আর্টেমিস ওয়ান উৎক্ষেপণের নতুন তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর

মিশনের মূল লক্ষ্যই হচ্ছে নতুন এসএলএস রকেট এবং ওরিয়ন স্পেসক্র্যাফট কতোটা নির্ভরযোগ্য এবং টেকসই তা যাচাই করা।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 Sept 2022, 09:03 AM
Updated : 14 Sept 2022, 09:03 AM

আর্টেমিস প্রকল্পের প্রথম মিশন ‘আর্টেমিস ওয়ান’ উৎক্ষেপণের নতুন তারিখ ঘোষণা করেছে নাসা। যান্ত্রিক ত্রুটিতে ভেস্তে গিয়েছিল নাসার প্রথম দুবারের চেষ্টা।

নাসা তৃতীয়বারের মতো আর্টেমিস ওয়ান উৎক্ষেপণের চেষ্টা করবে ২৭ সেপ্টেম্বর। বিকল্প দিন হিসেবে ২ অক্টোবরের কথাও ভেবে রেখেছে মহাকাশ গবেষণা সংস্থাটি। 

প্রযুক্তি বিষয়ক সাইট ভার্জ জানিয়েছে, নাসা প্রথমে ২৩ সেপ্টেম্বর আর্টেমস ওয়ান মিশনের ‘স্পেস লঞ্চ সিস্টেম (এসএলএস)’ রকেট উৎক্ষেপণের কথা ভাবলেও মিশনের নানা আনুসাঙ্গিক রসদ সরবরাহ বিবেচনায় নিয়ে ২৭ সেপ্টেম্বরকে বেছে নিয়েছে।

বৃহত্তর আর্টেমিস প্রকল্পের অংশ ‘আর্টেমিস ওয়ান’। মিশনের অংশ হিসেবে এসএলএস রকেটের মাধ্যমে ওরিয়ন স্পেসক্র্যাফটে চাঁদের দিকে পাঠানোর পরিকল্পনা করে রেখেছে নানা। চাঁদকে ঘিরে চক্কর দিয়ে পৃথিবীতে ফিরবে স্পেসক্র্যাফটটি। পুরো মিশনের মূল লক্ষ্যই হচ্ছে, নতুন এসএলএস রকেট এবং ওরিয়ন স্পেসক্র্যাফট কতোটা নির্ভরযোগ্য এবং টেকসই তা যাচাই করা। 

কেবল পাঁচ দশক পরে চাঁদের ফেরার পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই নয়, মহাকাশ নিয়ে নাসার ভবিষ্যৎ উচ্চাকাঙ্খার বাজির ঘোড়া হচ্ছে এসএলএস রকেট আর ওরিয়ন স্পেসক্র্যাফট। আর্টেমিস প্রকল্পের শেষ লক্ষ্য মানব নভোচারীদের রেড প্ল্যানেট মঙ্গলে নেওয়ার পথ সুগম করা।

তারও আগে, চাঁদে মানব নভোচারীদের অবতরণ করাতে চায় নাসা, চাঁদের কক্ষপথে নতুন স্পেসস্টেশন নির্মাণের পরিকল্পনাও করেছে সংস্থাটি। আর এই লক্ষ্যগুলো অর্জনের অতিগুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার নতুন রকেট ও স্পেসক্র্যাফট। আর এদের কার্যক্ষমতা যাচাইয়ের প্রথম মিশন হচ্ছে ‘আর্টেমিস ওয়ান’।

এসএলএস রকেটে চড়ে ওরিয়ন স্পেসক্র্যাফটের মহাকাশে যাওয়ার কথা ছিল ২৯ অগাস্টে, কিন্তু শুরুতেই হোঁচট খেয়েছে সে উদ্যোগ। তরল জ্বালানীর ট্যাংকে ফাঁটল দেখা দেওয়ায় এবং রকেটের ইঞ্জিনের তাপমাত্রা কাঙ্খিত পর্যায়ে নামিয়ে আনতে না পারায় সেদিন লঞ্চ বাতিল করে নাসা।

এরপর ৩ সেপ্টেম্বর আবার চেষ্টা করে সংস্থাটি। সেদিন সরবরাহ লাইনের সংযোগ স্থলে ত্রুটির কারণে বেরিয়ে যাচ্ছিল তরল হাইড্রোজেন। টানা কয়েক ঘণ্টা ধরে সমাধানের চেষ্টা করে ব্যর্থ হন নাসার প্রকৌশলীরা; আবারও আর্টেমিস ওয়ান উৎক্ষেপণ বাতিল করতে বাধ্য হয় নাসা। 

ভার্জ জানিয়েছে, এবার জ্বালারীর সরবরাহ নিয়ে সম্ভাব্য জটিলতা এড়াতে ২১ সেপ্টেম্বর থেকেই পুরো সিস্টেম পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখবেন নাসার প্রকৌশলীরা।  

নাসার দেওয়া তথ্য বলছে, ২৭ সেপ্টেম্বর আর্টেমিস ওয়ান উৎক্ষেপণের জন্য ৭০ মিনিটের ‘লঞ্চ উইন্ডো’ পাবে সংস্থাটি। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবং নতুন কোনো যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা না দিলে আর্টেমিস ওয়ান চাঁদের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবে ফ্লোরিডার স্থানীয় সময় সকাল ১১টা ৩৭মিনিট নাগাদ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক