বিনামূল্যের পাঠ্যবই কেজিতে বিক্রি: প্রধান শিক্ষককে শোকজ

তিন কার্যদিবসের মধ্যে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ঝালকাঠি প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Feb 2024, 01:44 PM
Updated : 1 Feb 2024, 01:44 PM

ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলায় বিনামূল্যে বিতরণের মাধ্যমিক পর্যায়ের পাঠ্যবই কেজি দরে বিক্রির ঘটনায় এক প্রধান শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ করা হয়েছে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মু. আনোয়ার আযিম বৃহস্পতিবার উপজেলার তারাবুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শহীদুল ইসলামকে এ নোটিশ দেন।

নোটিশে বলা হয়, বিনামূল্যে বিতরণ করা সরকারি বই মজুদ না রেখে, কেন বিক্রি করা হল তা তিন কার্যদিবসের মধ্যে প্রধান শিক্ষককে জবাব দিতে বলা হয়েছে।

তবে নোটিশ এখনও হাতে পাননি জানিয়ে প্রধান শিক্ষক শহীদুল ইসলাম বলেন, “আমি বইগুলো বিক্রি করতে চাইনি। অফিস সহকারী ভুল করে পুরাতন কাগজপত্রে সঙ্গে ওগুলো বিক্রির উদ্যোগ নেয়। তবে আটকের পর বইগুলো ফিরিয়ে আনা হয়েছে।”

বুধবার বিকালে বিক্রির জন্য ট্রাকে তোলা তারাবুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সরকারি ২১৫ কেজি বই স্থানীয়রা আটক করেন। ২০২৩ সালের ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির এ বইগুলো পরে ইউনিয়ন পরিষদে আটক করে রাখ হয়। খবর পেয়ে উপজেলা শিক্ষা বিভাগ বইগুলোকে স্কুলে ফিরিয়ে আনতে নির্দেশ দেয়।

এ বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আনোয়ার আযিম বলেন, “সরকারি বই বিক্রি করার কোনো বিধান নেই। কেন বিক্রি করেছে তার জন্য প্রধান শিক্ষক কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। তিন কার্যদিবসের মধ্যে এর জবাব দিতে বলা হয়েছে।”

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নেছার উদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় প্রধান শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। তার জবাব সন্তোষজনক না হলে পরবর্তী সময়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন:

Also Read: বিক্রির সময় বিনামূল্যের ২১৫ কেজি পাঠ্য বইসহ ট্রাক আটক