রাজবাড়ীতে মুদি ব্যবসায়ীকে হত‍্যা টাকার জন‍্য: পুলিশ

পুলিশ জানায়, মামলার আসামি তরিকুল ইসলামকে রুপসা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি অনলাইন জুয়া খেলায় আসক্ত।

রাজবাড়ী প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 23 Feb 2024, 10:11 AM
Updated : 23 Feb 2024, 10:11 AM

অনলাইনে জুয়া খেলার টাকা জোগার করতে রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলায় মুদি ব্যবসায়ী শরিফ খানকে হত্যা করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শুক্রবার সকালে কালুখালী থানায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে রাজবাড়ীর সহকারী পুলিশ সুপার (পাংশা সার্কেল) সুমন কুমার সাহা এ কথা জানান।

বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে কালুখালী উপজেলার রতনদিয়া ইউনিয়নের রুপসা স্লুইজ গেইট বাজারে একই ইউনিয়নের ধানবাড়িয়া গ্রামের হাকিম খানের ছেলে ৪২ বছর বয়সী শরিফ খানকে হত্যা করা হয়।

বৃহস্পতিবার শরিফের স্ত্রী আছমা খাতুন বাদী হয়ে অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তিদের আসামি করে কালুখালী থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে ওইদিন দুপুরে মামলার প্রধান আসামি তরিকুল ইসলামকে রুপসা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

গ্রেপ্তার ২০ বছর বয়সী তরিকুল একই ইউনিয়নের রূপসা গ্রামের চাঁদ আলী শেখের ছেলে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সংবাদ সম্মেলনে সুমন সাহা বলেন, “নিহত শরিফ খান মুদি ব্যবসার পাশাপাশি বিকাশ এজেন্টও ছিলেন। গত ২১ ফেব্রুয়ারি রাতে শরিফ তার ছেলে আরাফাত খানকে নিয়ে রুপসা গায়েবী মসজিদ মাঠে ওয়াজ মাহফিলে যান। রাত ১১টার দিকে তরিকুল ইসলাম ফোন করে শরিফকে জানায় যে, তিনি বিকাশে টাকা পাঠাবেন।

“পরে তিনি শরিফকে মাহফিল থেকে ডেকে আনেন। এরপর পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী রূপসা সুইচ গেইট বাজারে আবু বক্কর সিদ্দিক ওরফে জাদুর সেলুনের দোকানের সামনে ধারালো দা দিয়ে শরীফের মাথায় একাধিক কোপ দিয়ে হত্যা করেন।”

পুলিশের এ কর্মকর্তা বলেন, রাত সাড়ে ১১টার দিকে সেখান থেকে শরিফের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে তার স্ত্রী মামলা দায়ের করলে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। তদন্তে বেরিয়ে আসে যে, তরিকুল একই বাজারের ব‍্যবসায়ী।

“তিনি অনলাইন জুয়া খেলায় আসক্ত। অনলাইনে জুয়া খেলে বহু টাকা হেরে যান। ওই টাকা যোগার করার জন‍্য শরিফকে হত্যা করেন তরিকুল।”

এদিকে হত্যার কাজে ব্যবহৃত ধারালো দা আসামি তরিকুলের চাচাতো ভাইয়ের ঘর হতে উদ্ধার এবং আসামিকে রাজবাড়ী আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানিয়েছেন সহকারী পুলিশ সুপার।

সংবাদ সম্মেলনে কালুখালী থানার ওসি মো. আলমগীর হোসাইনসহ অন‍্য পুলিশ সদস‍্যরা উপস্থিত ছিলেন।