১১০ শিক্ষার্থীর ভর্তি বহাল, গণস্বাস্থ্য মেডিকেলকে জরিমানা

অতিরিক্ত শিক্ষার্থী ভর্তি করায় এই মেডিকেল কলেজকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেছে সর্বোচ্চ আদালত।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 Feb 2024, 08:19 AM
Updated : 6 Feb 2024, 08:19 AM

গণস্বাস্থ্য মেডিকেল কলেজে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ১১০ জন শিক্ষার্থীর ভর্তি বহাল রাখার আদেশ দিয়েছে আপিল বিভাগ।

শুধু ওই বছরের জন্যই এ সংখ্যা কার্যকর হবে; অন্য সময় প্রতি শিক্ষাবর্ষে ৬০ জনই ভর্তি হতে পারবে।

অতিরিক্ত শিক্ষার্থী ভর্তি করায় ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর প্রতিষ্ঠিত এই মেডিকেল কলেজকে ১০ লাখ টাকা জরিমানাও করেছে সর্বোচ্চ আদালত।

প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে পাঁচ বিচারকের আপিল বেঞ্চ মঙ্গলবার এ রায় দেয়।

শিক্ষার্থীদের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট আহসানুল করিম, অ্যাডভোকেট নাহিদ সুলতানা যূথী, অ্যাডভোকেট শাকিলা রওশন।

২০১০ সাল থেকে গণস্বাস্থ্য মেডিকেল কলেজে ১১০ জন করে শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমতি ছিল। ২০২১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিভুক্ত হওয়ার পর ৫০ জন শিক্ষার্থীর বেশি গণস্বাস্থ্য মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা যাবে না বলে জানিয়ে দেয় বিশ্ববিদ্যালয়।

এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করলে তখন ১০ জন বাড়িয়ে ৬০ জন ভর্তির অনুমতি দেওয়া হয়।

অ্যাডভোকেট আহসানুল করিম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ১১০ জনের জায়গায় ৬০ জন ভর্তি করা সংক্রান্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে হাই কোর্টে রিট আবেদন করা হয়। শুনানি নিয়ে ২০২১ সালের ২৩ নভেম্বর আদালত রুল জারি করে।

২০২২ সালের ২৮ জুন বিচারপতি কাশেফা হোসেন ও বিচারপতি জিনাত হকের হাই কোর্ট বেঞ্চ ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ১১০ শিক্ষার্থীর ভর্তি বহাল রাখার রায় দেয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে।

সেই আপিলের রায়ে সর্বোচ্চ আদালত হাই কোর্টের সিদ্ধান্তই বহাল রাখল।

১১০ জনের ভর্তির আদেশ শুধু ওই বছরের জন্য কিনা প্রশ্ন করা হলে অ্যাডভোকেট আহসানুল করিম বলেন, “হ্যাঁ, শুধু ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের জন্য। ওই বছর মামলা চলাকালে ছাত্র ভর্তি করে নেওয়ায় তাদের ভর্তি বহাল রাখা হয়। তবে নিয়মিতভাবে ৬০ জনই ভর্তি করতে হবে।” 

তিনি জানান, অতিরিক্ত শিক্ষার্থী ভর্তি করানোয় গণস্বাস্থ্য মেডিকেল কলেজকে যে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে, সেই টাকা খুলনা গণস্বাস্থ্য হাসপাতাল ও কিডনি ফাউন্ডেশনকে দিতে বলা হয়েছে।