কুমিল্লায় ‘বাকিতে সিগারেট’ না দেওয়ায় দোকানিকে খুন

স্বজনরা জানায়, আহত মানিককে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

কুমিল্লা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 21 March 2024, 11:54 AM
Updated : 21 March 2024, 11:54 AM

কুমিল্লার তিতাস উপজেলায় বাকিতে না দেওয়ায় একজনকে ছুরিকাঘাতে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার কানাইনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে বলে তিতাস থানা ওসি কাঞ্চন কান্তি দাস জানান। 

নিহত মো. মানিক মিয়া (৩৬) উপজেলার কানাইনগর গ্রামের মোখলেছুর রহমানের ছেলে। তিনি তার বাড়ির সামনে একটি দোকানে চা-পান-সিগারেটসহ বিভিন্ন পণ্য বিক্রি করতেন। 

নিহতের স্ত্রী তাসলিমা আকতার বলেন, “দুপুরে প্রতিবেশী বাহাউদ্দীন আমার স্বামী মানিকের দোকানের সামনে গিয়ে বাকিতে সিগারেট চান। এ সময় দোকানে সিগারেট নেই বলে জানালে বাহাউদ্দীন তার সঙ্গে কথা-কাটাকাটি শুরু করে। এক পর্যায়ে বাহাউদ্দীন দোকানে প্রবেশ করে মানিককে মারধর করতে শুরু করে।” 

তিনি বলেন, “তাদের মধ্যে হাতাহাতির এক পর্যায় বাহাউদ্দীন নাকে আঘাত পান এবং তার নাক থেকে রক্ত ঝরে। রক্তাক্ত অবস্থায় বাহাউদ্দীন বাড়ি গেলে তার বড় ভাই জালাল উদ্দীনসহ ৩-৪ জন মিলে ছুটে গিয়ে ধারালো ছুরি নিয়ে আমার স্বামীর ওপর হামলা চালায়। 

“তাকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। এ সময় মানিকের চিৎকার শুনে বাড়ি থেকে আমরা দৌড়ে এলে তারা পালিয়ে যায়।“ 

তাসলিমা আকতার বলেন, মানিককে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় পাঠায়। 

পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান নিহতের স্ত্রী। 

ওসি কাঞ্চন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করতে একাধিক টিম কাজ করছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।