ভাড়া নিয়ে বিতণ্ডা, ‘পথচারীদের পিটুনিতে’ বাস চালকের মৃত্যু

পুলিশ বলছে, এক যাত্রীর সঙ্গে ভাড়া নিয়ে ঝগড়ার জের ধরে পথচারীরা মিলে ওই বাস চালককে বেধড়ক মারধর করে।

সাভার প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 August 2022, 04:18 AM
Updated : 3 August 2022, 04:18 AM

ঢাকার আশুলিয়ায় এক যাত্রীর সাথে ভাড়া নিয়ে বিতণ্ডার পর পথচারীদের পিটুনিতে বাসচালকের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আশুলিয়া থানার এসআই আল মামুন কবির জানান, আশুলিয়ার নরসিংহপুর এলাকার ইটখোলা এলাকায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ওই ঘটনা ঘটে।

নিহত বাসচালক আরিফুল ইসলাম (২৯) শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ী উপজেলার বেশগ্রিপাড়ার মো. মোস্তফার ছেলে। তিনি গাজীপুরের কোনাবাড়ী এলাকার এক বাসায় ভাড়া থাকতেন। কিরনমালা পরিবহনের একটি বাস চালাতেন তিনি।

এসআই কবির বলেন, “প্রাথমিক তদন্তে জানতে পেরেছি, এক যাত্রীর সঙ্গে ভাড়া নিয়ে ঝগড়ার জের ধরে পথচারীরা মিলে চালককে বেধড়ক মারধর করে। পরে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।”

খবর পেয়ে আশুলিয়ার নারী ও শিশু স্বাস্থ্য কেন্দ্র থেকে আরিফুলের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ।

নিহত বাসচালকের সহকারী মো. খোকন বলেন, কিরনমালা পরিবহনের বাসটি কোনাবাড়ী থেকে মিরপুর রোডে চলাচল করে। কোনাবাড়ী থেকে এক যাত্রী তাদের বাসে ওঠেন। কয়েকবার ভাড়া চাইলে পরে দেওয়ার কথা বলেন। কিন্তু নরসিংহপুর এলাকার ইটখোলায় গিয়ে ভাড়া না দিয়েই নেমে পড়েন।

“তখন আমি ভাড়া চাইলে আমাকে সে ঘুষি মারে। ড্রাইভার তখন নেমে এসে ভাড়া চাইলে ওই লোক রাস্তার পাশ থেকে ইট নিয়ে বাসে ঢিল মারতে যায়। ড্রাইভার তার হাত ধরে ফেললে সে ড্রাইভারকে মারতে শুরু করে। রাস্তার লোকজনও তখন কিছু না বুঝেই ড্রাইভারকে মারধর শুরু করে।”

খোকন বলেন, পিটুনি থেকে বাঁচতে আরিফুল দৌড়ে গিয়ে বাসে ওঠেন। কিন্তু ভেতরে ঢুকে শুয়ে পড়ে অচেতন হয়ে যান। পরে তাকে পাশের নারী ও শিশু হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক জানান, ঘাড়ে আঘাত লাগায় হাসপাতালে নেওয়ার আগেই মারা গেছেন আরিফুল।

এ ঘটনায় আশুলিয়া থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন এসআই কবির।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক