গোলের সুযোগ নষ্টে হতাশ এনরিকে

ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় ছিল, ছিল সমর্থকদের পাশে নিয়ে নিজেদের মাঠে খেলার আত্মবিশ্বাস। কিন্তু প্রতিপক্ষের গোলমুখের সামনে মেসি-নেইমার-সুয়ারেসদের সুযোগ নষ্টের মহড়ায় আবার ইতিহাস গড়া হলো না। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার-ফাইনাল থেকে টানা দ্বিতীয়বারের মতো ছিটকে গেল বার্সেলোনা। ম্যাচ শেষের প্রতিক্রিয়ায় কোচ লুইস এনরিকের কণ্ঠে তাই হতাশার সুর।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 April 2017, 07:01 AM
Updated : 20 April 2017, 04:15 PM

গত বুধবার কাম্প নউতে ইউভেন্তুসের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে বার্সেলোনা। প্রথম লেগে নিজেদের মাঠে ৩-০ ব্যবধানে জেতা ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা উঠেছে সেরা চারে।

চলতি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মাত্র দুটি গোল খাওয়া ইউভেন্তুস কাম্প নউতেও রক্ষণ দেয়াল জমাট রেখেছিল। বিশ্বের অন্যতম সেরা আক্রমণভাগ মেসি-সুয়ারেস-নেইমারে গড়া ‘এমএসএন’ ত্রয়ীর প্রচেষ্টা সে দেয়ালে বাধা পেয়ে ফিরে এসেছে বারবার। পোস্টের নিচে থাকা জানলুইজি বুফ্ফনকে তেমন কোনো পরীক্ষা নিতে পারেনি মেসিরা। প্রতিপক্ষের গোলের সামনে গিয়ে শিষ্যরা সবকিছু গুলিয়ে ফেলায় বেশি হতাশ এনরিকে।

“ইউভেন্তুস অনেক সুযোগ দিয়েছিল।… আমরা গোল করার সুযোগ পেয়েছিলাম। আরেকটু বেশি কার্যকারিতা দিয়ে আমাদের একটা গোল পাওয়া উচিত ছিল। আমরা ১৩, ১৪টার মতো শট নিয়েছি কিন্তু কোনোটাই লক্ষ্যে ছিল না।”

সেরা ষোলোয় ইতিহাস গড়েছিল বার্সেলোনা। পিএসজির মাঠে ৪-০ গোলে হারার পর কাম্প নউতে জিতেছিল ৬-১ ব্যবধানে। ইউভেন্তুসের বিপক্ষে প্রত্যাবর্তনের দারুণ গল্পটা লিখতে পারেননি মেসিরা। এনরিকের মনে হচ্ছে তুরিনের হারেই কোয়ার্টার-ফাইনাল থেকে বিদায় নিতে হয়েছে তাদের।

“এটা তুরিনে হারিয়েছিল। সেখানকার প্রথমার্ধ আমি চিরদিন মনে রাখব...এটা কষ্টের, আমরা আমাদের পর্যায়ে ছিল না। এ ধরনের প্রতিযোগিতায় আপনাকে তার মূল্য দিতে হবে। তাই আমি এটা অনেকদিন মনে রাখব।”

ম্যাচের আগে সমর্থকদের এনরিকে আহ্বান জানিয়েছিলেন, তারা যেন আগেভাগে চলে না যায়। গুটিকয়েক চলে গেলেও বুধবার ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন গুঁড়িয়ে যাওয়া ম্যাচের শেষ পর্যন্ত সিংহভাগ সমর্থক ছিলেন দলের পাশে। কোচ তাদের প্রশংসা করতে ভোলেননি। প্রাপ্য প্রশংসা দিয়েছেন ইউভেন্তুসকেও।

“ইউভেন্তুস এগিয়ে যাওয়ার যোগ্য। তারা একটা দল, যারা নিখুঁতভাবে রক্ষণ সামলাতে জানে। আমরা গোলের অনেক সুযোগ তৈরি করেছিলাম কিন্তু পারিনি। শেষ মিনিট পর্যন্ত আমরা চেষ্টা করেছিলাম।”

আগামী রোববার লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে আরেকটি বাঁচা-মরার ম্যাচ আছে বার্সেলোনার। ইউভেন্তুস ধাক্কা সামলে এখন ক্লাসিকো নিয়ে ভাবতে শুরু করেছেন এনরিকে।

“এমন একটা হারের পর নিজেকে জাগিয়ে তোলা কঠিন কিন্তু এর জন্য সবচেয়ে ভালো অনুপ্রেরণাও আছে। আমাদের চিরশত্রুর মাঠে খেলতে যাচ্ছি। যাওয়ার জন্য সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ের চেয়ে ভালো জায়গা নেই।”

“বরাবরের মতোই এটা হবে বিশেষ কিছু এবং দারুণ উদ্দীপনার। টেবিলে শীর্ষে থাকা দল এবং আমাদের সরাসরি প্রতিপক্ষের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। আমাদের প্রস্তুত হতে হবে; লড়াই করতে হবে এবং আমি নিশ্চিত, আমরা সেটা পারব।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক