সেই ফিলিং স্টেশনকে ১ লাখ জরিমানা, ইশতিয়াক পেলেন ২৫০০০

এর আগে বিএসটিআই সোহরাব সার্ভিস স্টেশনকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করেছিল।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 August 2022, 12:48 PM
Updated : 4 August 2022, 12:48 PM

জ্বালানি তেল কিনতে গিয়ে কম পাওয়ার অভিযোগ তুলে প্রতিবাদী অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছিলেন যে শেখ ইশতিয়াক আহমেদ, তার সত্যতা পেয়েছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

বৃহস্পতিবার ইশতিয়াকের অভিযোগের শুনানি নিয়ে ঢাকার কল্যাণপুরে সোহরাব ফিলিং স্টেশনকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করেছে অধিদপ্তর। নিয়ম অনুযায়ী ২৫ হাজার টাকা পেয়েছেন অভিযোগকারী ইশতিয়াক।

গত সোমবার নিজের মোটর সাইকেলের জন্য অকটেন কিনতে সোহরাব সার্ভিস স্টেশনে গিয়েছিলেন ব্যাংক কর্মকর্তা ইশতিয়াক। তার অভিযোগ, তাকে ৫ লিটার অকটেনের ভাউচার দেওয়া হলেও বাস্তবে মেপে দেওয়া হয়েছে ৩ লিটার বা তার চেয়ে একটু বেশি।

Also Read: তেল ‘কম’ দেওয়ার অভিযোগ, পাম্পে অবস্থান নিয়ে প্রতিবাদ

এরপর প্রতিবাদে তিনি ফিলিং স্টেশনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করলে তা নিয়ে সংবাদ মাধ্যম ও সোশাল মিডিয়ায় বেশ আলোচনা ওঠে।

পরদিন ওই এলাকায় অভিযানে যায় বিএসটিআই। তারা সোহরাব সার্ভিস স্টেশনে দুটি ডিজেলের নজেলে কম দেওয়ার প্রমাণ পেয়ে প্রতিষ্ঠানটিকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করে।

তবে অকটেনের নজেলে কোনো সমস্যা না পাওয়ার কথা জানিয়ে বিএসটিআই কর্মকর্তারা বলেছিলেন, ইশতিয়াকের সঙ্গে এখানে প্রতারণার ঘটনা ঘটেছে, যা দেখবে ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর।

এদিকে ইশতিয়াক মঙ্গলবারই ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরে অভিযোগ দিয়ে রেখেছিলেন। দুদিন বাদে অধিদপ্তরে তা নিয়ে শুনানি হয়।

অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ এইচ এম সফিকুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, “শুনানিতে স্পষ্ট প্রমাণিত হয়েছে পেট্রোল পাম্পটি ভোক্তা অধিকার আইনের ৪৫ ধারা ও ৪৮ ধারা লঙ্ঘন করেছে। এই দুই আইনে ৫০ হাজার করে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।”

অভিযোগকারী ইশতিয়াক মোট জরিমানার ২৫ শতাংশ পেয়েছেন বলে জানান তিনি।

সফিকুজ্জামান বলেন, “সোহরাব পেট্রোল পাম্প কর্তৃপক্ষ দোষ স্বীকার করে নিয়েছেন এবং জানিয়েছে এটা অনাকাঙ্ক্ষিত ভুল।”

প্রসঙ্গক্রমে তিনি বলেন, ২১৭ জন জনবল নিয়ে কাজকর্ম চালাতে বেগ পেতে হচ্ছে অধিদপ্তরকে। এজন্য সরকারের কাছে ৪৫০ জন জনবল চেয়ে জন্য আবেদন করেছেন।

Also Read: কল্যাণপুরে পেট্রোল পাম্পে অভিযানে তেল চুরির প্রমাণ

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক