‘অবশ্যই দেখাতে হবে আমরা বিশ্বসেরা’, ক্লাব বিশ্বকাপ নিয়ে বললেন রদ্রি

ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা জয় অভাবনীয়, অভূতপূর্ব ব্যাপার হবে বলে মনে করেন ম্যানচেস্টার সিটির এই মিডফিল্ডার।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Nov 2023, 10:57 AM
Updated : 24 Nov 2023, 10:57 AM

ঐতিহাসিক ট্রেবল জয়ের তৃপ্তি সঙ্গী ম্যানচেস্টার সিটির, কিন্তু ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপার স্বাদ এখনও পাওয়া হয়নি তাদের। সামনেই সেই হাতছানি। ইংলিশ দলটির মিডফিল্ডার রদ্রিও পাখির চোখ করেছেন জেদ্দার আসরকে। মহাদেশীয় চ্যাম্পিয়ন ক্লাবগুলো নিয়ে হওয়া প্রতিযোগিতায় নিজেদের শ্রেষ্ঠত্বের পতাকা তুলে ধরতে মরিয়া তিনি।

একই মনোভাব পেপ গুয়ার্দিওলারও। ‘যদি আমরা জিতি, অমর হয়ে যাব’, ২০০৯ সালে বার্সেলোনাকে এই বাক্যেই তাতিয়ে দিয়েছিলেন দলটির সেসময়কার কোচ গুয়ার্দিওলা। বর্তমানে তিনি সিটির দায়িত্বে। এই স্প্যানিশ কোচের হাত ধরেই প্রিমিয়ার লিগের দ্বিতীয় দল হিসেবে গত মৌসুমে ট্রেবল জিতেছে সিটি। চলতি মৌসুমের শুরুতে জিতেছে উয়েফা সুপার কাপ।

এবার ক্লাব বিশ্বকাপের অধরা ট্রফি জয়ের সুযোগ তাদের সামনে। হয়তো ওই মন্ত্রেই রদ্রিদের উদ্বুদ্ধ করছেন কোচ।

ফিফা ডটকমের সঙ্গে আলাপচারিতায় সিটির মাঝমাঠের ‘জেনারেল’ রদ্রির কণ্ঠেও ক্লাব বিশ্বকাপ জয়ের তাড়না স্পষ্ট ফুটে উঠল।

“(এটা জিতলে) বলতে পারব, আমি সবকিছু জিতেছি এবং এটাই ফুটবলের সবচেয়ে অভূতপূর্ব এবং দুর্দান্ত কিছু, যেটা আমি অর্জন করতে পারি।”

“সিটির ইতিহাসে এই প্রথম আমরা এই প্রতিযোগিতায় খেলছি। আপনারা সবসময় ভাবেন, ফুটবলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ বিশ্বকাপ, আর এই টুর্নামেন্টটা ক্লাব ফুটবলের বিশ্বকাপ। আমি মনে করি, ক্যারিয়ারে জেতার মতো গুরুত্বপূর্ণ ট্রফিগুলোর একটি এটি।”

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে চেলসি, লিভারপুল, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ক্লাব বিশ্বকাপ জয়ের অভিজ্ঞতা হয়েছে। এই তালিকায় এবার নাম লেখানোর পালা সিটির।

ট্রেবল জয়ের পাল্লায় মাপলে সিটির জন্য আগামী ১২ ডিসেম্বরে জেদ্দায় শুরু হতে যাওয়া প্রতিযোগিতায় বাজিমাত করা কঠিন হবে না। কিন্তু রদ্রি সতর্ক।

“প্রতিটি বছর আরও কঠিন হয়ে উঠছে। আমরা কখনোই বাকি দলগুলোকে খাটো করে দেখি না। তারাও শক্তিশালী দল, তাদের মহাদেশের চ্যাম্পিয়ন, তাই তারাও অনেক কৃতিত্বের দাবিদার।”

“আমি মনে করি, এই টুর্নামেন্ট খুবই প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে এবং প্রত্যাশা করি, খেলার মানও হবে অনেক উচ্চ পর্যায়ের। বড় দলগুলো খেলবে এই প্রতিযোগিতায়।”

রদ্রি প্রতিপক্ষকে যতই সমীহ করুন না কেন, সত্যি বলতে টুর্নামেন্টে সবচেয়ে ফেভারিট তার দল সিটিই। ফুটবলীয় মেধা, দক্ষতা দিয়ে বারবার নিজেদের সামর্থ্য প্রমাণ করে যাচ্ছে তারা।

তারকার কমতিও নেই দলটিতে। আর্লিং হলান্ড, ফিল ফোডেনের মতো আরও অনেকে আছেন সিটির তাঁবুতে। রদ্রিও জানালেন, তাদের ক্ষুধা কমেনি একটুও।

“আমি এখন শুধু চাই, ওই মুহূর্তটা আসুক, সৌদি আরবে আমরা যাই, অন্য দলগুলোর মুখোমুখি হই এবং ট্রফির জন্য লড়াই করি। যদি জিততে পারি, তাহলে সেটা হবে ক্রিসমাসের সেরা উপহার।”