কৃষিখাতের জন্য ৫ হাজার কোটি টাকার তহবিল

কৃষক সর্বোচ্চ ৪ শতাংশ সুদে বাংলাদেশ ব্যাংকের এ পুনঃঅর্থায়ন তহবিল থেকে ঋণ পাবেন।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 17 Nov 2022, 06:01 PM
Updated : 17 Nov 2022, 06:01 PM

খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে কৃষিখাতের জন্য পাঁচ হাজার কোটি টাকার পুনঃঅর্থায়ন তহবিল গঠন করার কথা জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক, যার মাধ্যমে সর্বোচ্চ ৪ শতাংশ সুদে ঋণ পাবেন কৃষক।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের কৃষি ঋণ বিভাগ এ সংক্রান্ত পরিপত্র জারি করেছে।

এতে বলা হয়েছে, ওই তহবিল থেকে শূন্য দশমিক ৫ শতাংশ সুদহারে ঋণ পাবে বাণিজ্যিক ব্যাংক, যা কৃষকদের কাছে সরলহারে সর্বোচ্চ ৪ শতাংশ সুদে বিতরণ করতে হবে।

এ তহবিল থেকে জামানত ছাড়া সর্বোচ্চ ২ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবেন কৃষক। এক্ষেত্রে সম্ভাব্য উৎপাদিত ফসল জামানত হিসেবে রাখতে পারবে ব্যাংক। তহবিলের মেয়াদ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী বছরের জুন পর্যন্ত।

তহবিল গঠনের উদ্দেশ্য সম্পর্কে পরিপত্রে বলা হয়, “সাম্প্রতিক বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে দুর্বল সরবরাহ ব্যবস্থার কারণে বিভিন্ন খাদ্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি পাওয়ায় বিশ্বে খাদ্য সংকটের সৃষ্টির  আশঙ্কা রয়েছে। দেশের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির মাধ্যমে খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধির প্রয়োজন।“

প্রয়োজনে তহবিলের অর্থের পরিমাণ ও মেয়াদ বাড়ানো হতে পারে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

ঋণ প্রাপ্তিতে শর্ত

এ তহবিলের ঋণ কোনোভাবেই গ্রাহক পুরনো ঋণের সমন্বয় করতে পারবেন না। কোনো ঋণ খেলাপি গ্রাহক এ ঋণ পাবেন না। 

পরিপত্রে বলা হয়, ক্ষুদ্র, প্রান্তিক, বর্গা চাষীদের মধ্যে যোগ্য ব্যক্তিকে সর্বোচ্চ ২ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ বিতরণ করতে পারবে ব্যাংক।

শস্য ও ফসল খাতে সর্বোচ্চ ৫ একর জমিতে ফসল চাষের জন্য ঋণ পাবেন কৃষক। এসব ছাড়া অন্য খাতে ঋণের ক্ষেত্রে ব্যাংকার-গ্রাহক সম্পর্কের ভিত্তিতে ন্যূনতম জামানত গ্রহণের বিষয়ে ব্যাংক সিদ্ধান্ত নেবে।

ঋণ পরিশোধ

ঋণ পরিশোধে কৃষক বা গ্রাহক তিন মাসের গ্রেস পিরিয়ডসহ ১৮ মাস সময় পাবেন। কৃষক পর্যায়ে ঋণ আদায়ের দায়িত্ব ব্যাংকের উপরেই থাকবে। ঋণের বকেয়া নির্ধারিত মেয়াদের মধ্যে শোধ না হলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে রক্ষিত সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের চলতি হিসাব সমন্বয় করে আদায় করা হবে। 

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক