বর্ণবাদের শিকার ভিনিসিউস, নেইমার বললেন, ‘নাচতে থাকো’

টেলিভিশনে লাইভ অনুষ্ঠানে ভিনিসিউসকে বানরের সঙ্গে তুলনা করেন স্প্যানিশ ফুটবল এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি পেদ্রো ব্রাভো।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 Sept 2022, 03:09 PM
Updated : 16 Sept 2022, 03:09 PM

গোল উদযাপনের জন্য বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার হয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদ ফরোয়ার্ড ভিনিসিউস জুনিয়র। কঠিন সময়ে জাতীয় দলের সতীর্থের পাশে দাঁড়িয়েছেন নেইমার। ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন ব্রাজিল দলে তার অন্য সতীর্থরা।   

লা লিগায় গত রোববার মায়োর্কার বিপক্ষে রিয়ালের ৪-১ ব্যবধানে জয়ের ম্যাচে গোল করার পর নেচে উদযাপন করেন ভিনিসিউস। স্প্যানিশ ফুটবল এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি পেদ্রো ব্রাভো শুক্রবার টেলিভিশনে লাইভ অনুষ্ঠানে তরুণ এই ফরোয়ার্ডকে বানরের সঙ্গে তুলনা করেন। 

মাদ্রিদ ডার্বিতে আগামী রোববার লিগে আতলেতিকো মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে রিয়াল। এই ম্যাচ সামনে রেখে আতলেতিকোর মিডফিল্ডার কোকে বলেছিলেন, ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানোয় ভিনিসিউস ওভাবে নেচে উদযাপন করলে ‘সমস্যা হবে।’ এরপরই শুক্রবার ‘এল চিরিনগিতো’ টিভি অনুষ্ঠানে ওই মন্তব্য করেন ব্রাভো।   

“প্রতিপক্ষকে আপনার (ভিনিসিউস) সম্মান করতে হবে। আপনি যদি সাম্বা নাচতে চান, তাহলে ব্রাজিলের সাম্বাড্রোমে যান। স্পেনে, আপনাকে প্রতিপক্ষকে সম্মান করতে হবে এবং বানরের মতো আচরণ বন্ধ করতে হবে।” 

মুহূর্তেই তার মন্তব্যের ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। আসতে থাকে নানা প্রতিক্রিয়া। ব্রাভো অবশ্য দ্রুতই ক্ষমা চান টুইটারে। তিনি দাবি করেন, তার মন্তব্যটি ছিল ‘রূপক অর্থে।’ 

“আমি স্পষ্ট করতে চাই যে, ‘বানর’ মন্তব্যটি, যা আমি ভিনিসিউসের গোল উদযাপনের নাচের জন্য অপব্যবহার করেছি, তা ছিল রূপক অর্থে। যেহেতু কাউকে আঘাত করা আমার উদ্দেশ্য ছিল না, তাই আমি আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী। আমি দুঃখিত।” 

ব্রাভোর বর্ণবাদী মন্তব্যের পর ভিনিসিউসকে উদ্দেশ্য করে পিএসজি তারকা নেইমার টুইট করেন, ‘ভিনি, নাচতে থাকো।’   

ভিনিসিউসের প্রতি নিজের সমর্থন জানান জিরোনার ২০ বছর বয়সী ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার রেইনিয়ার জেসুস। 

“আমরা তোমার সঙ্গে আছি ভিনি, আমি তোমাকে ভালোবাসি। বর্ণবাদীদের জায়গা হলো জেলখানা। এই লোকটি বিরক্তকর।” 

ভিনিসিউস নিজে নেইমার ও লুকাস পাকেতার সঙ্গে ব্রাজিল জাতীয় দলের হয়ে গোল উদযাপনে তাদের নাচের একটি ছবি পোস্ট করেন টুইটারে। 

আরেক ব্রাজিলিয়ান, নিউক্যাসল ইউনাইটেডের মিডফিল্ডার ব্রুনো গিমারেস টুইট করে ব্রাভোকে গ্রেপ্তারের দাবিও জানান। 

“এই নির্বোধ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা দরকার! কোনো অজুহাত নেই। যদি কোনো ব্যক্তি লাইভ টিভিতে এসব বলে, তাহলে কল্পনা করুন, পর্দার আড়ালে সে কী বলতে পারে। এই লোকটিকে জেলে না দেওয়াটা অকল্পনীয়।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক