ভিয়ারিয়ালের মাঠে রিয়ালের হোঁচট

চোটজর্জর দল নিয়েও রিয়াল মাদ্রিদের শুরুটা ছিল দুর্দান্ত। আশা জাগিয়েছিল জয়ে ফেরার। কিন্তু আক্রমণাত্মক ফুটবলে পাল্টা জবাব দেওয়া ভিয়ারিয়াল রুখে দিল স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নদের।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 21 Nov 2020, 05:10 PM
Updated : 21 Nov 2020, 05:58 PM

ভিয়ারিয়ালের মাঠে শনিবার ১-১ গোলে ড্র হয়েছে লা লিগার ম্যাচটি। শুরুতে মারিয়ানো দিয়াস রিয়ালকে এগিয়ে নেওয়ার পর সমতা আনেন জেরার্দ মোরেনো।

লিগে টানা দুই ম্যাচে জয়শূন্য থাকল জিনেদিন জিদানের দল। আগের ম্যাচে ভালেন্সিয়ার বিপক্ষে ৪-১ গোলে হারে তারা।

ভিয়ারিয়ালের মাঠে এই নিয়ে টানা চার ম্যাচে পয়েন্ট হারাল রিয়াল। আগের তিন ম্যাচ ড্র হয়েছে ২-২ গোলে।

চোট ও করোনাভাইরাস সমস্যায় জর্জরিত রিয়াল এই ম্যাচে পায়নি সের্হিও রামোস, করিম বেনজেমা, কাসেমিরোসহ বেশ কয়েকজনকে। তাদের অভাব ভালোভাবেই টের পেয়েছে দলটি। যদিও শুরুটা দিচ্ছিল অন্য কিছুর আভাস।

দ্বিতীয় মিনিটেই এগিয়ে যায় রিয়াল। চোট কাটিয়ে ফেরা দানি কারভাহালের ক্রসে চমৎকার হেডে জাল খুঁজে নেন মারিয়ানো। ২০১৯ সালের মে মাসের পর এই প্রথম শুরুর একাদশে সুযোগ পান ২৭ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড। ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষেই ৩-২ ব্যবধানে জেতা সেই ম্যাচে জোড়া গোল করেছিলেন তিনি।

শুরুতেই গোল খেয়ে এলোমেলো হয়ে যাওয়া ভিয়ারিয়াল ধীরে ধীরে নিজেদের গুছিয়ে নেয়। আক্রমণ-প্রতি আক্রমণে জমে ওঠে ম্যাচ।

২১তম মিনিটে মোরেনোর ক্রসে খুব কাছ থেকে হেড লক্ষ্যে রাখতে পারেননি দানি পারেহো। কেউ ছিলেন না তার আশেপাশে, সময়ও পেয়েছিলেন যথেষ্ট। তবুও থিবো কর্তোয়ার পরীক্ষা নিতে পারেননি অভিজ্ঞ এই মিডফিল্ডার।

দুই দল আক্রমণাত্মক ফুটবল খেললেও প্রথমার্ধের বাকি সময়ে ভালো সুযোগ তৈরি করতে পারেননি কোনো দলই। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেও ছিল একই চিত্র।

এরই মধ্যে ৫৭তম মিনিটে সুবর্ণ সুযোগ পেয়ে যান মোরেনো। খুব কাছ থেকে আড়াআড়ি শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি এই স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড।

৭০তম মিনিটে আবার সুযোগ আসে পারেহোর সামনে। ডি বক্সের মাথা থেকে জোরালো শট নেন অভিজ্ঞ স্প্যানিশ মিডফিল্ডার। কিন্তু এবারও লক্ষ্যে থাকেনি তার চেষ্টা।

তিন মিনিট পর ডি বক্সের বাইরে থেকে লুকাস ভাসকেসের শট একজনের গায়ে লেগে বার ঘেঁষে বাইরে চলে যায়।

৭৬তম মিনিটে মোরেনোর সফল স্পট কিকে সমতা আনে ভিয়ারিয়াল। সামুয়েল চুকওয়িজিকে কর্তোয়া ফাউল করায় পেনাল্টি পেয়েছিল স্বাগতিকরা। লক্ষ্যে এটাই তাদের প্রথম শট। 

আগের ম্যাচে রিয়ালের বিপক্ষে তিনটি পেনাল্টি পেয়েছিল ভালেন্সিয়া।

৮২তম মিনিটে পিছিয়ে পড়ার হাত থেকে রিয়ালকে বাঁচান রাফায়েল ভারানে। পেছন থেকে এসে ব্লক করেন মোরেনোর শট। পরের মিনিটে মোরেনোর আরেকটি শট ঠেকিয়ে দেন নাচো ফের্নান্দেস।

৯ ম্যাচে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরেই রয়েছে রিয়াল। এক ম্যাচ বেশি খেলা ভিয়ারিয়াল ১৯ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে দুই নম্বরে। ৯ ম্যাচে ২০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রিয়াল সোসিয়েদাদ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক