খুলল মেট্রোরেলের আগারগাঁও-মতিঝিল অংশ

মাত্র ৩১ মিনিটেই উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত পাড়ি দিতে পারবেন নগরবাসী।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 Nov 2023, 08:45 AM
Updated : 4 Nov 2023, 08:45 AM

ঢাকার প্রথম মেট্রোরেল এখন উত্তরা-মতিঝিল পুরো পথে চলবে।

মেট্রোর উত্তরা-আগারগাঁও অংশ চালুর ১০ মাস সাত দিনের মাথায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার আগারগাঁও থেকে মতিঝিল অংশের উদ্বোধন করলেন।

আগারগাঁও স্টেশনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সবুজ পতাকা উড়িয়ে এই অংশের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

পরে আরেকটি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী মেট্রোরেলে চড়ে মতিঝিল স্টেশনের পথে রওনা হন।

সেখানকার আনুষ্ঠানিকতা শেষে আরামবাগে এক সমাবেশে যোগ দিবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তবে এদিন উদ্বোধন হলেও উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত মেট্রোরেলের বাণিজ্যিক যাত্রা চলবে রোববার থেকে। তাতে মাত্র আধা ঘণ্টায় রাজধানীর উত্তরা থেকে রওনা হয়ে মতিঝিলে পৌঁছাতে পারবে নগরবাসী।

এদিন প্রধানমন্ত্রী এমআরটি লাইন-৫ (উত্তর রুট) নির্মাণ কাজেরও উদ্বোধন করেন। এই লাইন হেমায়েতপুর থেকে গাবতলী, মিরপুর-১০, গুলশান, ভাটারা পর্যন্ত ২০ কিলোমিটার হবে। ৪১ হাজার ২৩৯ কোটি টাকার এ প্রকল্পের কাজ শেষ হবে ২০২৮ সালে।

দেশের প্রথম মেট্রোরেল লাইন এমআরটি-৬ এর আগারগাঁও থেকে মতিঝিল পর্যন্ত পথে ১৬টি স্টেশন থাকছে। এসব স্টেশনে গড়ে ৪৫ সেকেন্ড করে থামবে ট্রেন। ট্রেনের গতি থাকবে ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার।

ডিএমটিসিএল এমডি এম এ এন ছিদ্দিক বলেন, “কিন্তু এই গতিতে চলবে না ট্রেন। প্রতিটি স্টেশনে থামা, বিভিন্ন বাঁকে কম গতিতে চলাসহ সবমিলিয়ে দিয়াবাড়ি (উত্তরা) থেকে মতিঝিল পর্যন্ত ট্রেনটির যেতে সময় লাগবে ৩১ মিনিট।”

উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত প্রতিদিন মেট্রোতে গড়ে ৮৫ হাজার যাত্রী যাতায়াত করছেন। উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত পুরোদমে চালু হলে প্রতি ঘণ্টায় ৬০ হাজার যাত্রী চলাচল করতে পারবেন।

তার ফলে প্রতিদিন ৬ লাখের বেশি যাত্রী চলাচল করতে পারবেন বলে জানিয়েছেন মেট্রোরেলের কর্মকর্তারা।

উত্তরা থেকে মতিঝিল ভাড়া ১০০ টাকা

উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত পুরো পথের জন্য ভাড়া গুনতে হবে ১০০ টাকা। উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত ১৬টি স্টেশন আছে। তবে মতিঝিল থেকে আগারগাঁও অংশে আপাতত মতিঝিল, সচিবালয় ও ফার্মগেট-এই তিন স্টেশন থামবে মেট্রোরেল।

এ তিন স্টেশনের মধ্যে উত্তরা থেকে ফার্মগেট পর্যন্ত ভাড়া ৭০ টাকা, সচিবালয় পর্যন্ত ৯০ টাকা আর মতিঝিল পর্যন্ত গুনতে হবে ১০০ টাকা।

বাকি স্টেশন ৩ মাসের মধ্যে

আগারগাঁও থেকে মতিঝিল অংশের সবগুলো স্টেশন চালু হতে তিন মাস সময় লেগে যাবে জানানো হয়েছে। শুরুতে বাদ পড়া স্টেশনগুলো হচ্ছে- বিজয় সরণি, কারওয়ান বাজার, শাহবাগ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় স্টেশন।

এর আগে উত্তরা থেকে আগারগাঁও অংশ চালুর সময়ও ধীরে ধীরে অন্য স্টেশন চালু হয়েছিল। প্রথম দিন উত্তরা ও আগারগাঁও স্টেশন চালু হলেও ৩০ মার্চের মধ্যে এই অংশের ৯টি স্টেশনই চালু হয়।

এমআরটি লাইন-৬ এর রুট কমলাপুর পর্যন্ত বিস্তৃত। সেই হিসাবে কাজ বাকি থাকছে কেবল একটি স্টেশনের। সেই অংশটি ২০২৫ সালের মধ্যে চালুর লক্ষ্য ঠিক করেছে সরকার।

Also Read: দেশের প্রথম পাতাল রেল নির্মাণকাজের উদ্বোধন

Also Read: বাংলাদেশ যেভাবে পৌঁছাল মেট্রোরেল স্টেশনে