে এই কৃতিত্ব দেখিয়েছিলগ্যারি সোবার্সের ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

চতুর্থ ইনিংসে পাকিস্তানের সর্বোচ্চ লক্ষ্য তাড়ার রেকর্ড অবশ্য আরেকটু বড়।গত বছর পাল্লেকেলেতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৩৭৭ রানের লক্ষ্য তাড়া করে জিতেছিল তারা।তবে এশিয়ার বাইরে কখনও চতুর্থ ইনিংসে তিনশ’ রানের লক্ষ্য তাড়া করে জেতেনি তারা।নিউ জিল্যান্ডের মাটিতে সর্বোচ্চ ২৭৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করে পাকিস্তান জিতেছিল২০০৩-০৪ মৌসুমে।     

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

নিউ জিল্যান্ড ১ম ইনিংস: ২৭১

পাকিস্তান ১ম ইনিংস: ২১৬

নিউ জিল্যান্ড ২য় ইনিংস: ৮৫.৩ওভারে ৩১৩/৫ ইনিংস ঘোষণা (রাভাল ২, ল্যাথাম ৮০,উইলিয়ামসন ৪২, টেইলর ১০২*, নিকোলস ২৬, গ্র্যান্ডহোম ৩২, ওয়াটলিং ১৫*; আমির ১/৮৬, সোহেল ০/৬৯, ইমরান ৩/৭৬, ওয়াহাব ১/৫৩, আজহার ০/১৯, শফিক ০/৪)।

পাকিস্তান ২য় ইনিংস: ৩ ওভারে১/০ (সামি ১*, আজহার ০*; সাউদি ০/১, হেনরি ০/০)।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক