ইউক্রেইন যুদ্ধ: আইসিজের মামলা প্রত্যাহারের দাবি রাশিয়ার

ইউক্রেইনের পূর্বাঞ্চলে ২০১৪ সালে রুশ সমর্থিত বিদ্রোহীদের সঙ্গে ইউক্রেইনের সেনাবাহিনীর যুদ্ধ হয়।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 Jan 2024, 10:16 AM
Updated : 26 Jan 2024, 10:16 AM

ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিসে (আইসিজে) ইউক্রেইন যে মামলা করেছে, তা প্রত্যাহার চেয়েছে রাশিয়া। এই মামলায় কিইভ অভিযোগ করেছিল, জেনোসাইড আইনের অপব্যবহার করে ইউক্রেইনে আগ্রাসনকে ন্যায়সঙ্গত করার চেষ্টা করছে মস্কো।

অন্যদিকে রাশিয়া বরাবরই বলে আসছে, পূর্ব ইউক্রেইনে রুশ ভাষাভাষীদের উপর ইউক্রেইন সরকার গণহত্যা চালিয়েছে এবং তা প্রতিরোধ করতেই তারা সেখানে সামরিক অভিযান শুরু করে।

হেগে আইসিজেতে শুনানিতে রাশিয়ার আগ্রাসন বৈধ কি না, তা অবশ্য যাচাই করা হবে না। বরং সেখানে ইউক্রেইনের দাবি পরীক্ষা করার অনুমোদন দেওয়া হবে কি না, তা বিবেচনা করে দেখা হবে।

ইউক্রেইনের পূর্বাঞ্চলে ২০১৪ সালে রুশ সমর্থিত বিদ্রোহীদের সঙ্গে ইউক্রেইনের সেনাবাহিনীর যুদ্ধ হয়। তবে কিইভের দাবি, দেশটির পূর্বাঞ্চলে গণহত্যার কোনো ঘটনা ঘটেনি।

আদালত থেকে একই সঙ্গে এও বলা হয়, জেনোসাইড কনভেনশন কখনওই একটি স্থানে গণহত্যা হচ্ছে এমন অভিযোগের পর তা বন্ধে সেখানে কোনো ধরনের আগ্রাসনের অনুমতি দেয় না।

গত বছর ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেইনে রুশ আগ্রাসন শুরু হওয়ার কয়েকদিন পর আইসিজে তে ওই অভিযোগ করে কিইভ। যার ভিত্তিতে ওই বছর মার্চের মাঝামাঝিতে জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালত আইসিজে রাশিয়াকে ইউক্রেইনে তাদের সামরিক অভিযান বন্ধ করতে বলেছিল। কিন্তু রাশিয়া সেই নির্দেশ মানেনি।

সোমবার রাশিয়া ইউক্রেইনের মামলাকে ‘আশাহতভাবে ত্রুটিপূর্ণ’ বলে বর্ণনা করে বলে, কিইভ আসলে রাশিয়ার সামরিক পদক্ষেপ ঠিক নাকি ভুল সে বিষয়ে একটি রায় চায়।

সংবাদ সূত্র: বিবিসি

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক)