এআই লিখে দেবে আপনার ইমেইল, কিন্তু কীভাবে?

এরইমধ্যে আপনি ওয়ার্কস্পেইস ল্যাব-এ সাইন আপ করে থাকলে সরাসরি জিমেইল অ্যাকাউন্টে লগইন করে হেল্প মি রাইট ফিচারটি ব্যবহার করতে পারবেন।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 June 2023, 11:23 AM
Updated : 18 June 2023, 11:23 AM

নিত্যব্যবহার্য টুলগুলোর সঙ্গে প্রতিদিনই কোনো না কোনোভাবে যুক্ত হচ্ছে এআই। চ্যাটজিপিটির মতো জেনারেটিভ এআই প্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রবন্ধ, চিঠি, রেজিউমে তৈরি এখন আর নতুন কিছু নয়। নতুন খবর নিয়ে এসেছে জিমেইল। এবার ইমেইল লেখায় এআই নিয়ে এল গুগল।

মে মাসে গুগলের বার্ষিক আই/ও সম্মেলনে সিইও সুন্দার পিচাই ‘হেল্প মি রাইট’ নামে একটি নতুন জেনারেটিভ এআই প্রযুক্তির ঘোষণা দেন, যার মাধ্যমে নিউ মেসেজ উইন্ডোতে অল্প কিছু নির্দেশনা বা ‘প্রম্পট’ দিয়েই গোটা ইমেইলটি লিখিয়ে নেওয়া যাবে।

যার অর্থ অন্য একটি অ্যাপ বা ওয়েবসাইটে গিয়ে প্রম্পট দিয়ে লিখিয়ে নেওয়া মেসেজটি এখন আর কপি করে মেসেজ উইন্ডোতে পেস্ট করতে হবে না, সরাসরি মেসেজ উইন্ডোতেই লিখে দেবে এআই টুলটি।

কিন্তু কীভাবে ব্যবহার করবেন ‘হেল্প মি রাইট’?

১। সাইন আপ করতে হবে গুগল ওয়ার্কস্পেইস ল্যাবস-এ

ওয়ার্কস্পেইস ল্যাব প্রোগ্রামে নিবন্ধিত গ্রাহকরা অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস প্ল্যাটফর্মে হেল্প মি রাইট ফিচারটি ব্যবহার করতে পারবেন।

আর সাইন আপ করা না থাকলে ল্যাবস ডট উইথগুগল ডটকম এ ক্লিক করে গুগল ওয়ার্কস্পেইসের অপেক্ষমান তালিকায় নাম তুলতে হবে। আর যদি কোনো অপেক্ষমান তালিকা না থাকে তাহলে আপনি সরাসরি ব্যবহার করতে পারবেন।

এরইমধ্যে আপনি ওয়ার্কস্পেইস ল্যাব-এ সাইন আপ করে থাকলে সরাসরি জিমেইল অ্যাকাউন্টে লগইন করে হেল্প মি রাইট ফিচারটি ব্যবহার করতে পারবেন। 

২। জিমেইল অ্যাপ-এ গিয়ে খুলুন নিউ মেসেজ

আপনার মোবাইলের জিমেইল অ্যাপে গিয়ে নিউ মেসেজ বাটন ক্লিক করুন। 

৩। ‘হেল্প মি রাইট’ ট্যাপ করুন

স্ক্রিনের নিচে ডান পাশে ‘হেল্প মি রাইট’ বাটনটি ক্লিক করলেই আপনার ইলেইল লিখে দেওয়ার জন্য জেনারেটিভ এআই টুলটি সামনে এসে হাজির হবে।

৪। ‘নির্দেশনা’ দিন

এ পার্যায়ে এআই বটটিকে আপনার কাঙ্খিত মেইলের নির্দেশনা/প্রম্পট দিন, যার আকার খুব বড় হওয়ার প্রয়োজন নেই। তবে তারিখ, অর্থের পরিমাণ, ঠিকানা, প্রতিষ্ঠানের নামের মতো প্রাসঙ্গিক তথ্য দিলে ভালো ফল পাওয়া সম্ভব।

৫। আপনার অভিজ্ঞতা জানান বা নতুন করে লিখুন (ঐচ্ছিক)

এআই বটটির তৈরি করা মেইল আপনার চাওয়া অনুসারে কেমন হলো এবং আপনার কাজে লাগলো কি না সেটি আপনি থাম্ব আপ কিংবা থাম্ব ডাউন চিহ্নের দ্বারা জানাতে পারবেন। যাদি আপনি লেখাটিকে বদলাতে চান তাহলে স্ক্রিনে গোলাকার ‘রিজেনারেট’ বাটনটি ট্যাপ করে নতুন করে লিখিয়ে নিতে পারেন।

নইলে পরের ধাপে যেতে পারেন।

৬। খসড়াটি যাচাই করে আপনার মেইলটি পাঠিয়ে দিন

জিমেইলের লিখে দেওয়া খসড়াটির ভাষা আপনি খানিকটা বদলে নিতে পারেন, প্রয়োজন মনে করলে ভাষাগত অলংকার যোগ করতে পারেন বা বদলে নিতে পারেন আরও ব্যক্তিগত আলাপের ঢঙে।

সম্পাদনা শেষ হলে সেটিকে পাঠানোর জন্য মেইলের বিষয়বস্তু এবং প্রাপকের ঠিকানা আপনার নিজেকে দিতে হবে, কারণ এ দুটো অংশে হেল্প মি রাইট হাত দেবে না।