প্রাথমিকে বৃত্তি পরীক্ষা বন্ধ, অলিম্পিয়াডের মাধ্যমে আর্থিক সহায়তা

“বাচ্চাদেরকে কীভাবে উৎসাহিত করতে পারি মেধা বা সুপ্ত প্রতিভা বিকাশের জন্য সেই প্রক্রিয়া বের করার জন্য আমরা টেকনিক্যাল কমিটি করে দিয়েছি,” বলেন সচিব।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 Feb 2024, 12:56 PM
Updated : 10 Feb 2024, 12:56 PM

আলাদা পরীক্ষা নিয়ে বা পঞ্চম শ্রেণির ফলাফলের ভিত্তিতে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের আর বৃত্তি দেবে না সরকার। এর বদলে বিভিন্ন ধরনের অলিম্পিয়াড আয়োজন করে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব ফরিদ আহাম্মদ বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানান। আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস উদযাপনের কর্মসূচি জানাতে বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে আসেন তিনি। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন এসময় উপস্থিত ছিলেন।

গণশিক্ষা সচিব বলেন, “শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করতে প্রাথমিকের সমাপনীর পরীক্ষার ভিত্তিতে বৃত্তি দেওয়া হত। এখন শিক্ষার যে পরিবর্তন হয়েছে এটা শুধুমাত্র পরিমার্জন না, এটা একেবারে রূপান্তর হচ্ছে। বিশ্বের প্রত্যাশার রূপান্তর হচ্ছে। রূপান্তরের কারণে ২০১০ সালের জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা পুরো পরিবর্তন করে জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১ করা হয়েছে।

“প্রাক-প্রাথমিক বা প্রাথমিক পর্যায়ে কোচিংমুখীতাকে শতভাগ নিরুৎসাহিত করা হয়েছে এবং এ ধরনের প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা নিরুৎসাহিত করা হয়েছে। ধারাবাহিক মূল্যায়নকে উৎসাহিত করা হয়েছে। এ বছর পরীক্ষামূলকভাবে আমরা বৃত্তি পরীক্ষা একটি নিয়েছিলাম। তারপর আমরা শিক্ষা মন্ত্রণালয়সহ অন্যদের নিয়ে সভা করে প্রাথমিকের বৃত্তি পরীক্ষা না নেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি।”

সচিব বলেন, “বাচ্চাদেরকে কীভাবে উৎসাহিত করতে পারি মেধা বা সুপ্ত প্রতিভা বিকাশের জন্য সেই প্রক্রিয়া বের করার জন্য আমরা টেকনিক্যাল কমিটি করে দিয়েছি। সেখানে আমাদের কিছু সুপারিশ এসেছিল, যেমন- ক্ষুদ্র অলিম্পিয়াড, বাংলা অলিম্পিয়াড, বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড- এ ধরনের কার্যক্রম করা। এছাড়া এক্সট্রা কো-কারিকুলাম অ্যাকটিভিটিতে উৎসাহিত করার জন্য দেশব্যাপী কম্পিটিশন করা। অলরেডি আমাদের জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহের মধ্যে আমরা এটি ইনক্লুড করেছি।

“কোচিংমুখীতা নিরুৎসাহিত করার জন্য আমরা যে সাব-কমিটি করে দিয়েছি তারা আমাদেরকে কিছু সুপারিশ দিয়েছে। আমরা তাদেরকে আরো এক মাস সময় দিয়েছি, সেটি দিলে আমরা ওই দিকে যাব।”

তাহলে বিভিন্ন অলিম্পিয়াডের মাধ্যমে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দেওয়া হবে কিনা, এ প্রশ্নে গণশিক্ষা সচিব বলেন, এ ধরনের প্রতিযোগিতার মাধ্যমে বৃত্তি নয়, তাদেরকে উৎসাহিত করার জন্য অনুপ্রেরণামূলক আর্থিক সহায়তা ও অন্যান্য সহায়তা দেওয়া হবে।

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক)