ইংল্যান্ডের ‘বাজবল’ উপভোগ করেন ভারতীয় স্পিনার

কুলদিপ ইয়াদাভ মনে করছেন, আগ্রাসী ঘরানা টেস্ট ক্রিকেটের জন্য ভালো।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 Feb 2024, 03:13 PM
Updated : 13 Feb 2024, 03:13 PM

টেস্ট ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের আগ্রাসী ব্যাটিংয়ের ‘বাজবল’ কৌশল যে কোনো বোলারের জন্যই ভীতিকর। তবে কুলদিপ ইয়াদাভ ইংলিশদের এই ঘরানার ক্রিকেট বেশ উপভোগ করছেন। ভারতের বাঁহাতি রিস্ট স্পিনারের মতে, প্রতিপক্ষের আক্রমণাত্মক ব্যাটিং বোলারদের উইকেট নেওয়ার সুযোগ আরও বাড়িয়ে দেয়।

ভারত ও ইংল্যান্ডের চলমান টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে বাজবলের বিপক্ষে খেলার অভিজ্ঞতা হয় কুলদিপের। এই ম্যাচ দিয়েই এক বছরের বেশি সময় পর দেশের হয়ে সাদা পোশাকে খেলতে নামেন তিনি। ফেরার ম্যাচ খারাপ কাটেনি তার। প্রথম ইনিংসে তিনটিসহ মোট ৪ উইকেট নেন এই স্পিনার। ইংলিশদের ১০৬ রানে হারিয়ে সিরিজে সমতা ফেরায় স্বাগতিকরা।

রাজকোটে আগামী বৃহস্পতিবার শুরু হবে দুই দলের তৃতীয় টেস্ট। এই মাঠে নিজের সবশেষ টেস্টে ইনিংসে পাঁচ উইকেট নিয়েছিলেন কুলদিপ, ২০১৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। তাই ইংল্যান্ডের বিপক্ষেও তার সেখানে খেলার সম্ভাবনা বেশি।

ম্যাচটিকে সামনে রেখে সফরকারীদের বাজবল নিয়ে কথা বলেন কুলদিপ। এখন পর্যন্ত ৯টি টেস্ট খেলা এই ভারতীয় স্পিনারের মতে, ইংলিশদের এই কৌশল বোলারদের টেস্টেও রান আটকানোর জন্য ভাবতে বাধ্য করে।

“টেস্ট ক্রিকেটে সাধারণত দলগুলোর এমন ঘরানার (বাজবল) সঙ্গে আমরা অভ্যস্ত নই। একজন স্পিনার কীভাবে বোলিং করতে চায় এবং তার পন্থা কেমন হবে, প্রতিপক্ষের এমন খেলা সেসব দিকে তাকে আরও মনোযোগী করে তোলে।”

“সাধারণত কেউ যখন টেস্ট খেলে, ব্যাটসম্যানদের তার ওপর আক্রমণ করা নিয়ে চিন্তা করে না, তাদের কীভাবে আউট করতে চায়, সেদিকেই শুধু মনোযোগ থাকে। তবে এখানে ধরন আলাদা, তারা (ইংল্যান্ড) আক্রমণাত্মক মেজাজে থাকে, তাই তাদের কীভাবে (রান করা থেকে) আটকানো যায় সেটাও পরিকল্পনা করতে হয়। তারা যখন শট খেলে, তখন উইকেট নেওয়ার অনেক সুযোগ তৈরি হয়। এটা মজার। গত টেস্টটি আমার প্রথম ম্যাচ ছিল (বাজবলের বিপক্ষে), আমি এটা অনেক উপভোগ করেছি। এটা ক্রিকেটের জন্য ভালো।”