৪ বছর ধরে প্রশ্ন ফাঁস হচ্ছে না: শিক্ষামন্ত্রী

চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে সম্প্রীতি সমাবেশে দীপু মনি এ কথা বলেন।

চাঁদপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Oct 2022, 12:24 PM
Updated : 1 Oct 2022, 12:24 PM

সরকারের কার্যকর পদক্ষেপের কারণে চার বছর ধরে প্রশ্নপত্রের ফাঁসরোধ সম্ভব হয়েছে বলে দাবি করেছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। 

শনিবার দুপুরে চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে সম্প্রীতি সমাবেশ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এই মন্তব্য করেন। 

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, “গত চার বছর ধরে প্রশ্ন ফাঁস হচ্ছে না। প্রশ্ন ফাঁস হচ্ছে না তার কারণ হলো- আমরা যে ব্যবস্থা নিয়েছি, প্রযুক্তিগত যে ব্যবস্থা নিয়েছি, যেভাবে সার্ভিল্যান্স হয়, সেগুলোর মধ্য দিয়ে এটা বন্ধ করা হয়েছে। 

এ সময় তিনি চলতি এসএসসি পরীক্ষায় দিনাজপুরের প্রশ্ন ফাঁসের বিষয়টি নিয়েও কথা বলেন। 

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলায় চলতি এসএসসি পরীক্ষার ইংরেজি প্রথম এবং দ্বিতীয় পত্রের প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ ওঠে। বিষয়টি সামাজিক মাধ্যম ও গণমাধ্যমকর্মীদের নজরে এলে নড়েচড়ে বসে স্থানীয় প্রশাসন।

ভূরুঙ্গামারী নেহাল উদ্দিন পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কক্ষ থেকে ২০ সেপ্টেম্বর প্রশাসনের কর্মকর্তারা এসএসসির চারটি বিষয়ের প্রশ্নপত্র উদ্ধার করেন। এরপর ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসব পরীক্ষার সূচি বাতিল করে নতুন করে রুটিন দেয় শিক্ষা বোর্ড।

এ ব্যাপারে দীপু মনি বলেন, “দিনাজপুরের একটি জায়গায় এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নের নিরাপত্তা ব্যাহত হলেও আমাদের গৃহীত নিরাপত্তা ব্যবস্থার কারণে প্রশ্ন ফাঁসরোধ করা সম্ভব হয়েছে। প্রশ্ন ফাঁস হওয়া বলতে যা বুঝায়, তা কিন্তু হয়নি। কোনো পরীক্ষার্থীর হাতে প্রশ্ন পৌঁছায়নি।” 

“একটি কেন্দ্রের সচিব তিনি অনেকগুলো প্রশ্নে প্যাকেট নিয়ে চলে গেছেন। এটি কী করে হলো সেই বিষয়ে তদন্ত হচ্ছে, তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। সঠিক তদন্ত শেষে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।” 

মন্ত্রী আরও বলেন, “দু-একটি জায়গায় যে ভুল প্রশ্ন দেওয়া হয়েছে। এটি বিজি প্রেসে প্রশ্ন প্যাকেট হওয়ার সময় কোথাও কোথাও ভুল হয়েছে। এই ভুল আগামীতে যেন না হয় সে ব্যাপারে আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করছি।“ 

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান, পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ডা. জে আর ওয়াদুদ টিপু, চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল, চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি গিয়াসউদ্দিন মিলন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক