টাঙ্গাইলে ওই দুই শিশুকে ‘হত্যা করেছেন মা’: পুলিশ

টাঙ্গাইলের ভূঞাপু‌রে দুই শিশু সন্তানকে ‘হত্যা করে’ তাদের মা সিলিং ফ্যানে ঝুলে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

টাঙ্গাইল প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 April 2022, 03:37 PM
Updated : 24 April 2022, 04:38 PM

এর আগে সিলিং ফ্যান খুলে পড়ে ওই দুই শিশু নিহত এবং তাদের মা আহত হন বলে পুলিশ জানিয়েছিল।

কয়েক ঘণ্টা পর টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার সাংবাদিকদের বলেন, ফ্যান পড়ে শিশুরা মারা যায়নি, তাদের ‘মা বালিশ চাপা দিয়ে তাদের হত্যা করেছেন’।

উপ‌জেলার নিকরাইল ইউনিয়নের এক নম্বর পুনর্বাসন এলাকায় রোববার বেলা ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শিশুরা হলো পুনর্বাস‌ন এলাকার ইউসুফের দুই ছে‌লে সা‌জিম (৬) ও ৪ মাস বয়সী সা‌নি।

ভূঞাপুর থানার ওসি মো. ফরিদুল ইসলাম বলেন, দুই সন্তানকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করেছেন মা সাহিদা বেগম। পরে ঘূর্ণায়মান সিলিং ফ্যানে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেন তিনি।

সা‌হিদা বেগমকে টাঙ্গাইল জেনা‌রেল হাসপাতা‌লে ভর্তি করা হ‌য়ে‌ছে।

এ বিষয়ে টাঙ্গাইল পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার সাংবাদিকদের ব‌লেন, “ফ্যান পড়ে শিশুরা মারা যায়নি, তাদের মা সাহিদা বেগম বালিশ চাপা দিয়ে তাদের হত্যা করেছেন। পারিবারিক কলহের জের ধরে বেশ কিছুদিন ধরেই দুই ছেলেকে হত্যা করতে চাইতেন তিনি।

“সাহিদা আহত অবস্থায় টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পুলিশের কাছে জবানবন্দি দিয়েছেন। তিনি বলেন যে ছেলে দুটিকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যার পর নিজে ফ্যানে ঝুলে ‘সুইসাইড’ করতে যান। কিন্তু ফ্যানের পাখা ভেঙে নিচে পরে অজ্ঞান হয়ে যান তিনি।”

এসপি জানান, তাকে কেউ এই হত্যার জন্য ইন্ধন দিয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘচনায় এখনও মামলা হয়নি। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এর আগে এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে পুলিশ জানিয়েছিল, ইউসুফের স্ত্রী ও দুই ছেলে ঘরে ফ্যান ছেড়ে ঘুমিয়েছিল। এক পর্যায়ে সি‌লিং ফ্যান খুলে পড়লে ঘটনাস্থলেই সানির মৃত্যু হয়। সা‌জিমকে স্থানীয় ফার্মেসিতে ডাক্তার দেখাতে নিয়ে যাওয়ার পর সেও মারা যায়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক