কর্মস্থল থেকে বিদায় নিলেন বিচারপতি বোরহান উদ্দিন

নিয়মানুযায়ী ৬৭ বছর পূর্ণ হওয়ার পর তিনি অবসরে যান।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 Feb 2024, 09:32 AM
Updated : 27 Feb 2024, 09:32 AM

শেষ কর্মদিবসে কাজের মধ্যে দিয়েই কর্মস্থল থেকে বিদায় নিয়েছেন আপিল বিভাগের বিচারপতি বোরহান উদ্দিন। 

নিয়মানুযায়ী ৬৭ বছর পূর্ণ হওয়ায় মঙ্গলবার তিনি অবসরে যান। 

মঙ্গলবার বিচারিক জীবনের শেষ কর্মদিবসেও তিনি বিচারকাজে অংশ নেন। পরে প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের উপস্থিতিতে তাকে বিদায় জানানো হয়। 

দুপুর ১২টায় আপিল বিভাগের এজলাস কক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয় ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি তার বিদায়ী সংবর্ধনার আয়োজন করে। 

অনুষ্ঠান শুরুর আগে এজলাস কক্ষে আইনজীবীরা উপস্থিত হতে শুরু করেন। এ সময় প্রধান বিচারপতসহ আপিল বিভাগের ছয় বিচারপতিই উপস্থিত ছিলেন।  

অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন মানপত্র পাঠের মাধ্যমে বিদায় অনুষ্ঠান শুরু করেন। মানপত্রে তিনি বিচারপতি বোরহান উদ্দিনের জীবনের মূল তথ্যসমূহসহ বিচারিক জীবনে তার দেওয়া গুরুত্বপূর্ণ মামলাগুলোর রায়ের কথা উল্লেখ করেন। 

এরপর তাকে বিদায় জানিয়ে লিখিত বক্তব্য দেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি মোমতাজ উদ্দিন ফকির।      

১৯৫৭ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন বোরহান উদ্দিন। তার বাবা অ্যাডভোকেট আব্দুস সবুর মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ছিলেন। তার মা মমতাজ সবুর ছিলেন লেখিকা ও সমাজসেবিকা। 

বোরহান উদ্দিন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে এলএলবি পাস করে ১৯৮৫ সালের ৩ মার্চ নিম্ন আদালতে আইন পেশায় যোগ দেন। ১৯৮৮ সালের ১৬ জুন সুপ্রিম কোর্টের হাই কোর্ট বিভাগে তালিকাভুক্ত হন। ২০০২ সালের ২৭ নভেম্বর আপিল বিভাগে আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হন তিনি। 

২০০৮ সালের ১৬ নভেম্বর হাই কোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত বিচারক হিসেবে নিয়োগ পান বোরহান উদ্দিন। ২০১০ সালের ১১ নভেম্বর হাই কোর্ট বিভাগে স্থায়ী বিচারক হন। 

২০২২ সালের ৯ জানুয়ারি বিচারপতি বোরহান উদ্দিনকে আপিল বিভাগে নিয়োগ দেওয়া হয়।