কুড়িগ্রাম সীমান্তে কৃষককে বিএসএফের পিটুনির খবর

বিএসএফ সদস্যরা আমজাদকে ‘মাটিতে ফেলে মারধর করেন; অজ্ঞান হলে ফেলে রেখে ওপারে চলে যান’।

আহসান হাবীব নীলুকুড়িগ্রাম প্রতিনিধি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 Jan 2023, 05:50 PM
Updated : 18 Jan 2023, 05:50 PM

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী সীমান্তে ‘ক্ষেতে কাজ করতে’ গিয়ে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের পিটুনির শিকার হয়েছেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। 

বুধবার সকালে ফুলবাড়ী সদর ইউনিয়নের সীমান্তঘেঁষা কুটিচন্দ্রখানা নাকারজান এলাকায় এ ঘটনার কথা শুনেছেন বলে লালমনিরহাট ১৫ বিজিবি ব্যাটালিয়নের গংগারহাট ক্যাম্পের নায়েক সুবেদার নুরুল ইসলাম জানান। 

আমজাদ হোসেন (৫০) নামের এই বাংলাদেশি কৃষককে অজ্ঞাত স্থানে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলে স্থানীয়রা জানান।

আমজাদ হোসেন কুটিচন্দ্রখানা নাকারজান গ্রামের প্রয়াত আজিমুদ্দিনের ছেলে।

স্থানীয় লোকজন ও পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ঘন কুয়াশার মধ্যে আমজাদ হোসেন সীমান্তের জিরোলাইনে আলু ক্ষেত দেখতে যান। এ সময় ভারতীয় কোচবিহার জেলার দিনহাটা থানার অধীন ১৩৮ ব্যাটালিয়নের টহলরত বিএসএফ সদস্যরা আমজাদকে আটক করেন। 

তারা তাকে মাটিতে ফেলে বেধড়ক মারধর করেন। অজ্ঞান হয়ে গেলে আলু ক্ষেতে ফেলে রেখে কাটাতাঁরের ভিতরে চলে যান বিএসএফ সদস্যরা। 

পরে পরিবারের লোকজন ওই আলু ক্ষেত থেকে আমজাদ হোসেনকে উদ্ধার করেন। বর্তমানে অজ্ঞাত স্থানে রেখে তাকে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে।

সীমান্ত এলাকার বাসিন্দা আশরাফুল ইসলাম ও হয়রত আলী জানান, বিএসএফের মারধরে আমজাদ হোসেন আহত হয়েছেন বলে তারা শুনেছেন। তবে তাকে কোথায় চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে তা তারা জানেন না।

লালমনিরহাট ১৫ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধীন গংগারহাট ক্যাম্পের নায়েক সুবেদার নুরুল ইসলাম বলেন, “লোক মারফত শুনেছি একজন বাংলাদেশি কৃষক আলুর ক্ষেত দেখার জন্য সীমান্তে গিয়েছিল। এ সময় ওই কৃষককে আটক করে মারপিট করেছে বিএসএফ। খবর পেয়ে দ্রুত বিজিবির একটি টহল নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছে।” 

আহত বাংলাদেশি কৃষকের পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ নেই; তবে এ বিষয়ে  ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে বলে তিনি জানান।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক