ক্যান্সারকে হারিয়ে মাঠে ফেরার আনন্দ হলারের

প্রীতি ম্যাচ দিয়ে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের হয়ে অনানুষ্ঠানিক অভিষেক হয়েছে এই ফরোয়ার্ডের।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Jan 2023, 02:42 PM
Updated : 11 Jan 2023, 02:42 PM

বরুশিয়া ডর্টমুন্ডে যোগ দেওয়ার পর পরই জানা গেল ক্যান্সার বাসা বেঁধেছে শরীরে। চরম অনিশ্চয়তা নিয়ে লম্বা সময়ের জন্য সেবাস্টিয়ান হলার ছিটকে গেলেন ফুটবল থেকে। প্রাণঘাতী ক্যান্সারকে পেছনে ফেলে সেই হলার ফিরলেন ফুটবলের সবুজ আঙিনায়। উচ্ছ্বাস তো বাঁধনহারা হবেই।

গত মৌসুমে আয়াক্সের হয়ে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৩৪ গোল করা হলার গ্রীষ্মের দলবদলে যোগ দেন ডর্টমুন্ডে। নতুন ক্লাবের হয়ে নতুন স্বপ্ন নিয়ে শুরুর অপেক্ষায় ছিলেন। কিন্তু প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতির সময় তার ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি জানা যায়। এরপর শুরু হয় জীবন যুদ্ধে জয়ী হওয়ার সংগ্রাম।

টেস্টিকুলার ক্যান্সারের জন্য দুটি অস্ত্রোপচার এবং চার রাউন্ড কেমোথেরাপির পর ভালোবোধ করতে থাকেন হলার। চলতি মাসের শুরুতে ডর্টমুন্ডের ডেরায় ফিরেন শুরু করেন প্রস্তুতি। গুণতে থাকেন ফুটবলে ফেরার অপেক্ষার প্রহর। কোত দি ভোয়ার এই ফরোয়ার্ডের  সে ক্ষণ গোনাও শেষ হয় গত মঙ্গলবার ফরচুনা ডুসেলডর্ফের বিপক্ষের প্রীতি ম্যাচে।

এই অনানুষ্ঠানিক অভিষেক ম্যাচে হলার খেলতে নামেন দ্বিতীয়ার্ধে। তার দল জেতে ৫-১ গোলে। তবে এই জয়ের চেয়ে যেন ২৮ বছর বয়সী এই ফুটবলারের সব অনিশ্চয়তার মেঘ সরিয়ে মাঠে ফেরার আনন্দই বেশি।

“মাঠে এটি একটি দুর্দান্ত মুহূর্ত ছিল। আমি অনেক সাধুবাদ এবং অনেক বার্তাও পেয়েছি। আমি আমার সতীর্থ এবং প্রতিপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি। এই সমর্থন পারফরম্যান্সে প্রভাব ফেলেছে।”

ছয় মাস বিরতির পর মাঠে ফেরার স্বস্তি, তৃপ্তি হলারের চোখে-মুখে নিয়ে জানালেন খেলার আনন্দময় অনুভূতিটা এতদিন খুব মিস করছিলেন তিনি।

“আমি সত্যিই খেলার জন্য উন্মুখ ছিলাম, কারণ আমি এখানে যোগ দেওয়ার পর সরাসরি তা করতে পারিনি। ব্যায়াম করা এবং জঙ্গলের মধ্য দিয়ে দৌড়ানোর চেয়ে খেলতে পারা অনেক ভালো অনুভূতি, আমি এই অনুভূতি মিস করেছি।”

বিরতির পর আগামী ২২ জানুয়ারি বুন্ডেসলিগার ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফিরবে ডর্টমুন্ড। দুঃসময় পেছনে ফেলে আসা হলারও মুখিয়ে আছেন নতুন শুরুর।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক