ঢাকার ধানমণ্ডিতে বিদ্যুতের তার মাটির নিচে নেওয়া আগামী সপ্তাহে শুরু

ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় আংশিকভাবে বৈদ্যুতিক তার ইতোমধ্যেই মাটির নিচে নেওয়া হয়েছে।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Dec 2022, 03:54 PM
Updated : 1 Dec 2022, 03:54 PM

আগামী সপ্তাহ থেকে ধানমণ্ডিতে বিদ্যুতের আন্ডারগ্রাউন্ড কেবল স্থাপন শুরু হবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

নগরীকে তারের জঞ্জাল থেকে মুক্ত ও নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ নিশ্চিত করতে এই প্রকল্প নেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় আংশিকভাবে বৈদ্যুতিক তার ইতোমধ্যেই মাটির নিচে নেওয়া হয়েছে; চীনের আর্থিক সহায়তায় ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি-ডিপিডিসি’র বিতরণ অঞ্চলেও ব্যাপকভাবে এই কাজে হাত দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ডিপিডিসির এরকম ৬টি উন্নয়ন প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি পরিদর্শনে যান প্রতিমন্ত্রী।

এ সময় তিনি বলেন, ধানমণ্ডি এলাকা সবার আগে ২০ কিলোমিটার বিদ্যমান ওভারহেড বিতরণ লাইনকে ভূগর্ভস্থ কেবল নেটওয়ার্কে রূপান্তর করা হবে। বিদেশের মতো সব কেবল মাটির নিচে যাবে। আগামী সপ্তাহ থেকে কাজটা শুরু হবে।

“ইতোমধ্যেই ডিজাইন ও ফিজিবিলিটি স্টাডি শেষ হয়েছে। ট্রান্সফরমার কেউ আর উপরে ঝুলানো দেখবে না। মাটির নিচে বৈদ্যুতিক তারের পাশাপাশি ফাইবার অপটিক কেবলও থাকবে। ধানমণ্ডি আমাদের প্রথম প্রকল্প। এরপর বাকি এলাকার নকশা করা হবে।”

প্রকল্পের আওতায় ভূগর্ভস্থ বৈদ্যুতিক তার ও সাবস্টেশন এবং অটোমেশন, সেন্ট্রাল স্ক্যাডা বিতরণ ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করা হবে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, এতে মানসম্পন্ন বিদ্যুৎ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পরিচ্ছন্ন শহর গড়তে সহায়তা করবে।

ডিপিডিসি’র আওতাধীন ‘বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা সম্প্রসারণ ও শক্তিশালীকরণ’ শীর্ষক প্রকল্পে নতুন ১৪টি ১৩২/৩৩ কেভি ও ২৬টি ৩৩/১১ কেভি উপকেন্দ্র নির্মাণ করা হবে। বিদ্যমান ৮টি ১৩২/৩৩ কেভি ও ৪টি ৩৩/১১ কেভি উপকেন্দ্রের ক্ষমতা বৃদ্ধি করা হবে। ঢাকা শহরের ভূমির দুষ্প্রাপ্যতা বিবেচনায় আধুনিক এবং উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন ৩৫/৫০ এমভিএ ৩৩/১১ কেভি পাওয়ার ট্রান্সফরমার স্থাপন করা হচ্ছে।

এই ধরনের পাওয়ার ট্রান্সফরমার বাংলাদেশে প্রথম ডিপিডিসি কর্তৃক স্থাপন করা হচ্ছে বলে মন্ত্রণালয় জানায়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক