দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার ও জিপিএ-৫ দুইটাই কমেছে

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে এ বছর ৬ হাজার ৪৫৯ শিক্ষার্থী এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে। গত বছর এর সংখ্যা ছিল ১১ হাজার ৮৩০ জন।

দিনাজপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 Nov 2023, 11:45 AM
Updated : 26 Nov 2023, 11:45 AM

২০২৩ সালে অনুষ্ঠিত এইচএসসি পরীক্ষায় ফল বিপর্যয় হয়েছে দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে।

এ বছর এ বোর্ডে পাসের হার ৭৪ দশমিক ৪৮ শতাংশ; যা গত বছর ছিল ৭৯ দশমিক ৮ শতাংশ। এবার পাসের হার কমেছে প্রায় ৫ শতাংশ।

এ বছর কমেছে জিপিএ-৫। ৬ হাজার ৪৫৯ শিক্ষার্থী এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে। গত বছর এর সংখ্যা ছিল ১১ হাজার ৮৩০ জন।

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মীর সাজ্জাদ আলী রোববার এ তথ্য জানান।

সাজ্জাদ বলেন, ফলাফলে পাসের হার এবং জিপিএ-৫ প্রাপ্তিতে ছাত্রদের চেয়ে ছাত্রীরা ভালো করেছে।

ছাত্রদের পাসের হার ৭০ দশমিক ৪৫ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ হাজার ৬৫ জন।

আর ছাত্রীদের পাসের হার ৭৮ দশমিক ৩৬ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ হাজার ৩৯৪ জন।

এইচএসসি পরীক্ষায় রংপুর বিভাগের ৮ জেলার ৬৭১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ১ লাখ ১০ হাজার ৮৭৬ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয়, যার মধ্যে ৮২ হাজার ৫৭৯ জন পাশ করেছে বলে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক জানান।

তিনি বলেন, এবার একজনও পাস করেনি এমন কলেজের সংখ্যা বেঁড়ে দাড়িয়েছে ১৬টি। কলেজগুলো হলো- কুড়িগ্রাম ৫টি লালমনিরহাটে ৪টি, ঠাকুরগাঁওয়ে ৩টি, দিনাজপুরে ২টি, নীলফামারী ও গাইবান্ধায় একটি করে।

২০২২ সালে একটিও পাস করেনি এমন কলেজের সংখ্যা ছিল ১৩টি। শতভাগ পাসের করেছে এমন কলেজের সংখ্যাও কমে হয়েছে ১৩টি। ২০২২ সালে এই সংখ্যা ছিল ২৪টি।

ফল বিপর্যয়ের কারণ জানতে চাইলে সাজ্জাদ আলী বলেন, “পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে ছিল। এবার সব বিষয়ে পূর্ণ মার্কে পরীক্ষার হওয়ার কারণে ফলাফল খারাপ হয়েছে। এছাড়াও অন্য আরও কোন বিষয় থাকলে সেগুলো খতিয়ে দেখা হবে। ”