নাজমুল-সালাউদ্দিন সাক্ষাতে ফুটবলের ‘সমস্যা’ নিয়ে আলোচনা

হৃদযন্ত্রে অস্ত্রোপচারের পর চিকিৎসাধীন বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনের সঙ্গে দেখা করতে তার বাসায় গিয়েছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রী নাজমুল হাসান পাপন।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 Feb 2024, 10:03 AM
Updated : 6 Feb 2024, 10:03 AM

হৃদযন্ত্রে অস্ত্রোপচারের পর চিকিৎসকের পরামর্শে বর্তমানে বাসায় আছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন। তার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রী নাজমুল হাসান পাপন। কুশলাদি বিনিময়ের ফাঁকে ফুটবলের চলমান সমস্যা উত্তরণের বিষয়েও দুজনের মধ্যে হয়েছে আলোচনা। 

গত ডিসেম্বরে অস্ত্রোপচারের পর থেকে চিকিৎসকের পরামর্শে বারিধারার বাসায় বিশ্রামে আছেন সালাউদ্দিন। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নেওয়ার পর ফেডারেশনগুলোর কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করলেও বাফুফে সভাপতির সাথে এই প্রথম দেখা হলো নাজমুলের। 

এর আগে বাফুফের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিলেন মন্ত্রী। দেশের ফুটবলের নিয়ন্তা সংস্থার পক্ষ থেকে আর্থিক সংকটের কথা তুলে ধরা হয়েছিল। সে বিষয় নিয়েও সভাপতির সঙ্গে আলোচনা হয়েছে বলে জানান নাজমুল।

“আমাদের ফেডারেশনের সংখ্যা ৫৫ টির মতো। অনেক ফেডারেশন আছে ৯০ শতাংশ মানুষ হয়ত তাদের সম্পর্কে জানেও না। ফলে ঐ সকল খেলা অনেক চেষ্টার পরেও একটা পর্যায়ে যাওয়া সম্ভব নয়। তবে ফুটবল সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা। এটা নিঃসন্দেহে এবং এর গুরুত্বও অনেক।”

“(ফুটবলের) কিছু সমস্যা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। উনি সুস্থ হয়ে একবারে ফিরলে দেখব। এর মধ্যেও বলেছি, যদি সম্ভব হয় কিছু কাগজপত্র পাঠাতে। দেখা যাক, কী করা যায়। মূল সমস্যা হচ্ছে, খেলার মাঠ নেই। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম লম্বা সময় ধরে বন্ধ হয়ে আছে। এটা তো অস্বীকার করার কোন সুযোগ নেই। আমি পরশু বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম দেখতে যাচ্ছি। আমি চেষ্টা করব নতুন শিডিউল অনুযায়ী বাকি কাজগুলো শেষ করতে। সে সঙ্গে ফুটবলের জন্য খেলার কোনো জায়গা বের করা যায় কি না— সেটা আমি দেখব।”

গত বছর এপ্রিলে আর্থিক সংকটের কারণে বাংলাদেশ জাতীয় নারী ফুটবল দল মিয়ানমার সফরে যেতে না পারার ইস্যুতে সে সময় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুলের সঙ্গে বাহাস হয়েছিল সালাউদ্দিনের। সে তিক্ততা মনে রাখেননি বলেও জানালেন মন্ত্রী।

“ছোটবেলায় মাঠেই যেতাম উনার খেলা দেখতে। উনার মতো কিংবদন্তি ফুটবলার তো দেশে নেই। অনেক কথায় উনি হার্ট (আহত) হতে পারেন, আমি হতে পারি। একটা প্রতিক্রিয়া দিলাম। সেটা ওখানেই শেষ, কিন্তু সম্পর্ক তো শেষ হবে না।” 

বৈঠক শেষে চিকিৎসকের পরামর্শের কারণে গণমাধ্যমের সামনে আসেননি সালাউদ্দিন। তবে বাফুফে সভাপতি ভালো আছেন বলে জানালেন নাজমুল। 

“আমি তো আর ডাক্তার না। দেখে ভালো লাগল, উনি হাঁটাচলা করছেন। সুস্থই লেগেছে। তবে এটা সঠিক যে বড় অপারেশন হয়েছে। রিহ্যাব দরকার।”