ভাইয়ের আসনে নৌকা চান অধ্যাপক আনোয়ার, ফরম নিলেন পিএসসির সাবেক চেয়ারম্যান সাদিকও

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন মনোনয়ন ফরম কিনেছেন নেত্রকোণা-৫ আসন থেকে। আর পিএসসির সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক সুনামগঞ্জ ৪ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে চান।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Nov 2023, 07:35 AM
Updated : 20 Nov 2023, 07:35 AM

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হতে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন এবং পিএসসির সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক।

সোমবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গিয়ে ফরম নেন অধ্যাপক আনোয়ার।

সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগের ফরম বিক্রির দায়িত্বে থাকা আওয়ামী লীগের উপ কমিটির সদস্য সামসুল কবির রাহাত জানান, নেত্রকোণা-৫ আসনের (পূর্বধলা উপজেলা) জন্য ফরম সংগ্রহ করেছেন অধ্যাপক আনোয়ার।

ওই আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য হলেন আনোয়ার হোসেনের ছোট ভাই ওয়ারেসাত হোসেন বেলাল। তারা দুজনেই মুক্তিযোদ্ধা। বেলাল পূর্বধলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য। আর আনোয়ার হোসেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের স্থায়ী কমিটির সদস্য। তারা প্রয়াত কর্নেল তাহেরের ছোট ভাই।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমিস্ট্রি এবং আণবিক জীববিজ্ঞান বিভাগে শিক্ষকতা করা আনোয়ার হোসেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতিও ছিলেন। ২০১২-২০১৪ সমযে তিনি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের দায়িত্ব পালন করেন।

এদিকে সুনামগঞ্জ-৪ আসন থেকে নৌকার প্রার্থী হতে ফরম কিনেছেন সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক।

এ আসনটি বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা ও সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা নিয়ে গঠিত। সুনামগঞ্জ-৪ আসনের বর্তমান এমপি জাতীয় পার্টির পীর ফজলুর রহমান মিছবাহ।

মোহাম্মদ সাদিকের পক্ষে একজন প্রতিনিধি সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় থেকে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন বলে ফরম বিক্রির দায়িত্বপ্রাপ্ত কবির রাহাত জানান।

মোহাম্মদ সাদিক ছিলেন পিএসসি ত্রয়োদশ চেয়ারম্যান। তার আগে শিক্ষা সচিব এবং নির্বাচন কমিশনের সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করা সাদিক একজন কবি হিসেবেও পরিচিত।

কবিতায় বিশেষ অবদানের জন্য ২০১৭ সালে বাংলা একডেমির পুরস্কার পান মোহাম্মদ সাদিক। তার বাড়ি সুনামগঞ্জে।

আগামী ৭ জানুয়ারি ভোটের দিন নির্ধারণ করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল যে তফসিল ঘোষণা করেছেন,তাতে  মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ঠিক করা হয়েছে ৩০ নভেম্বর।

তার আগেই প্রার্থী মনোনয়ন চূড়ান্ত করবে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড। দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন শনিবার। তার ফরম কেনার মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনী কার্যক্রম শুরু করে টানা তিন মেয়াদে ক্ষমতায় দলটি।

মনোনয়ন পেতে আগ্রহীদের কাছে ফরম বিক্রি করে আওয়ামী লীগের আয় হয়েছে ১১ কোটি ৪৩ লাখ টাকা। মঙ্গলবার বিকাল ৪টা পর্যন্ত মনোনয়ন ফরম দলীয় কার্যালয়ে জমা নেওয়া হবে।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র বাছাই ১ থেকে ৪ ডিসেম্বর, রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কমিশনে আপিল দায়ের ও নিষ্পত্তি ৬ থেকে ১৫ ডিসেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ১৭ ডিসেম্বর।