সোহরাওয়ার্দী পর্যন্ত এসেছেন, তখন নয়া পল্টনেও আসবেন: মোশাররফ

“আমরা ১০ তারিখে সমাবেশ থেকে এ সরকারের বিদায়ের জন্য আমরা আমাদের কর্মসূচি ঘোষণা করব,” বলেন তিনি।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 Nov 2022, 03:22 PM
Updated : 28 Nov 2022, 03:22 PM

ঢাকায় ১০ ডিসেম্বর সমাবেশের অনুমতি নিয়ে সরকারের সঙ্গে টানাপড়েন চললেও নয়া পল্টনই পাবে বলে আশাবাদী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি আশা প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, ‘‘১০ তারিখ (১০ ডিসেম্বর) আমরা সমাবেশ করব ঢাকায়। আপনারা দেখছেন কত রকমের কথা। সরকারের মন্ত্রীরা বলছেন, আমাদের সমাবেশ বিশ্ব এজতেমার মাঠ টঙ্গী পাঠিয়ে দেবেন, অন্যরা বলছেন, পূর্বাঞ্চলে পাঠাবেন। তারপর সেদিন দেখলাম স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলছেন যে, না ঢাকায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ওনারা করুক।

‘‘ আমি সেদিন মন্তব্য করেছি, মন্ত্রীরা যখন আমাদেরকে পূর্বাঞ্চলে পাঠিয়ে দেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যখন সোহরাওয়ার্দী উদ্যান পর্যন্ত এসেছেন। আমার মনে হয় তারা আমাদের যে দাবি আমাদের অফিসের সামনে পল্টন পর্যন্ত তা আসবেন।”

খন্দকার মোশাররফ বলেন, ‘‘আজকের পেপারে দেখেন যে, প্রধানমন্ত্রী তিনি বলেছেন, ১০ তারিখে সমাবেশ হলে কেউ বাধা দেবে না, কিছু হবে না। কত ভালো মানুষ। তাহলে এতদিন আপনারা কি বলেছেন? আমরা যখনই সমাবেশ আহ্বান করি তখন প্রধানমন্ত্রী বলেন নাই যে, এখানে সমাবেশ আহবান করে সন্ত্রাস করার জন্য, এগুলো তাড়াতাড়ি বন্ধ কর।

‘‘আমরা ৮টি বিভাগীয় সমাবেশ করে দেখিয়ে দিয়েছি যে, সন্ত্রাস করার জন্য আমরা সমাবেশ করি না। বিএনপি গণতান্ত্রিক দল, মধ্যপন্থি গণতান্ত্রিক দল। আমরা গণতন্ত্রের জন্য, এদেশের মানুষের অধিকারের জন্য, এদেশের মানুষের ভোটের অধিকারের জন্য আমরা আন্দোলন করছি এবং এটা প্রমাণ হয়েছে। আজকে তারা ভালো মানুষ সাজছে।”

তিনি বলেন, ‘‘আমরা ১০ তারিখে সমাবেশ থেকে এ সরকারের বিদায়ের জন্য আমরা আমাদের কর্মসূচি ঘোষণা করব এবং ইনশাল্লাহ এদেশের মানুষ রাস্তায় নেমে এই অবৈধ গায়ের জোরের সরকারকে অমানবিক সরকারকে ক্ষমতা থেকে নামিয়ে একটি নির্দলীয় নিরপেক্ষ নির্বাচনকালীন সরকারের অধীনে একটি সুষ্ঠু নিরপেক্ষ অংশগ্রহনমূলক নির্বাচনের মাধ্যমে জনগনের সরকার প্রতিষ্ঠা করবে।”

জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জ্বল হোসেন মানিক মিয়া হলে সাউথ এশিয়ান ইয়ুথ রিসার্চ সেন্টার (এসএওয়াইআরসি) এর উদ্যোগে ‘বাংলাদেশে গণতন্ত্র শক্তিশালীকরণ ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ভূমিকা’ শীর্ষক এ আলোচনা সভা হয়।

সাউথ এশিয়ান ইয়ুথ রিসার্চ সেন্টারের চেয়ারম্যান সুমন হকের সভাপতিত্বে সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, সাবেক কূটনীতিক সিরাজুল ইসলাম ও সাকিব আলী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শান্তি ও সংঘর্ষ অধ্যায়ন বিভাগের শিক্ষক সাইফুদ্দিন আহমেদ বক্তব্য রাখেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক