বিদ্যুৎ গ্রিডে রুশ হামলা গণহত্যার শামিল: ইউক্রেইন

ইউক্রেইনজুড়ে লাখ লাখ মানুষ চলমান রুশ হামলার কারণে এই শীতের সময়ে বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 Nov 2022, 11:26 AM
Updated : 28 Nov 2022, 11:26 AM

ইউক্রেইনের জ্বালানি অবকাঠামোয় রুশ বাহিনীর হামলা গণহত্যার শামিল বলে উল্লেখ করেছেন ইউক্রেইনের শীর্ষ এক কর্মকর্তা।

‘গোটা ইউক্রেইন জাতিকে’ নিশানা করে গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলোতে রুশ বাহিনীর হামলা কিইভকে আত্মসমর্পণে বাধ্য করারই চেষ্টা বলে বিবিসি-কে জানিয়েছেন ইউক্রেইনের প্রসিকিউটর জেনারেল।

গণহত্যা কথাটি একদল মানুষকে নির্মূল করার চেষ্টাকেই বোঝায়। তবে রাশিয়া তাদের এমন কোনও লক্ষ্য থাকার কথা অস্বীকার করেছে।

ইউক্রেইনজুড়ে লাখ লাখ মানুষ চলমান রুশ হামলার কারণে এই শীতের সময়ে বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছে।

বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন ঘরবাড়িগুলোতে বিদ্যুৎ সরবরাহের চেষ্টা চলছে। কর্মকর্তারা বলছেন, খেরসনে এখন পুনরায় পুরো বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হচ্ছে। রুশ সেনারা এ মাসের শুরুর দিকে খেরসন ছেড়ে চলে যাওয়ার পর ইউক্রেইনীয় সেনারা নগরীটি পুনর্দখল করে।

কিন্তু প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, ১৪টি অঞ্চল ও রাজধানী কিইভে বিদ্যুতের ব্যবহার সীমিত রয়েছে।

জাতিসংঘের জেনেভা কনভেনশন অনুযায়ী, গণহত্যার ক্ষেত্রে একটি জাতীয়, জাতিগত, বর্ণ কিংবা ধর্মীয় কোনও গোষ্ঠীকে পুরোপুরি বা আংশিক ধ্বংসের অভিপ্রায় থাকে।

সেক্ষেত্রে এসব গোষ্ঠীর সদস্যদের হত্যা বা গুরুতর ক্ষতিসাধন কিংবা শিশুদের জোর করে অন্যখানে স্থানান্তরের মতো কর্মকাণ্ড অন্তর্ভুক্ত।

বিবিসি-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ইউক্রেইনের প্রসিকিউটর জেনারেল আন্দ্রি কোস্টিন বলেছেন, ইউক্রেইনের বিদ্যুৎ গ্রিডে হামলার পাশাপাশি ১১ হাজার ইউক্রেইনীয় শিশুকে জোর করে রাশিয়া নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

কোস্টিন বলেছেন, ২৪ ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়া ইউক্রেইনে আগাসন শুরুর পর থেকে তার কার্যালয় ৪৯ হাজারের বেশি যুদ্ধাপরাধ ও আগ্রাসনের অপরাধের তদন্ত করছে।

ইউক্রেইনে রাশিয়ার দখল করা সবগুলো অঞ্চলে একই ধরনের আচরণ দেখা গেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

জেনেভা কনভেনশনসহ আন্তর্জাতিক বিভিন্ন চুক্তিতে যুদ্ধের যে নীতিমালা নির্ধারণ করা আছে তা লঙ্ঘন করা যুদধাপরাধের পর্যায়ে পড়ে।

এই নীতিমালার মধ্যে সাধারণ নাগরিকদের সুরক্ষিত রাখার বিষয়টি আছে। কিন্তু রাশিয়ার এই নীতি বার বার লঙ্ঘনের অভিযোগ আছে।

নিপ্রো এলাকার আবাসিক ভবনগুলোতে এ সপ্তাহান্তে রুশ বাহিনীর গোলা হামলায় একজন নিহত এবং ১৩ জন আহতও হয়েছে বলে জানিয়েছেন সেখানকার গভর্নর।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক