হজ: ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নিবন্ধনের অবশিষ্ট টাকা জমার নির্দেশ

“সৌদি সরকার ২৫ ফেব্রুয়ারি চুক্তির সময় নির্ধারণ করে দেওয়ায়, টাকা জমা দেওয়ার সময় এগিয়ে আনা হয়েছে।”

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
Published : 10 Feb 2024, 08:08 AM
Updated : 10 Feb 2024, 08:08 AM

চলতি বছরে হজে যেতে ইচ্ছুকদের নিবন্ধনের অবশিষ্ট টাকা জমা দেওয়ার সময় নয়দিন এগিয়ে আনা হয়েছে।

আগামী ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নিবন্ধনের বাকি টাকা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

এ বছর নিবন্ধনের অবশিষ্ট টাকা জমা দেওয়ার জন্য ২৯ ফেব্রুয়ারি দিন নির্ধারণ করেছিল মন্ত্রণালয়।

শনিবার ধর্ম মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যে সরকারি ও বেসরকারি উভয় মাধ্যমের হজযাত্রীদের জন্য মিনায় তাঁবু গ্রহণ, মোয়াল্লেম গ্রহণ, বাড়ি বা হোটেল ভাড়া, পরিবহন চুক্তি সম্পন্ন করতে হবে।

“এ কারণে ২ লাখ ৫ হাজার টাকা জমা দিয়ে প্রাথমিক নিবন্ধনকারী হজযাত্রীদেরকে আগামী ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নিবন্ধনের অবশিষ্ট টাকা জমা দিতে হবে।”

মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবুবকর সিদ্দীক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “সৌদি সরকার ২৫ ফেব্রুয়ারি চুক্তির সময় নির্ধারণ করে দেওয়ায় সময় এগিয়ে আনা হয়েছে।”

চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন সৌদি আরবে হজ করতে যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় যেতে পারবেন ১০ হাজার ১৯৮ জন, বাকিরা যাবেন বেসরকারিভাবে।

Also Read: হজ: চার দফা সময় বাড়িয়েও পূরণ হল না ৩৫% কোটা

এবারের হজ নিবন্ধন শুরু হয় গত ১৫ নভেম্বর, যা ১০ ডিসেম্বর শেষ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু প্রত্যাশিত সাড়া না মেলায় সময় বাড়ানো হয় ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। পরে সেই সময় আরো দুই দফায় ১৮ জানুয়ারি এবং পরে ১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

বিশেষ বিবেচনায় চতুর্থ দফায় সময় দেওয়া হয় ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। তবে হজের জন্য নিবন্ধনের সময় চার দফা বাড়িয়েও কোটার এক তৃতীয়াংশ পূরণ করা যায়নি।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১৬ জুন হজ হতে পারে।

প্রতি বছরের মত এবারও সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজের দুটি প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে।

এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় সাধারণ প্যাকেজে খরচ হবে ৫ লাখ ৭৮ হাজার ৮৪০ টাকা। আর বিশেষ প্যাকেজে ৯ লাখ ৩৬ হাজার ৩২০ টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে।

বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় সাধারণ প্যাকেজে ৫ লাখ ৮৯ হাজার ৮০০ টাকা এবং বিশেষ প্যাকেজে ৬ লাখ ৯৯ হাজার ৩০০ টাকা খরচ নির্ধারণ করেছে হজ এজেন্সিগুলোর সমিতি- হাব।