ঝুলে আছে লেভানদোভস্কিদের নিবন্ধন

পোলিশ তারকাসহ দলের নতুন খেলোয়াড়দের লা লিগায় প্রথম ম্যাচে পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তায় বার্সেলোনা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 August 2022, 06:02 PM
Updated : 9 August 2022, 06:02 PM

দুদিন বাদে শুরু হতে যাচ্ছে লা লিগা। আসর শুরুর দ্বিতীয় দিনে মাঠে নামবে বার্সেলোনা। শিরোপা অভিযানে নামার শেষ সময়ে এসে দলগুলো যখন শেষ পর্বের প্রস্তুতি সেরে নেওয়ায় ব্যস্ত, কাতালান ক্লাবটি তখন পড়েছে ভিন্ন সমস্যায়। নতুন খেলোয়াড়দের যে এখনও লা লিগায় নিবন্ধন করতে পারেনি তারা।

আর্থিক দৈন্যতার কারণে গত মৌসুম থেকে ধুঁকতে থাকা বার্সেলোনা চলতি দলবদলে চমকই দেখাচ্ছে। ইউরোপের শীর্ষ ক্লাবগুলোর মধ্যে খেলোয়াড় কেনায় সবচেয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে তারা।

ফ্রি ট্রান্সফারে দলটিতে যোগ দিয়েছেন ফঁক কেসিয়ে ও আন্দ্রেয়াস ক্রিস্টেনসেন। আর প্রায় ১৫ কোটি ইউরো খরচ করে রবের্ত লেভানদোভস্কি, রাফিনিয়া ও জুল কুন্দেকে কিনেছে বার্সেলোনা। তারা আরও কয়েকজন খেলোয়াড়কে দলে টানার চেষ্টা করছে বলেও শোনা যাচ্ছে।

তবে নিয়ম কানুনের ব্যাপারে বরাবরই কঠোর লা লিগায় নতুন খেলোয়াড়দের নিবন্ধন করার ক্ষেত্রে সমস্যায় আছে বার্সেলোনা। ফলে দলের প্রথম ম্যাচে তাদের অংশগ্রহণ অনিশ্চিত।

আগামী শনিবার রায়ো ভাইয়েকানোর বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে লা লিগা অভিযান শুরু করবে গতবারের রানার্সআপরা।

গত মে মাসে লা লিগা সভাপতি হাভিয়ের তেবাস বেশ জোর দিয়ে বলেছিলেন, বার্সেলোনা যদি লেভানদোভস্কিকে দলে পেতে চায়, তাহলে অবশ্যই তাদেরকে এক বা একাধিক খেলোয়াড়কে বিক্রি করে অর্থের যোগান দিতে হবে।

মার্কিন বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান ‘সিক্সথ স্ট্রিট’ এর কাছে নিজেদের লা লিগার টিভি স্বত্বের মোট ২৫ শতাংশ বিক্রি করেছে তারা। এছাড়া জার্সি ও স্টেডিয়ামের স্পন্সরশিপের জন্য চুক্তি করেছে স্পটিফাইয়ের সঙ্গে। বার্সেলোনা স্টুডিওর ২৪.৫% শতাংশও বিক্রি করেছে তারা।

এতে ট্রান্সফার ফির অর্থ এলেও নতুন-পুরনো খেলোয়াড় মিলে ক্লাবের বেতন কাঠামো নিয়ে জটিলতা রয়েই গেছে। ফলে লিগ মৌসুম শুরুর আগে বিপাকে আছে ক্লাবটি।

ক্লাবের সহায়তায় এগিয়ে এসেছেন অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকে। বেতনও কমিয়েছেন তিনি।

এসব পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে হয়তো নতুন খেলোয়াড়দের নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু করতে পারবে বার্সেলোনা। তবে সব খেলোয়াড়দের একসঙ্গে নিবন্ধন করা সম্ভব নয় বলেই ধারণা করা হচ্ছে। এগোতে হবে একে একে।

তবে সেটি লিগে বার্সেলোনার প্রথম ম্যাচের আগে হবে কি-না, তা নিশ্চিত নয়।

বার্সেলোনার আর্থিক অবস্থা স্থিতিশীল না হওয়ায় ভবিষ্যৎ নিয়ে অনিশ্চয়তার মধ্যে আছেন ফ্রেংকি ডি ইয়ংও। সংবাদমাধ্যমের খবর, ডাচ মিডফিল্ডারকে দলে পেতে আগ্রহী প্রিমিয়ার লিগের দুই ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও চেলসি। কাঙ্ক্ষিত মূল্য পেলে বার্সেলোনাও নাকি তাকে ছেড়ে দিতে রাজি।

তবে শুরু থেকেই ডি ইয়ং বলে আসছেন, ক্লাব ছাড়ার কোনো ইচ্ছা নেই তার। তাছাড়া বর্তমান চুক্তির শর্ত অনুযায়ী বার্সেলোনার কাছ থেকে মোটা অঙ্কের অর্থ পাওনা হয়েছে তার, যা এই মৌসুমে কার্যকর হয়েছে

টিভিথ্রির সঙ্গে গত রোববার এক আলাপচারিতায় অবশ্য লাপোর্তা বললেন, শেষ পর্যন্ত ডি ইয়ংকে ধরে রাখার ব্যাপারে আশাবাদী তারা।

“ফ্রেংকি ডি ইয়ং বার্সেলোনার দারুণ মানসম্পন্ন একজন খেলোয়াড় এবং আমরা চাই সে (ক্লাবে) থাকুক।”

ডি ইয়ংকে ধরে রাখতে চাইলেও বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়কে এই দলবলেই ছেড়ে দিতে চায় বার্সেলোনা। যার মধ্যে রয়েছেন ডিফেন্ডার সামুয়েল উমতিতি ও ফরোয়ার্ড মার্টিন ব্রাথওয়েট।

লাপোর্তার বিশ্বাস, বাস্তবতা মেনে ক্লাব ছেড়ে যাওয়ার ব্যাপারে সম্মত হবেন উমতিতি-ব্রাথওয়েটরা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক