ভুটানে মুকুট ধরে রাখার লক্ষ্য মেয়েদের

গতবার সাফল্য এসেছিল নিজেদের মাঠে। এবার বাংলাদেশের সামনে ভুটানের মাঠে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের মুকুট ধরে রাখার চ্যালেঞ্জ। কোচ গোলাম রব্বানী, অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা, সহঅধিনায়ক আঁখি খাতুন আত্মবিশ্বাসী কণ্ঠে জানালেন চ্যালেঞ্জ জয়ের প্রত্যয়।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 August 2018, 02:05 PM
Updated : 4 August 2018, 02:05 PM

আগামী বৃহস্পতিবার ভুটানের থিম্পুতে শুরু হবে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের দ্বিতীয় আসর। উদ্বোধনী দিনে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে মুকুট ধরে রাখার মিশন শুরু করবে বাংলাদেশ। ‘বি’ গ্রুপের অপর দল নেপাল।

আগামী সোমবার ভুটানের উদ্দেশে রওনা দেবে দল। শনিবার বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সংবাদ সম্মেলনে মুকুট ধরে রাখার লক্ষ্য জানান কোচ, অধিনায়ক।

গতবার ভারতকে ১-০ গোলে হারিয়ে প্রথম আসরের শিরোপা জিতেছিলেন মান্ডা-আঁখিরা। মাঝের সময়টাতে দল অনুশীলনের মধ্যে থাকায় আত্মবিশ্বাস কোচ রব্বানী।

“এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো আমরা সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপে খেলতে যাচ্ছি। প্রথমবার ভালো খেলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলাম। মেয়েরা লম্বা সময় ধরে অনুশীলনের মধ্যে ছিল। তারা কঠোর পরিশ্রম করেছে। সাফের জন্য দল প্রস্তুত। সৃষ্টিকর্তা সহায় থাকলে এবারও দল ভালো কিছু করবে।”

ঢাকার অনুশীলন মেয়েরা করেছে টার্ফে। তবে ভুটানের খেলতে হবে ঘাসের মাঠে। মাঠের পার্থক্য নিয়ে অবশ্য ভাবতে চাইছেন না কোচ।

“পুরো দলের টেকনিক্যাল-ট্যাকটিক্যাল থেকে শুরু করে মানসিক ও সোশ্যাল-এই চারটি বিষয় নিয়ে আমরা দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছি। ভুটানে নিজেদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলাই আমাদের মূল লক্ষ্য থাকবে।”

বর্তমান দলে থাকা ১৮ জনের মধ্যে ১৫ জনেরই অভিজ্ঞতা আছে গত আসরে খেলার। ইলা মনি, শাহেদা আক্তার রিপা, রেহেনা আক্তার, রোজিনা আক্তার ও নোশন জাহান-এই পাঁচজন নতুন। তবে নতুনদেরও অভিজ্ঞতা হয়েছে হংকংয়ের জকি কাপে খেলার। সতীর্থদের নিয়ে খুশি অধিনায়ক মাণ্ডাও জানালেন মুকুট ধরে রাখার আশাবাদ।

“আগেও আমরা অনূর্ধ্ব-১৫ সাফের চ্যাম্পিয়ন হয়েছি। গতবারও লক্ষ্য ছিল চ্যাম্পিয়ন হওয়া এবং আমরা সফল হয়েছিলাম। এরপর কোচ বলেছিলেন আমাদের সামনে অনেক খেলা আছে। সে অনুযায়ী প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। দেশবাসীর কাছে দোয়া চাই-যেনো ভালো ফল নিয়ে ফিরতে পারি।”

গত আসরে সেরা খেলোয়াড় হওয়া আঁখির লক্ষ্য রক্ষণ সামলে সুযোগ পেলে গোলও করা। গতবার দুই গোল করেছিলেন এই ডিফেন্ডার।

“ভুটানে ভালো খেলাই আমাদের লক্ষ্য। আমি একজন ডিফেন্ডার। সবার আগে আমার দায়িত্ব ডিফেন্স সামলানো। এরপর গোল করার চিন্তা করব। ভালো খেলে ট্রফি জেতার ইচ্ছাই আমাদের।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক