আগেই মাঠ ছেড়ে যাওয়ায় ক্ষমা চাইলেন সৌদি আরবের কোচ

দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে টাইব্রেকার শেষ হওয়ার আগেই মাঠ ছেড়ে যাওয়ায় সমালোচনার মুখে পড়েন সৌদি আরবের কোচ রবের্তো মানচিনি।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 Jan 2024, 07:22 AM
Updated : 31 Jan 2024, 07:22 AM

আব্দুলরাহমান ঘারিবের শট ঠেকিয়ে তখন উল্লাস করছেন দক্ষিণ কোরিয়ার গোলরক্ষক জো হিয়ান-উ। মুহূর্তখানেক পর টিভি ক্যামেরায় দেখা গেল, ডাগআউট থেকে বেরিয়ে গটগট করে চলে যাচ্ছেন সৌদি আরবের কোচ রবের্তো মানচিনি। তার দলের দুটি শট ততক্ষণে আটকা পড়েছে প্রতিপক্ষের গোলকিপারের দেয়ালে। ম্যাচের ফলও অনেকটাই তখন অনুমেয়। তবে সমস্যা হলো, টাইব্রেকার তো তখনও শেষ হয়নি!

এশিয়ান কাপের শেষ ষোলোর রোমাঞ্চকর এই লড়াইয়ে টাইব্রেকারে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ৪-২ গোলে হেরে যায় সৌদি আরব।

ম্যাচ শেষের আগেই ওভাবে মাঠ ছেড়ে যাওয়ায় বেশ সমালোচনার মুখে পড়তে হয় মানচিনিকে। তবে পরে সংবাদ সম্মেলনে ক্ষমা চেয়ে সৌদি আরবের কোচের দাবি, ভুল বুঝে তিনি মাঠ ছেড়ে গিয়েছিলেন।

“আমি ক্ষমা প্রার্থনা করছি… ভেবেছিলাম ম্যাচ শেষ হয়ে গেছে। এ কারণেই চলে গেছি। কাউকে অসম্মান করতে চাইনি আমি। আমার দলের সব ফুটবলারকে ধন্যবাদ জানাতে চাই, তারা অনেক উন্নতি করছে।”

কাতারের এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে প্রথমার্ধ ছিল গোলশূন্য। বিরতির পরপরই বদলি নামা আব্দুল্লাহ রাদিফের গোলে এগিয়ে যায় সৌদি আরব। সেই গোল তারা ধরে রাখে প্রায় শেষ পর্যন্ত। কিন্তু ৯০ মিনিট শেষে যোগ করা সময়ের নবম মিনিটে হেড থেকে গোল করে দক্ষিণ কোরিয়াকে সমতায় ফেরান চো গা-সং।

পরে ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে। সেখানে সৌদি আরবের সামি আল-নাজেই ও আব্দুলরাহমান ঘারিবের শট ঠেকিয়ে দেন কোরিয়ান গোলকিপার জো। তাদের দলের চার জনের সবাই বল জালে পাঠান ঠিকঠাক। ৪-২ গোলের জয়ে ইয়ুর্গেন ক্লিন্সমানের দল পৌঁছে যায় কোয়ার্টার-ফাইনালে।

প্রতিপক্ষকে কৃতিত্ব দিলেও সৌদি আরবের কোচ মানচিনি প্রশ্ন তুললেন নির্ধারিত সময় শেষেও এত বেশি সময় যোগ করায়।

“আপনারা হয়তো কোরিয়ার খেলার মান বুঝতে পারছেন না, এটা অনেক উঁচুতে। তাদের অবিশ্বাস্য সব ফুটবলার আছে।”

“শেষ সময়ে এভাবে গোল হজম করা ও টাইব্রেকারে হেরে যাওয়া হতাশাজনক অবশ্যই। আমি বুঝতে পারছি না, কেন ১০ মিনিট সময় যোগ করা হলো! তবে এটাও ঠিক, দল হিসেবে আমাদের আরও উন্নতি করতে হবে এবং আরও কাজ করতে হবে।”