ঘোড়া বেঁধে রাখাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নিহত ২

পুলিশ জানায়, সংঘর্ষের ঘটনায় দুপক্ষের ছয়জনকে আটক করা হয়েছে।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 April 2024, 10:04 AM
Updated : 2 April 2024, 10:04 AM

সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জ উপজেলায় বাড়ির সামনে ঘোড়া বেঁধে রাখাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার রাতে উপজেলার শিমুলবাঁক ইউনিয়নের থলেরবন্দ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে শান্তিগঞ্জ থানার ওসি কাজী মোক্তাদীর হোসেন জানান। 

নিহতরা হলেন- ওই গ্রামের মৃত রহিম উদ্দিনের ছেলে নুর মোহাম্মদ (২২) এবং একই গ্রামের মৃত নইমুল্লার ছেলে আব্দুল আউয়াল (৫৫)।

এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত আরও ১০ জন। এ ছাড়া দুপক্ষের ছয়জনকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

স্থানীয়দের বরাতে ওসি মোক্তাদীর বলেন, আশিক আলীর বাড়ির সামনের সড়কে শের আলী তার একটি ঘোড়া বেঁধে রাখেন। রাতে ওই পথ দিয়ে যাবার সময় বেঁধে রাখা ঘোড়ার লাথিতে আশিক আলী ছেলে ফরিদ আলী আঘাতপ্রাপ্ত হন।

“এতে আশিক আলীর ভাই সাহার আলী তাদের বাড়ির সামনে ঘোড়া বেঁধে রাখার কারণ শের আলীকে জিজ্ঞাসা করেন। এ সময় শের আলীর লোকজন সাহার আলীর সঙ্গে তর্কে জড়ায় এবং মারধর করেন।”

ওসি বলেন, “এ ঘটনার জের ধরে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে দুপক্ষের লোকজন। এতে আশিক আলীর পক্ষের নূর মোহাম্মদ ও শের আলীর পক্ষের আব্দুল আউয়াল গুরুতর আহত হলে তাদের জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।”

আশঙ্কাজনক অবস্থায় আহত নূর মোহাম্মদকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেলে ভর্তি করা হলে রাত ১টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে জানান তিনি।

মোক্তাদীর বলেন বলেন, এদিকে মঙ্গলবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সদর হাসপাতালে আব্দুল আউয়ালের মৃত্যু হয়। সংঘর্ষে ঘটনায় উভয় পক্ষের গুরুতর আহতরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন।

“আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ওই এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। অভিযান চালিয়ে দুপক্ষের ছয়জনকে আটক করা হয়েছে।”

ময়নাতদন্ত শেষে লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে; এ ঘটনায় মামলা প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি।