ভোটের বিরোধ: বরিশালে ‘প্রতিপক্ষের হামলায়’ ইউপি সদস্য আহত

আহত শোলক ইউনিয়নের ২১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য হুমায়ন কবির টুলুকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বরিশাল প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 August 2022, 05:36 AM
Updated : 2 August 2022, 05:36 AM

বরিশালের উজিরপুর উপজেলায় ইউপি নির্বাচন নিয়ে বিরোধের জেরে নির্বাচিত ইউপি সদস্যর উপর হামলার অভিযোগ উঠেছে পরাজিত প্রার্থীর বিরুদ্ধে।

উপজেলার শোলক ইউনিয়নের দক্ষিণ ধামুরা গ্রামে সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এতে আহত শোলক ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য হুমায়ন কবির টুলুকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

টুলু দক্ষিণ ধামুরা গ্রামের আব্দুল হামিদ সরদারের ছেলে এবং শরীয়তপুর জেলার গোসাইরহাট থানার এসআই মো. সোহেলের ভাই।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে সোহেল বলেন, “গত বছর ২১ জুন শোলক ইউপি নির্বাচনে টুলুর প্রতিদ্বন্দ্বি ছিলেন সাবেক ইউপি সদস্য তানভীর হোসেন ফারুক। তিনি বিপুল ভোটের ব্যবধানে টুলুর কাছে হেরে যান। এরপর থেকে ভাইয়ের সঙ্গে ফারুকের বিরোধ চলছিল।

“গত ৩০ জনু শোলক ইউনিয়নের ধামুরা বন্দরে ফারুক ও তার সহযোগীরা টুলুর উপর হামলার চেষ্টা করে। এ সময় টুলুকে ধাক্কা দিয়ে রাস্তায় ফেলে দেওয়া হয়।”

পরে টুলুকে হত্যার হুমকি দেওয়া হলে সে উজিরপুর মডেল থানায় ফারুকের বিরুদ্ধে একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন বলে জানান সোহেল।

তিনি বলেন, “জিডির ঘটনায় এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে ফারুকের নেতৃত্বে তার অনুসারীরা বাড়ি ফেরার পথে টুলুর উপর হামলা চালিয়ে তাকে মারধর করে। পরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করলে ভাই পাশের খালে পড়ে গিয়ে চিৎকার শুরু করে।

“তখন এলাকাবাসী এগিয়ে এলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।”

অভিযোগের বিষয়ে জানতে জাইলে ফারুক বলেন, “আমি চারদিন ধরে তো এলাকাতেই নাই। আমি কারো উপর হামলা করি নাই। আমার সঙ্গে যাদের শত্রুতা রয়েছে, তারাই আমাকে ফাঁসাতে এ ঘটনা সাজিয়েছে।”

এ বিষয়ে উজিরপুর থানার ওসি মো. মমিনউদ্দিন বলেন, ফারুকের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। এর আগে সে একধিকবার জেলও খেটেছে। এ ঘটনায় ফারুক জড়িত কি না তা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবেন তারা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক