লাইসেন্স ছাড়া মোটরসাইকেল নিবন্ধন আর নয়

গাড়ি চালনার লাইসেন্স বা ড্রাইভিং লাইসেন্স না থাকলে মোটরসাইকেল নিবন্ধন করা যাবে না।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 July 2022, 07:34 PM
Updated : 5 July 2022, 07:34 PM

আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে নতুন এ নিয়ম কার্যকর করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ, বিআরটিএ।

মঙ্গলবার বিআরটিএর বিভিন্ন সার্কেলের কার্যালয়ের সহকারী পরিচালকদের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

বিআরটিএর পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং) শীতাংশু শেখর বিশ্বাস স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, গত ১৪ জুন অনুষ্ঠিত সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় লাইসেন্স ছাড়া এই যানটি বিক্রি না করতে বাধ্য করার বিষয়টি নিয়ে ভাবার কথা এর আগে জানিয়েছিলেন বিআরটিএ চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার।

তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেছিলেন, “লার্নার দিয়ে বাইক বিক্রি এবং নিবন্ধনের সুযোগ কিছু সময়ের জন্য দেওয়া হয়েছে। এটা আর বাড়ানো হবে না। লাইসেন্স ছাড়া বাইক বিক্রি না করার বিষয়টি আমরা নিশ্চিত করব।”

এতদিন শিক্ষানবিশ সনদ নিয়ে মোটর বাইক কিনে নিবন্ধন করিয়ে নেওয়া যেত।

মঙ্গলবার পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, “আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ তারিখ থেকে মোটরসাইকেলের রেজিস্ট্রেশন নম্বর প্রদানের সময় সংশ্লিষ্ট গ্রাহকের ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকার বিষয়টি রেজিস্টারিং অথরিটি কর্তৃক নিশ্চিত করতে হবে। ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যতিত কোনো মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন নম্বর পাবে না।”

বর্তমানে শিক্ষানবিস লাইসেন্স নিয়েই যে কেউ মোটরসাইকেল ক্রয় এবং নিবন্ধন করতে পারেন।

২০১৯ সালের ১৬ জুন এ বিআরটিএ থেকে মোটরসাইকেল প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে চিঠি দিয়ে জানায়, মোটরসাইকেল বিক্রির সময় শিক্ষানবিস লাইসেন্স আছে কি না, নিশ্চিত করতে হবে।

এছাড়া ওই বছরের ৪ জুলাই বিআরটিএর সব সার্কেল অফিসে আরেকটি চিঠি দিয়ে বলা হয়, মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশনের সময় চালকের ন্যূনতম লাইসেন্স নিশ্চিত করতে হবে।

তবে রাজধানীর কয়েকটি মোটরসাইকেল বিক্রয় কেন্দ্রে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, শিক্ষানবিস লাইসেন্স আছে কি না, তাও যাচাই করা হচ্ছে না বিক্রির সময়।

সম্প্রতি সড়ক দুর্ঘটনা বেড়ে যাওয়ার কারণ হিসেবে দুই চাকার এই যান মোটরসাইকেলকে দায়ী করা হচ্ছে।

পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। এছাড়া ঈদুল ফিতরের আগে-পরে সাত দিন দেশের বিভিন্ন মহাসড়কে মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ করেছে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ।

তবে সরকারের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে আসছেন মোটরসাইকেল আরোহীরা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক