অবসরের ঘোষণা ফেদেরারের

লেভার কাপ দিয়ে বিদায় জানানোর ঘোষণা দিয়েছেন টেনিসের এই মহাতারকা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Sept 2022, 01:43 PM
Updated : 15 Sept 2022, 01:43 PM

চোট ভোগাচ্ছে অনেক দিন ধরেই। বেশির ভাগ সময় কাটছে টেনিস কোর্টের বাইরে। সেই কারণেই হয়তো ক্যারিয়ার আর প্রলম্বিত করতে চাচ্ছেন না রজার ফেদেরার। লেভার কাপ দিয়ে বিদায় জানানোর ঘোষণা দিয়েছেন টেনিসের এই মহাতারকা।

চলতি মাসের শেষ দিকে লন্ডনে হবে লেভার কাপ। এই টুর্নামেন্ট দিয়ে প্রতিযোগিতামূলক টেনিসকে বিদায়ের ঘোষণা বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেন ৪১ বছর বয়সী ফেদেরার।

“আপনাদের অনেকেই যেমনটা জানেন, গত তিন বছর ধরে চোট আর অস্ত্রোপচারের ধকল সইতে হচ্ছে আমাকে। পুরোপুরি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক অবস্থায় ফিরতে কঠোর পরিশ্রম করেছি আমি। তবে নিজের শরীরের সামর্থ্য ও সীমা জানি, এবং এটি যে বার্তা দিচ্ছে সেটিও পরিষ্কার। ৪১ বছর বয়স আমার।”

“২৪ বছর ধরে দেড় হাজারের বেশি ম্যাচ খেলেছি আমি। টেনিস আমাকে এভাবে সাদরে গ্রহণ করবে, আমি স্বপ্নেও ভাবিনি। আমার বুঝতে হবে, প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ক্যারিয়ার শেষ করার সময় এসে গেছে। সামনের সপ্তাহে লন্ডনে হতে যাওয়া লেভার কাপই আমার শেষ এটিপি টুর্নামেন্ট। ভবিষ্যতেও টেনিস খেলব, তবে গ্র্যান্ড স্ল্যাম বা (এটিপি) ট্যুরে নয়।”

গত দুই বছরে ফেদেরারের হাঁটুতে অস্ত্রোপচার হয়েছে তিনবার। ২০২১ সালের জুলাইয়ে উইম্বলডনের কোয়ার্টার-ফাইনালে হুবের্ত হুরকাজের বিপক্ষে হারের পর থেকে তিনি কোনো প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ খেলেননি। ২০২০ সালের শুরু থেকে ১১ গ্র্যান্ড স্ল্যামের মধ্যে মাত্র তিনটিতে খেলতে পারেন তিনি।

ফেদেরার গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতেছেন ২০টি। তার চেয়ে বেশি জিতেছেন কেবল স্পেনের রাফায়েল নাদাল (২২) ও সার্বিয়ার নোভাক জোকোভিচ (২১)। এই তিন জনকে বলা হয় টেনিসের ‘বিগ থ্রি।’

মাত্র ১৬ বছর বয়সে ১৯৯৮ সালে ফেদেরারের পেশাদার টেনিসে অভিষেক হয়। ক্যারিয়ারের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতেন তিনি ২০০৩ সালের উইম্বলডনে।

অল ইংল্যান্ড ক্লাবে ছেলেদের এককে রেকর্ড আটটি শিরোপা তার। ২০০৩ থেকে ২০০৭ পর্যন্ত জিতেছিলেন টানা পাঁচটি।

ইউএস ওপেনে তার পাঁচ শিরোপার সবগুলো তিনি জিতেছেন ২০০৪ থেকে টানা পাঁচ আসরে। এছাড়া ছয়বার জিতেছেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ফরাসি ওপেন একবার।

২০১৮ সালে জেতা অস্ট্রেলিয়ান ওপেন হয়ে থাকল তার আলো ঝলমলে ক্যারিয়ারের শেষ গ্র্যান্ড স্ল্যাম শিরোপা।

২০০৪ সালে প্রথমবার র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ওঠেন ফেদেরার। ক্যারিয়ারে রেকর্ড ৩১০ সপ্তাহ চূড়ায় ছিলেন তিনি। গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে তাকে ছাড়িয়ে যান জোকোভিচ।

২০০৪ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে ২০০৮ সালের অগাস্ট পর্যন্ত টানা ২৩৭ সপ্তাহ ফেদেরার র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ছিলেন। যেটি এখনও রেকর্ড হিসেবে টিকে আছে।

স্তানিস্লাস ভাভরিঙ্কার সঙ্গে জুটি বেঁধে ২০০৮ বেইজিং অলিম্পিকে দ্বৈতে সোনা জিতেছিলেন ফেদেরার। ২০১২ লন্ডন অলিম্পিকে জিতেছিলেন রুপা। আগের মাসে তার কাছে উইম্বলডনের ফাইনালে হারের প্রতিশোধ নিয়ে সেবার সোনা জিতেছিলেন ব্রিটেনের অ্যান্ডি মারে।

আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর শুরু হতে যাওয়া লেভার কাপে ইউরোপ দলে আছেন ফেদেরার। সেখানে তার সঙ্গী নাদাল, জোকোভিচ, মারে, স্তেফানোস সিৎসিপাস ও ক্যাস্পার রুদ। ইউরোপের ছয় জন ও অবশিষ্ট বিশ্ব থেকে ছয় জন খেলোয়াড়ের মধ্যে হয়ে থাকে বার্ষিক এই দলীয় টুর্নামেন্ট।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক