চালকের লাইসেন্স ছাড়া মোটরসাইকেল কেনার সময় বাড়ল

“১৫ ডিসেম্বর থেকে মোটরসাইকেল কিনতে গেলে পূর্ণাঙ্গ ড্রাইভিং লাইসেন্স দেখাতে হবে” চিঠিতে লিখেছে বিআরটিএ।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 Sept 2022, 06:07 PM
Updated : 14 Sept 2022, 06:07 PM

চালকের লাইসেন্স ছাড়া মোটরসাইকেল কেনা এবং নিবন্ধনের সময়সীমা বাড়িয়েছে বাংলাদেশের সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ- বিআরটিএ।

আগামী ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত শিক্ষানবিশ (লার্নার) লাইসেন্স দিয়ে যে কেউ মোটরসাইকেলের নিবন্ধন নিতে পারবেন বলে বুধবার এক চিঠিতে জানিয়েছে বিআরটিএর ইঞ্জিনিয়ারিং শাখা।

এর আগে গত ৫ জুলাই মোটরসাইকেলের নিবন্ধন পাওয়ার জন্য ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকার শর্ত আরোপ করা হয়। ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে এই শর্ত কার্যকর করে মোটরসাইকেলের নিবন্ধন দেওয়ার কথা ছিল।

মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণে এমন শর্ত আরোপের কথা জানিয়েছিল বিআরটিএ। তবে এতে মোটরসাইকেলের বিক্রি কমে যেতে পারে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেন মোটরসাইকেল প্রস্তুতকারী ও বিক্রেতারা।

এর পরিপ্রেক্ষিতে বিআরটিএর ইঞ্জিনিয়ারিং শাখার পরিচালক শীতাংশু শেখর বিশ্বাস স্বাক্ষরিত চিঠিতে ওই নির্দেশনা কার্যকর করতে সময় বাড়ানোর সিদ্ধান্ত আসে।

এতে বলা হয়, “বাংলাদেশ মোটরসাইকেল অ্যাসেমব্লার্স এ্যান্ড ম্যানুফাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিমামা) আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে শুধুমাত্র লার্নার লাইসেন্স দেখিয়ে মোটরসাইকেল নিবন্ধনের সময়সীমা ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত বর্ধিত করা হল।

“১৫ ডিসেম্বর থেকে মোটরসাইকেল কিনতে গেলে পূর্ণাঙ্গ ড্রাইভিং লাইসেন্স দেখাতে হবে।” 

২০১৯ সালের ১৬ জুন মোটরসাইকেল প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে চিঠি দিয়ে বিআরটিএ জানিয়েছিল, মোটরসাইকেল বিক্রির সময় শিক্ষানবিশ লাইসেন্স আছে কি না, নিশ্চিত করতে হবে।

এছাড়া ওই বছরের ৪ জুলাই বিআরটিএর সব সার্কেল অফিসে আরেকটি চিঠি দিয়ে বলা হয়, মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশনের সময় চালকের ন্যূনতম লাইসেন্স নিশ্চিত করতে হবে।

সম্প্রতি সড়ক দুর্ঘটনা বেড়ে যাওয়ার কারণ হিসেবে দুই চাকার যান মোটরসাইকেলকে দায়ী করা হচ্ছে।

আরও খবর

Also Read: লাইসেন্স ছাড়া মোটরসাইকেল নিবন্ধন আর নয়

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক